Arpita Mukherjee LIC: অর্পিতার জীবনবিমার দেড় কোটির প্রিমিয়াম দিতেন পার্থ, চার্জশিটে বিস্ফোরক তথ্য ইডি-র

Parth Chatterjee and Arpita Mukherjee: ৩১ বিমার মধ্যে বেশিরভাগেরই প্রিমিয়াম ৫০ হাজার টাকা। এবং কয়েকটি বিমার প্রিমিয়াম ৪৫ হাজার টাকা বলে জানা যাচ্ছে।

Arpita Mukherjee LIC: অর্পিতার জীবনবিমার দেড় কোটির প্রিমিয়াম দিতেন পার্থ, চার্জশিটে বিস্ফোরক তথ্য ইডি-র
পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Sep 20, 2022 | 10:25 AM

কলকাতা: পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়ের গ্রেফতারির ৫৮ দিনের মাথায় চার্জশিট পেশ করে ইডি। সোমবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে সেই চার্জশিট পেশ করা হয়। ইডির পেশ করা চার্জশিটে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ৩১টি জীবনবিমার উল্লেখ করা হয়েছে। আর সেই ৩১টি জীবনবিমার প্রিমিয়াম দেড় কোটি টাকা। ৩১ বিমার মধ্যে বেশিরভাগেরই প্রিমিয়াম ৫০ হাজার টাকা। এবং কয়েকটি বিমার প্রিমিয়াম ৪৫ হাজার টাকা বলে জানা যাচ্ছে। পার্থ চটোপাধ্যায়ের মোবাইলের ফরেন্সিক পরীক্ষা করানোর পর এই তথ্য সামনে এসেছে বলে জানা যাচ্ছে।

ব্যাঙ্কের থেকে যে সকল নথি ইডি পেয়েছিল সেই সমস্ত নথির সঙ্গেও বিমার প্রিমিয়ামেরও তথ্য মিলেছে বলে ইডির দাবি। এর আগে ইডি তরফে আদালতে জানানো হয়েছিল যে, অর্পিতার এই ৩১ প্রিয়িয়াম বাবদ ব্যাঙ্কে টাকা জমা দিতেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এবার চার্জশিটে সেই তথ্য উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তরফে জানানো হল যে মোট দেড় কোটি টাকা ব্যাঙ্কে জমা করা হত।

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, প্রথমে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মোবাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়। তারপর তা পাঠানো হয় সিএফএসএল-এ। তারপর সেখান থেকে মুছে ফেলা তথ্য সংগ্রহ করা হয়। সেখানে দেখা যায়, প্রাক্তন মন্ত্রীর মোবাইলে বিমার টাকা জমা পড়ার এসএমএস। এরপর যে ব্যাঙ্কগুলিতে বিমা করা হয়েছিল গোয়েন্দারা সেই ব্যাঙ্কগুলিতে যোগাযোগ করেন। চাওয়া হয় নথি। সেগুলি পরীক্ষা করে দেখা হয় যে টাকা দিতেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। জানা গিয়েছে, ২০১৫ সাল থেকে এলআইসি গুলি রয়েছে। বিগত সাত বছর ধরে জমা পড়ছে এলআইসি প্রিমিয়াম।

এই খবরটিও পড়ুন

উল্লেখ্য, গতকাল ১৭২ পাতার চার্জশিট পেশ করা হয়। ট্রাঙ্কে ভরে নথি নিয়ে গিয়েছেন ইডি আধিকারিকরা। ইডি সূত্রে খবর, নিয়োগ দুর্নীতিতে ১০৩ কোটি টাকার স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।৪০ টি অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলে ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে। যার দর ৪০.৩৩ কোটি টাকা। মোট ৪৮.২২ কোটি টাকার স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ৩৫ টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট, যাতে টাকার পরিমান ৭ কোটি ৮৯ লক্ষ।বাজেয়াপ্ত করা সম্পত্তির মধ্যে রয়েছে ফ্ল্যাট, বাগানবাড়ি, জমি, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট। জানা গিয়েছে, বাজেয়াপ্ত হওয়া সম্পত্তির মধ্যে অনেকগুলিই রয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নামে। এ ছাড়া শেল কোম্পানির নামেও রয়েছে বেশ কিছু সম্পত্তি।গত ২৭ ও ২৮ জুলাই অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের একাধিক ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালিয়ে মোট ৪৯.৮০ কোটি টাকা ও ৫.০৮ কোটি টাকার সোনা ও গয়না বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla