Uttar Dinajpur: সাত তৃণমূল বিধায়কের ‘প্রতিবাদ’! দলবদলুকে ফেরানো যাবে না, চিঠি গেল অভিষেকের কাছে

Trinamool Congress: শুধু সাত বিধায়কই নন, চিঠিতে সই রয়েছে জেলা তৃণমূল সভাপতিরও।

Uttar Dinajpur: সাত তৃণমূল বিধায়কের 'প্রতিবাদ'! দলবদলুকে ফেরানো যাবে না, চিঠি গেল অভিষেকের কাছে
ভোটের আগে বিজেপিতে যোগ দেন অমল আচার্য। ছবি ফেসবুক।

কলকাতা: দলবদলু নেতাকে কোনওভাবেই আর ফেরানো যাবে না। উত্তর দিনাজপুরের প্রাক্তন জেলা সভাপতি অমল আচার্য (Amal Acharya) তৃণমূলে ফিরতে পারেন, এমন জল্পনা বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে। তারই প্রেক্ষিতে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখলেন দলেরই সাত বিধায়ক। অমল আচার্যকে দলে না ফেরানোর আর্জি জানিয়ে এই চিঠি লিখেছেন তাঁরা। বিধানসভা ভোটের আগে ইটাহারের প্রাক্তন বিধায়ক অমল আচার্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। কিন্তু বিধানসভা ভোটের পর থেকেই শোনা যাচ্ছিল ‘ঘর ওয়াপসি’র জন্য সবরকম চেষ্টা করছেন অমল আচার্য। কিন্তু অমলকে দলে ফেরাতে চান না দলীয় বিধায়কদেরই একটা বড় অংশ।

উল্লেখযোগ্যভাবে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে যে চিঠিটি লেখা হয়েছে, তাতে সই রয়েছে জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়ালেরও। শুধু তাই নয় অল ইন্ডিয়া তৃণমূল কংগ্রেস উত্তর দিনাজপুর ডিস্ট্রিক্ট কমিটির লেটার হেডে এই চিঠি গিয়েছে দলেরই সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের কাছে।

কেন অমল আচার্যকে দলে ফেরাতে নারাজ

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে লেখা চিঠিতে জেলা সভাপতি, বিধায়করা লিখেছেন, অমল আচার্য দলে থাকাকালীন জেলায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব বেড়েছিল। তাঁদের আশঙ্কা অমল আচার্য দলে ফিরলে আগামী লোকসভা ভোটে বালুরঘাট ও রায়গঞ্জ কেন্দ্রে নতুন করে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব শুরু হবে।

দল ছেড়ে বিজেপিতে যান ভোটের আগে

অমল আচার্য তৃণমূল কংগ্রেসের বহু পুরনো নেতা। কিন্তু একুশের নির্বাচনের মতো গুরুত্বপূর্ণ ভোটের আগে দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। যদিও বিজেপি তাঁকে টিকিট দেয়নি। অমল ঘনিষ্ঠদের দাবি, ভোটের পর থেকেই কলকাতার বহু তৃণমূল নেতার সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে শুরু করেন অমল। তৃণমূলে ফেরার জন্যই এই যোগাযোগ।

কী বলছেন অমল আচার্য

অমল আচার্যের বক্তব্য, “আমি ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে বলেছি যে ভুল হয়েছে। আমাকে ক্ষমা করে আমাকে দলে কাজ করার সুযোগ দেওয়া হোক। এখন যে চিঠি দিয়েছে, দল কী করবে দলের সর্বোচ্চ নেত্রী, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ই সিদ্ধান্ত নেবেন। এটা নিয়ে আমার কিছু বলার নেই। আমাদের সর্বোচ্চ নেত্রী যা নির্দেশ দেবেন সেই নির্দেশের অপেক্ষায় রয়েছি।”

বর্তমান জেলা সভাপতির কী বক্তব্য

উত্তর দিনাজপুরের তৃণমূল জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল বলেন, “আমরা তো দলকে জানিয়েছি। দল যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার নেবে। আমরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সী সকলকেই এ বিষয়ে লিখেছি। এখনও কোনও উত্তর আসেনি।”

বিতর্ক নিয়ে মুখ খুলল বিজেপি

এ প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, “এটা তৃণমূলের অভ্যন্তরীন বিষয়। দলের যে মতামতটা কী সেটাই কেউ জানে না। উত্তর দিনাজপুরে একজন আসতে পারেন ধরে নিয়ে তার আগেই অন্যরা বেসুরো গাইতে শুরু করেছেন।”

আরও পড়ুন: Covid Spike: কোভিড মোকাবিলায় ছয় বিশেষজ্ঞের কমিটি গড়ল স্বাস্থ্য ভবন

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla