Jyotiraditya Scindia : ‘তিন বছরে নতুন ২২০টি বিমানবন্দর হবে দেশে,’ সরকারের লক্ষ্য নিয়ে বড় ঘোষণা সিন্ধিয়ার

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: অঙ্কিতা পাল

Updated on: Mar 23, 2022 | 10:57 PM

Jyotiraditya Scindia : ২০২৫ সালের মধ্যে ভারতে ২২০টি নতুন বিমানবন্দর তৈরি হবে। সংসদে দাবি করলেন কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া।

Jyotiraditya Scindia : 'তিন বছরে নতুন ২২০টি বিমানবন্দর হবে দেশে,' সরকারের লক্ষ্য নিয়ে বড় ঘোষণা সিন্ধিয়ার
ছবি সৌজন্যে : PTI

নয়া দিল্লি : ২০২৫ সালের মধ্যে ভারতে ২২০টি নতুন বিমানবন্দর তৈরি হবে বলে সংসদে দাবি করলেন কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া (Jyotiraditya Scindia)। ভারতীয় অর্থনীতির জন্য বিমান শিল্পের গুরুত্ব তুলে ধরে সিন্ধিয়া এদিন সংসদে দাবি করেন, কোভিড-১৯ মহামারির সময় ভারত অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক বিমান ভ্রমণের ক্ষেত্রে অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি কেন্দ্রের জন্য নয়া লক্ষ্য স্থির করে তিনি দাবি করেন যে তাঁর মন্ত্রক আগামী তিন বছরে ভারতে দুই শতাধিক বিমানবন্দর গড়ে তোলার পরিকল্পনা করছে।

পাশাপাশি এদিন সংসদে সিন্ধিয়া বলেন, “আগামী বছরগুলিতে পচনশীল খাদ্য সামগ্রীর জন্য কার্গো ফ্লাইটের সংখ্যা ৩০ শতাংশ বাড়ানো হবে। এর ফলে ১৩৩টি নতুন ফ্লাইট যোগ হবে।” বিমান পরিবহন মন্ত্রী আরও বলেন, উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে পাইলট লাইসেন্স দেওয়ার প্রক্রিয়া আরও সহজ করার পদক্ষেপ করা হবে। তিনি যোগ করেন যে সরকার ৩৩টি নতুন অভ্যন্তরীণ কার্গো টার্মিনাল তৈরি করতে, পাইলটদের জন্য ১৫টি নতুন ফ্লাইট প্রশিক্ষণ স্কুল স্থাপন করতে, আরও চাকরি তৈরি করতে এবং ড্রোন খাতে ফোকাস বাড়াতে চায়।

দেশে মহিলা পাইলটদের উচ্চ অনুপাতের প্রশংসা করে তিনি বলেন, “গত ২০-২৫ বছরে বিমান শিল্পে অনেক পরিবর্তন হয়েছে দেশে। অন্য সব দেশে, মাত্র পাঁচ শতাংশ পাইলট মহিলা। ভারতে, ১৫ শতাংশেরও বেশি পাইলট মহিলা। এটি মহিলাদের ক্ষমতায়নের আরও একটি উদাহরণ।” সিন্ধিয়া এদিন আরও বলেছেন, “আগে শুধু বড় শহরেই বিমানবন্দর ছিল। আজ সেটা সম্পূর্ণ বদলে গিয়েছে। এই কারণেই সিভিল অ্যাভিয়েশন শিল্প ভারতের অর্থনীতির একটি মূল উপাদান হয়ে উঠেছে। এই শিল্পে কর্মসংস্থানের পরিমাণ ব্যাপক। এর ফলে সরকার ২০২৫ সালের মধ্যে ২২০টি নতুন বিমানবন্দর তৈরির লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে।”

সিন্ধিয়া এদিন জানিয়েছেন, গত সাত দিনে গড়ে প্রতিদিন ৩.৮২ লক্ষ যাত্রী বিমানে ভ্রমণ করেছেন। মন্ত্রী সংসদকে জানিয়েছেন যে ২০১৮-১৯ সালে ভারতের যাত্রী ক্ষমতা ছিল ৩৪.৫ মিলিয়ন। সিন্ধিয়ার দাবি, মন্ত্রক ২০২৩-২৪ সালে যাত্রী ধারণ ক্ষমতা ৪০ মিলিয়ন করতে চায়। পাশাপাশি এদিন তিনি অপারেশন গঙ্গায় ভারতীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ খাতের ভূমিকার কথা তুলে ধরেন। সিন্ধিয়া সংসদে এদিন জানান যে পাঁচটি দেশে থেকে ৯০টি ফ্লাইট ইউক্রেনে থাকা ভারতীয় শিক্ষার্থীদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে এনেছে। উল্লেখ্য, অপারেশন গঙ্গার তদারকি করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নির্দেশে সিন্ধিয়া নিজে ইউরোপে গিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন : Bogtai Massacre : রামপুরহাট হত্যাকান্ডে রাষ্ট্রপতিকে চিঠি অধীরের, ৩৫৫ নং ধারা লাগুর দাবি

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla