Tokyo Olympics 2020: খেলো মনে খেলো, পদক জেতো, টোকিওয় টোটকা মনপ্রীতের

বিশ্ব হকিতে সম্প্রতি ভালো ছাপ রাখতে পেরেছে ভারতীয় হকি টিম। অলিম্পিকে যদি নিজেদের সেরাটা দিতে পারেন, তা হলে পদকের স্বপ্ন দেখা যেতেই পারে।

Tokyo Olympics 2020: খেলো মনে খেলো, পদক জেতো, টোকিওয় টোটকা মনপ্রীতের
Tokyo Olympics 2020: খেলো মনে খেলো, পদক জেতো, টোকিওয় টোটকা মনপ্রীতের (সৌজন্যে-মনপ্রীত সিং টুইটার)

নয়াদিল্লি: সিনিয়র, জুনিয়রে কোনও ফারাক নেই। বরং একটা ভারসাম্য তৈরি করার চেষ্টা করা হয়েছে ভারতীয় হকি টিমে (Indian Hockey Team)। আর এটাই মনপ্রীত সিংয়ের (Manpreet Singh) টিমকে ৪১ বছর পর অলিম্পিক (Olympics) থেকে পদকের স্বপ্ন দেখাচ্ছে।

‘হকি তে চর্চা’ নামের এক পডকাস্টে ভারতীয় হকি টিমের ক্যাপ্টেন মনপ্রীত বলেছেন, ‘যখন আমি প্রথম ভারতীয় টিমে খেলার সুযোগ পাই, তখন অনেক তারকা প্লেয়ার ছিল। ইগনেস তির্কে, তুষার খন্দকার, শিবেন্দ্র সিং, সর্দার সিং, গুরবাজ সিং, সর্ভানজিৎ সিং, শরণদীপ সিংয়ের মতো প্লেয়াররা খেলত। ওরাই আমাকে নিজের খেলাটা খেলার সহস দিয়েছিল। এমনকি, আমি যখন ভুল করতাম, তখনও পাশে থাকত। ওই পরিবেশটাই তরুণ প্লেয়ার হিসেবে আমাকে তৈরি করেছিল।’

ভারতীয় টিমে অভিষেকের পর থেকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি মনপ্রীতকে। ২০১১ ও ২০১৮ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, ২০১৪ সালের এশিয়ান গেমস, ২০১৫ ও ২০১৭ সালের হকি ওয়ার্ল্ড লিগ— যত খেলেছেন, ততই মেলে ধরেছেন নিজেকে। ২০১৭ সাল থেকে ভারতীয় টিমের ক্যাপ্টেন। পাঁচ বছর দেশের অধিনায়কত্ব করা মনপ্রীত সাফল্যও দিচ্ছেন। ক্রমপর্যায়েও অনেকটা উত্তরণ হয়েছে টিমের।

নিজের ক্যাপ্টেন্সি স্টাইল নিয়ে মনপ্রীত অকপট, ‘যাদের ক্যাপ্টেন্সিতে এর আগে আমি খেলেছি, তাদের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। জাতীয় টিমে একটাই সংস্কৃতি মেনে চলি, সিনিয়রদের সঙ্গে জুনিয়রদের কোনও ফারাক নেই। নিজের খেলাটা খেলার মতো পরিবেশ ধরে রাখা হয়। যাতে কেউ ভয় না পায়। ক্যাপ্টেন হিসেবে আমি অনেক সময়ই শ্রীজেশ, রুপিন্দর, বীরেন্দ লাকরাদের মতো সিনিয়রদের কাছ থেকে পরামর্শ নিই।’

টোকিও গেমসে এই ধারাটাই ধরে রাখতে চান মনপ্রীত। বিশ্ব হকিতে সম্প্রতি ভালো ছাপ রাখতে পেরেছে ভারতীয় হকি টিম। অলিম্পিকে যদি নিজেদের সেরাটা দিতে পারেন, তা হলে পদকের স্বপ্ন দেখা যেতেই পারে।

আরও পড়ুন: Tokyo Olympics 2020: টোকিওয় ট্রেনিংয়ে মগ্ন সিন্ধু-দীপিকারা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla