Tata Nexon EV Max Launched In India: ৪৩৭ কিলোমিটার রেঞ্জের টাটা নিক্সন ইভি ম্যাক্স হাজির, তাক লাগানো ফিচার্স, দাম কত জানেন?

Tata Nexon EV Max Launched In India: ৪৩৭ কিলোমিটার রেঞ্জের টাটা নিক্সন ইভি ম্যাক্স হাজির, তাক লাগানো ফিচার্স, দাম কত জানেন?
টাটা নিক্সন ইভি ম্যাক্স।

Price An Specifications: টাটা নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটি ভারতে লঞ্চ করে গেল। সংস্থাটি দাবি করেছে, ৪৩৭ কিলোমিটার রেঞ্জ দিতে পারবে গাড়িটি।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sayantan Mukherjee

May 11, 2022 | 2:44 PM

টাটা নিক্সন ইলেকট্রিক ভেহিকলের (Electric Vehicle) নতুন একটি মডেল লঞ্চ হল। লেটেস্ট গাড়িটির নাম টাটা নিক্সন ইভি ম্যাক্স (Tata Nexon EV Max)। এই নতুন বিদ্যুচ্চালিত টাটা নিক্সন গাড়িটি ভারতে ১৭.৭৪ লাখ টাকা দামে (এক্স-শোরুম প্রাইস) লঞ্চ করা হয়েছে। গাড়িটির সবথেকে আকর্ষণীয় ফিচার হল তার হাই ভোল্টেজ জ়িপট্রন প্রযুক্তি, যা দুটি মডেলেই উপলব্ধ হয়েছে – নিক্সন ইভি ম্যাক্স এক্সজ়েডপ্লাস এবং নিক্সন ইভি ম্যাক্স এক্সজ়েডপ্লাস লাক্স। নতুন টাটা নিক্সন গাড়িটি একবার চার্জে ৪৩৭ কিলোমিটার (437Km Range) পর্যন্ত দৌড়তে পারবে। মোট তিনটি কালার ভ্যারিয়েন্ট রয়েছে নিক্সন ইভি ম্যাক্স ইলেকট্রিক গাড়িটির। সেগুলি হল, ইনটেন্সি-টিল (নিক্সন ইভি ম্যাক্সের জন্য এক্সক্লুসিভ), ডেটোনা গ্রে এবং প্রিস্টাইন হোয়াইট। প্রতিটি মডেলেই ডুয়াল টোন বডি কালার অফার করা হচ্ছে। এক্কেবারে হাই-এন্ড মডেলের টাটা নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটির দাম ১৯.২৪ লাখ টাকা (এক্স-শোরুম)।

ফিচার্স ও স্পেসিফিকেশনস

নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটিতে রয়েছে ৪০.৫ কেডব্লুএইচ লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি প্যাক, যা ৩৩ শতাংশ উচ্চতর ব্যাটারি ক্যাপাসিটি দিতে পারবে। গাড়িটির এআরএআই সার্টিফায়েড রেঞ্জ ৪৩৭ কিলোমিটার (স্ট্যান্ডার্ড টেস্টিং কন্ডিশনের ক্ষেত্রে)। নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটি ১০৫ কেডব্লু (১৪৩ পিএস) পাওয়ার এবং ২৫০এনএম। ৯ সেকেন্ডের মধ্যেই ০ থেকে ১০০ স্প্রিন্ট টাইম নিতে পারে গাড়িটি।

টাটা নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটি বাজারে লঞ্চ হয়েছে ৩.৩ কেডব্লু চার্জার বা একটি ৭.২ কেডব্লু এসি ফাস্ট চার্জারের সাহায্যে। ৭.২ কেডব্লু এসি ফাস্ট চার্জারটি বাড়িতে বা কর্মক্ষেত্রে ইনস্টল করা যেতে পারে। এই ফাস্ট চার্জারটি আপনি ব্যবহার করলে মাত্র আপনার চার্জিং টাইম আরও ৬.৫ ঘণ্টা কমে যেতে পারে। নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটি ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে, যার দ্বারা ০ থেকে ৮০ শতাংশ চার্জ হয়ে যেতে পারে মাত্র ৫৬ মিনিটের মধ্যেই। কোম্পানিটি জানিয়েছে, যে কোনও ৫০ কিলোওয়াট ডিসি ফাস্ট চার্জারের মাধ্যমে এই ভাবেই দ্রুততার সঙ্গে চার্জিং সম্ভব।

নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটিতে রয়েছে তিনটি ড্রাইভিং মোড – ইকো, সিটি এবং স্পোর্ট। আপগ্রেডেড জ়েডকানেক্ট ২.০ কানেক্টেড কার টেকনোলজি থাকার ফলে গাড়িটি আরও আটটি নতুন ফিচার্স পেয়েছে। জ়েডকানেক্ট অ্যাপটি মোট ৪৮টি কানেক্টেড কার ফিচার্স অফার করে। ডিপার ড্রাইভ অ্যানালিটিক্স ডায়াগনস্টিক অর্জনে সাহায্য করবে এই ফিচারটি। অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্যের তালিকায় গাড়িটিতে রয়েছে, স্মার্টওয়াচ ইন্টিগ্রেশন, অটো/ম্যানুয়াল ডিটিসি চেক, চার্জিংয়ের জন্য লিমিট সেটিং, মাসিক ভেহিকল রিপোর্ট এবং এনহ্যান্সড ড্রাইভ অ্যানালিটিক্স।

এই নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটির মাধ্যমে টাটা মোটরস মাল্টি-মোড রেগেন ফিচারের সঙ্গে প্রথম বার ভারতবাসীর পরিচয় করাতে চলেছে। এর সাহায্যে কাস্টমাররা খুব সহজেই রিজেনারেটিভ ব্রেকিং লেভেল অ্যাডজাস্ট করতে পারবেন, যা ফ্লোর কনসোল সুইচিংয়ের মাধ্যমেই সম্ভবপর হবে। কাস্টমাররা ড্রাইভিং কন্ডিশনের উপরে ভিত্তি করে চারটি রেগেন লেভেল বেছে নিতে পারবেন – লেভেল ০ ও তার সঙ্গে নিল রেকুপারেটিভ ব্রেকিং এবং সর্বাধিক লেভেল ৩ এইডিং সিঙ্গেল প্যাডেল ড্রাইভিং।

এই খবরটিও পড়ুন

নিক্সন ম্যাক্স গাড়িটিতে ইএসপি ও তার সঙ্গে ইন্টেলিজেন্ট ভ্যাকিউম বুস্ট এবং অ্যাক্টিভ কন্ট্রোল, হিল হোল্ড, হিল ডিসেন্ট কন্ট্রোল, ইলেকট্রনিক পার্কিং ব্রেক ও তার সঙ্গে অটো ভেহিকল হোল্ড-সহ একাধিক সেফটি ফিচার্স রয়েছে। নিক্সন ইভি ম্যাক্স গাড়িটির ব্যাটারি ও মোটর প্যাক আইপি৬৭ রেটিং পেয়েছে ওয়েদার-প্রুফ পারফরম্যান্সের জন্য। নিক্সন ইভি ম্যাক্সের মোটর ওয়ারান্টি ৮ বছর বা ১৬০,০০০ কিলোমিটার।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA