Sunil Soren joins TMC: অনুব্রতর হাত থেকে পতাকা তুলে ‘ঘাসফুলে’ যোগদান বিজেপি ঘনিষ্ঠ আদিবাসী নেতার!

Birbhum: পঞ্চায়েত ভোটের আগে তৃণমূলে তাঁর যোগদান ঘাসফুলকে অনেকটাই এগিয়ে রাখছে বলে মনে করা হচ্ছে।

Sunil Soren joins TMC: অনুব্রতর হাত থেকে পতাকা তুলে 'ঘাসফুলে' যোগদান বিজেপি ঘনিষ্ঠ আদিবাসী নেতার!
অনুব্রত মণ্ডল ও সুনীল সোরেন

বীরভূম: দলবদলের ছবিটা সেই এক। বিধানসভা ভোটের আগে যেভাবে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছিল একই রকম ভাবে পঞ্চায়েত ভোটের আগে সেই ছবি ফুটে উঠছে। এবার বিজেপি ছেড়ে একের পর এক নেতা তৃণমূলে যোগদান করছেন। দলবদল করলেন বিজেপি ঘনিষ্ঠ আদিবাসী নেতা সুনীল সোরেন (Sunil Soren)।গতকাল তিনি যোগ দিলেন তৃণমূলে(TMC)।

বীরভূমে (Birbhum)সিউড়ি তৃণমূল কার্যালয়ে অনুব্রত মণ্ডলের (Anubrata Mondal)এর হাত থেকে তৃণমূলের পতাকা তুলে নিলেন তিনি। একদিকে যখন দেউচা পাচামি(Deucha Pachami) কয়লাখনি নিয়ে রাজ্য সরকার প্যাকেজ ঘোষণা করল ঠিক সেই সময় বিজেপি ঘনিষ্ঠ আদিবাসী এই নেতার ঘাসফুল শিবিরে যোগদান অনেকটাই তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছ।

যদিও এর পরিপ্রেক্ষিতে অনুব্রত মণ্ডল দেউচা পাচামি(Deucha Pachami) কয়লা খনির প্রসঙ্গ না টেনে রাজ্য সরকারের প্যাকেজেরই ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। তার দাবি, এমন প্যাকেজ আর কেউ দেবে না।

অন্যদিকে সুনিল সরেন জানিয়েছেন, “আমরা বারংবার দেউচা পাচামি কয়লা খনি নিয়ে রাজ্য সরকারের কাছে দাবি করেছিলাম যাতে লিখিত আকারে প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়। সেইমতো রাজ্য সরকার গত শুক্রবার লিখিত আকারে প্যাকেজ আমাদের হাতে তুলে দিয়েছেন। তবে এই নিয়ে আগামী দিনে সকলের সঙ্গে আলোচনা করেই আমাদের সিদ্ধান্ত জানাব।”

প্রসঙ্গত, বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম কয়লা খনির সন্ধান পাওয়ার সুবাদে বীরভূমের দেউচা পাচামি কোল ব্লক এলাকার নাম এখন অনেকেরই জানা। বীরভূমের দেউচা পাচামি কয়লা খনির কাজ শুরুর বিষয়ে সবুজ সংকেত দিয়েছে কেন্দ্র। প্রায় ১২ হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে অবস্থিত দেউচা পাচামি কোল ব্লক এলাকা। প্রাথমিক সমীক্ষা অনুযায়ী প্রায় ৩হাজার ১০টি পরিবার এই খনি অঞ্চলে বসবাস করেন যার মধ্যে ১০১৩টি আদিবাসী পরিবার। ৩০৭ একর জমি বনভূমি রয়েছে এখানে। এদিন মুখ্যমন্ত্রী এই প্রকল্প এগিয়ে নিয়ে যেতে প্যাকেজের ঘোষণা করেছেন।

বলা হয়েছে, প্রায় ১৭ জন খাদান মালিক বাড়ির দাম ও ক্ষতিপূরণ পাবেন। ত্রাণ ও পুনর্বাসন প্যাকেজের অধীনে বাড়ি দেওয়া হবে সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দাদের। ওই এলাকায় থাকা বাসিন্দা, যাঁদের বাড়ি সহ জমি রয়েছে, তাঁরা পাবেন ১০ থেকে ১৩ লক্ষ টাকা। এছাড়া অন্যান্য সুবিধা দিতে আরও পাঁচ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে। এছাড়া বাড়ি বা জমি হারানো অথবা বর্গদাররা পরিবার পিছু জুনিয়র পুলিশ কনস্টেবল পদমর্যাদার চাকরি পাবেন। সব মিলিয়ে এই ত্রাণ পুনর্বাসন প্যাকেজের মোট আর্থিক মূল্য ১০ হাজার কোটি টাকা।

যদিও এদিন বিধানসভায় এই প্রকল্প ঘোষণার পর খুশি নন সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দারা। মুখ্যমন্ত্রীর প্যাকেজ ঘোষণার পর খুশি নন আদিবাসীরা। আবার গ্রাম ছাড়তেই নারাজ আদিবাসী পরিবারগুলি। তাই প্যাকেজ ঘোষণার পরই প্রাথমিক সংশয়ে দেউচা পাচামি কয়লা প্রকল্প ।

আরও পড়ুন: Weather Update: কুয়াশায় ঢেকেছে শহর, ফের নামতে শুরু করছে পারদ! কবে থেকে জাঁকিয়ে শীত বঙ্গে?

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla