Hooghly:কালো ধোঁয়ায় ঢেকেছে এলাকা, সঙ্গে প্রকট গন্ধ, তারকেশ্বরে অসুস্থ হচ্ছে একের পর এক শিশু

Hooghly: মূলত, ধান কাটার পর তার গোড়াগুলিকে উপড়ে ফেলা হয়ে থাকে। তবে বিগত ৬ থেকে ৭ বছর ধরে হুগলি জেলার বিস্তর্ণ অঞ্চলের একাংশ কৃষক ওই গোড়াগুলি উপড়ে না ফেলে তা জমিতেই পুড়িয়ে দিচ্ছেন।

Hooghly:কালো ধোঁয়ায় ঢেকেছে এলাকা, সঙ্গে প্রকট গন্ধ, তারকেশ্বরে অসুস্থ হচ্ছে একের পর এক শিশু
হুগলির আবর্জনার স্তূপে আগুন
TV9 Bangla Digital

| Edited By: শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

Nov 23, 2022 | 1:46 PM

হুগলি: আবর্জনার স্তূপে আগুন, কালো ধোঁয়ায় অন্ধকার চতুর্দিক। তাতে অসুস্থ এলাকার একাধিক বাসিন্দা। বাদ যাচ্ছে না শিশুরাও। ইতি মধ্যেই তিন জন শিশু চিকিৎসাধীন হাসপাতালে। তারকেশ্বর পৌর সভার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের। দু’তিন দিন আগে থেকে ডাম্পিং গ্রাউন্ডের এই আবর্জনার স্তূপে আগুন দেখা যায়। ধীরে ধীরে সেই আগুন বাড়তে থাকে। গোটা এলাকা কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায়।

এর ফলে অনেকেরই শ্বাসকষ্ট হতে শুরু করেছে। বেশ কয়েক জনকে তারকেশ্বর গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। মঙ্গলবার রাতে আগুনের তীব্রতা দেখা যায়। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় তারকেশ্বর থানার পুলিশ ও দমকল। দমকলের একটি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালায়।

বুধবার সকালেও ঘটনাস্থলে দমকলের একটি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে এই জনবসতিপূর্ণ এলাকায় ডাম্পিং গ্রাউন্ড চিহ্নিত করে পুরসভার সমস্ত আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। পুরভোটের আগে এই ডাম্পিং গ্রাউন্ড সরিয়ে ফেলার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হলেও বাস্তবে সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করা হয়নি। এর আগেও এই বিশালাকার আবর্জনার স্তূপে দুর্ঘটনার কারণে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, “এত ধোঁয়া, এত কাশী হচ্ছে। পৌরসভাকে জানানো হয়েছে। কিন্তু তারা কোনও কথা শুনছে না। ভ্যাটটা এখান থেকে সরিয়ে নিলে খুব ভাল হয়। এই পাড়াটার মানুষের মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে।”

এই ডাম্পিং গ্রাউন্ডের কারণে পৌরসভার ১২ ও ১৩ নং ওয়ার্ডের মানুষ দুর্ভোগের শিকার। ডাম্পিং গ্রাউন্ড সরিয়ে ফেলার জন্য পৌরসভায় বার বার জানানো হলেও কোনও ব্যবস্থা নেয়নি পৌরসভা অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান পৌর চেয়ারম্যান উত্তম কুণ্ডু।

তিনিও এলাকার মানুষের অসুবিধার কথা স্বীকার করে বলেন, “এটা দীর্ঘ দিনের সমস্যা। সংশ্লিষ্ট দফতরকে জানানো হয়েছে এবং অন্যত্র জমি দেখার কাজ চলছে,জমি পাওয়া গেলেই এই জনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে ডাম্পিং গ্রাউন্ডটি সরিয়ে ফেলা হবে।”

দমকলের এক কর্তা বলেন, “অনেক সময় দেখা যায় আবর্জনার মধ্যে প্রচুর পরিমাণ প্লাস্টিক থাকে। অনেক সময়ে কাবারিওয়ালারা আগুন লাগিয়ে কিছু জিনিস পোড়ান, অনেক সময়ে এমনিতেও আগুন লেগে যায়। আগুন লাগার কারণ নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। তবে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে।”

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla