Money Recovered: ফের লাখ লাখ টাকা উদ্ধার! হাওড়া স্টেশন থেকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল ব্যাগভর্তি টাকা?

Howrah: বাজেয়াপ্ত করা হয় উদ্ধার হওয়া ওই বিশাল অঙ্কের টাকা। খবর পাঠানো হয় আয়কর দফতরে। ৩৫ লাখ টাকা আয়কর দফতরের হাতে তুলে দেন আরপিএফ কর্মীরা।

Money Recovered: ফের লাখ লাখ টাকা উদ্ধার! হাওড়া স্টেশন থেকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল ব্যাগভর্তি টাকা?
উদ্ধার হয়েছে বিশাল অঙ্কের টাকা
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Soumya Saha

Aug 03, 2022 | 8:28 PM

হাওড়া : ফের বিশাল অঙ্কের টাকা উদ্ধার। এবার হাওড়া স্টেশনে। লাখ লাখ নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে বুধবার দুপুরে। হাওড়া স্টেশন চত্বরে কর্তব্যরত আরপিএফ জওয়ানরা এক প্রৌঢ়কে আটক করেছে। আটক হওয়া বছর বাহান্নর ওই প্রৌঢ়ের নাম রাজকুমার সোনি। প্রৌঢ়ের সঙ্গে একটি ব্যাগ ছিল। ওই ব্যাগ থেকে উদ্ধার হয়েছে নগদ ৩৫ লাখ টাকা। কী কারণে ওই প্রৌঢ় এই বিশাল অঙ্কের নগদ টাকা নিয়ে আসছিল, তার কোনও সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারেনি। এরপরই ওই রাজকুমার সোনিকে আটক করে আরপিএফ। বাজেয়াপ্ত করা হয় উদ্ধার হওয়া ওই বিশাল অঙ্কের টাকা। খবর পাঠানো হয় আয়কর দফতরে। ৩৫ লাখ টাকা আয়কর দফতরের হাতে তুলে দেন আরপিএফ কর্মীরা।

জানা গিয়েছে, আরপিএফ কর্মীদের কাছে আগে থেকেই গোপন সূত্র মারফত খবর ছিল। সেই মতো আগেভাগে সতর্ক ছিলেন তাঁরা। বুধবার দুপুরে চম্বল এক্সপ্রেস এসে থামে হাওড়া স্টেশনের নতুন কমপ্লেক্সে। সেই সময় ট্রেনে আসা যাত্রীদের ভিড়ের মধ্যেই রাজকুমার সোনি নামে ওই প্রৌঢ় স্টেশন চত্বর থেকে বাইরের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। সঙ্গে একটা ব্যাগ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত আরপিএফ কর্মীদের নজর এড়িয়ে বেরোতে পারে না ওই প্রৌঢ়। তাকে থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন আরপিএফ কর্মীরা। প্রশ্নের মুখোমুখি হয়ে চাপের মধ্যে পড়ে যায় সে। জানা গিয়েছে, রাজকুমারের বাড়ি মধ্যপ্রদেশের জব্বলপুরে। জিজ্ঞাসাবাদে সন্তুষ্ট না হওয়ায়, তার ব্যাগে তল্লাশি চালন আরপিএফ জওয়ানরা। আর সেই ব্যাগ খুলতেই চক্ষু চড়কগাছ। মোটা মোটা টাকার বান্ডিল। সব মিলিয়ে নগদ ৩৫ লাখ টাকা উদ্ধার করেন আরপিএফ জওয়ানরা।

এই খবরটিও পড়ুন

ওই বিশাল অঙ্কের টাকা সে কোথা থেকে নিয়ে আসছে? কী উদ্দেশ্যে নিয়ে আসা হচ্ছে? কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে? এর কোনও সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারেনি রাজকুমার। ওই টাকার প্রমাণ হিসেবে কোনও নথিও দেখাতে পারেনি সে। এরপরও রাজকুমার সোনি নামে ওই প্রৌঢ়কে আটক করে আরপিএফ। বাজেয়াপ্ত করা হয় টাকাও। এরপর খবর পাঠানো হয় আয়কর দফতরে। খবর পাওয়ার পর দ্রুত আয়কর দফতরের কর্মীরা পৌঁছে যান হাওড়া স্টেশন চত্বরে। আয়কর দফতরের কর্মীরাও ওই ব্যক্তিকে একপ্রস্থ জিজ্ঞাসাবাদ করেন। বাজেয়াপ্ত হওয়া বিশাল অঙ্কের ওই টাকা আয়কর দফতরের হাতে তুলে দিয়েছে আরপিএফ। এই লাখ লাখ টাকার উৎস কী? হাওয়ালার মাধ্যমে এই টাকা কোথাও পাচার করা হচ্ছিল কি? সেই সব দিকগুলি খতিয়ে দেখছেন আয়কর দফতরের আধিকারিকরা।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla