Jalpaiguri: অক্সিজেনের অভাবে করোনা রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় বিক্ষোভ চরমে, স্বাস্থ্য দফতর অচল করার হুমকি বিজেপির!

Jalpaiguri: অক্সিজেনের অভাবে করোনা রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় বিক্ষোভ চরমে, স্বাস্থ্য দফতর অচল করার হুমকি বিজেপির!
এই সরকারি অ্যাম্বুল্যান্সে মৃত্যু হয় অনির্বাণবাবুর। নিজস্ব চিত্র।

BJP Agitation: অক্সিজেনের অভাবে অ্যাম্বুল্যান্সেই করোনা রোগীর (Corona Patient) মৃত্যুর ঘটনায় আরও তীব্র হল বিক্ষোভ। এবার স্বাস্থ্য দফতর অচল করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিল গেরুয়া শিবির।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: সৈকত দাস

Dec 23, 2021 | 5:29 PM

জলপাইগুড়ি: অক্সিজেনের অভাবে অ্যাম্বুল্যান্সেই করোনা রোগীর (Corona Patient) মৃত্যুর ঘটনায় আরও তীব্র হল বিক্ষোভ। এবার স্বাস্থ্য দফতর অচল করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিল গেরুয়া শিবির। দু দিন আগে অনির্বাণ ব্যানার্জি নামে এক করোনা রোগীর অ্যাম্বুল্যান্সে মৃত্যুর ঘটনায় বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করতে যান বিজেপি নেতারা। কিন্তু দফতরে আধিকারিকরা অনুপস্থিত ছিলেন না বলে অভিযোগ তাঁদের। আর এর পরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন তাঁরা। তাঁদের অভিযোগ, চুপিসাড়ে পালিয়ে গিয়েছেন স্বাস্থ্য কর্তারা।

এদিন অক্সিজেনের অভাবে জলপাইগুড়ির কোভিড রোগীর মৃত্যু নিয়ে স্বাস্থ্য দফতরে স্মারকলিপি দিতে গিয়েছিলেন বিজেপি নেতা কর্মীরা। কিন্তু স্বাস্থ্য কর্তার দেখা পাননি তাঁরা। এর পরেই অফিস চত্বরে বিক্ষোভ দেখিয়ে জেলা স্বাস্থ্য দফতর অচল করার হুমকি দেন বিজেপি যুব মোর্চার কর্মীরা। এদিকে সরকারি অ্যাম্বুল্যান্সে অক্সিজেনের অভাবে জলপাইগুড়ি শহরের সার্ফের মোড় এলাকার অনির্বাণ ব্যানার্জী নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় স্বাস্থ্য দফতরকে কাঠগড়ায় তোলে রোগীর পরিবার।

এবার এই দায় স্বাস্থ্য দপ্তরকে নিতে হবে এই অভিযোগ তুলে বৃহস্পতিবার দুপুরে জলপাইগুড়ি জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের দফতরের স্মারকলিপি দিতে যান বিজেপি যুব মোর্চার কর্মীরা। তবে তাঁরা গিয়ে দেখেন অফিসে কোনও স্বাস্থ্য কর্তা নেই। এর পর তাঁরা সেখানে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন।

বিজেপি যুব মোর্চার জেলা সভাপতি পলেন ঘোষ বলেন, “অনির্বাণ ব্যানার্জীর মৃত্যুর দায় স্বাস্থ্য দফতরকেই নিতে হবে। কারণ সরকারি অ্যাম্বুল্যান্সে অক্সিজেন ফুরিয়ে যায়। আর এই কারণে তাঁর মৃত্যু হয়। আমরা এই বিষয় নিয়ে মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের কাছে ডেপুটেশন দিতে এসেছিলাম। কিন্তু আমরা এসেছি এই খবর পেয়ে উনি দফতর ফেলে পালিয়ে গিয়েছেন। একই সঙ্গে ওঁনার দফতরের অন্যান্য আধিকারিকও পালিয়ে গিয়েছেন। এঁরা এর আগেও আমাদের সঙ্গে একই কাজ করেছে। আমরা আজ সাফ জানিয়ে দিচ্ছি, যদি এই পরিস্থিতি চলতে থাকে তবে আগামীতে এই অফিসে লাগাতার অবস্থান বিক্ষোভ করব। তখন কেউ ঢুকতে পারবে না”।

এই ঘটনায় যোগাযোগ করা হয় জেলার ভারপ্রাপ্ত মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক চিকিৎসক জ্যোতিষ চন্দ্র দাসের সঙ্গে। টেলিফোনে তিনি জানান, “স্মারকলিপি জমা দিতে এলে আগে থেকে নির্দিষ্ট দিন উল্লেখ করে আগাম অনুমতি নিতে হয়। কিন্তু এঁরা তা করেনি। আমাদের অন্যান্য কাজ ছিল। তাই আমরা সেই কাজে বেরিয়ে গিয়েছি। অফিস ফেলে পালিয়ে আসার কোনও কারণ নেই”।

আরও পড়ুন: Crime: ফ্রি ফায়ার গেমে তীব্র আসক্তি, বরের বকুনিতে আত্মঘাতী অষ্টাদশী বউ!

আরও পড়ুন: Corona: কলেজ খুলতেই বিপত্তি! করোনা আক্রান্ত পড়ুয়া, আতঙ্কে ক্লাস ছেড়ে পালালেন সহপাঠীরা

আরও পড়ুন: Child Burned: খেলতে গিয়ে মর্মান্তিক পরিণতি, মামাবাড়িতে আগুনে পুড়ে মৃত্যু ৩ বছরের শিশুর!

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA