Nadia : এক জরায়ুতে দুটি প্রকোষ্ঠে যমজ ভাই-বোন, বিরল প্রসবের সাক্ষী শান্তিপুর হাসপাতাল

Nadia : চিকিৎসকরা বলছেন, এক জরায়ুতে দুটি প্রকোষ্ঠ থাকলেও সন্তান সাধারণত একটি হয়। যমজ সন্তান হওয়ার ঘটনা বিশ্বে বিরল।

Nadia : এক জরায়ুতে দুটি প্রকোষ্ঠে যমজ ভাই-বোন, বিরল প্রসবের সাক্ষী শান্তিপুর হাসপাতাল
প্রতীকী ছবি
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sanjoy Paikar

Jul 06, 2022 | 4:28 PM

নদিয়া : যমজ সন্তানের জন্ম। এমন ঘটনা অনেক ক্ষেত্রেই ঘটে। কিন্তু, একটা জরায়ুতে দুটি প্রকোষ্ঠ। আর তার মাধ্যমে দুই সন্তানের জন্ম দেওয়ার ঘটনা বিশ্বে বিরল। এমনই ঘটল নদিয়ায়। শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে জন্ম হল যমজ ভাইবোনের। চিকিৎসকরা বলছেন, এর আগে বিশ্বে এরকম যমজ সন্তানের জন্মের ঘটনা ১৬টি।

নদিয়ার পলাশীপাড়ার হাসিবুল শেখ ও মামণি বিবি। বেশ কয়েকবছর আগে তাঁদের বিয়ে হয়েছে। দু’বার মামণির গর্ভে সন্তানও এসেছিল। কিন্তু, সন্তান দুটি নষ্ট হয়ে যায়। এরপর বছর চারেক গর্ভবতী হননি মামণি। তখন ওই দম্পতি চিকিৎসক পবিত্র বেপারীর কাছে আসেন। সমস্ত পরীক্ষার পর চিকিৎসক জানান, মামণির একটি জরায়ুতে দুটি প্রকোষ্ঠ রয়েছে। মামণি গর্ভবতী হওয়ার পর দেখা যায়, তাঁর দুটি প্রকোষ্ঠে দুটি সন্তান রয়েছে।

চিকিৎসক পবিত্র বেপারী বলেন, “একটি জরায়ুতে দুটি প্রকোষ্ঠ থাকলেও সাধারণত একটি বাচ্চার জন্ম হয়। দুটি প্রকোষ্ঠে দুটি বাচ্চার জন্মের ঘটনা বিশ্বে খুবই কম রয়েছে। অনেক সময় দুটি প্রকোষ্ঠে দুটি বাচ্চা এলেও তারা বাড়তে পারে না। সেক্ষেত্রে কয়েকমাস পর গর্ভপাত হয়ে যায়। গুগল সার্চ করে দেখলাম বিশ্বে এরকম ঘটনা এর আগে ১৬টি হয়েছে।” ওই পরিবারের আর্থিক অবস্থা তেমন ভাল হয়। বেসরকারি হাসপাতালে যাওয়ার সামর্থ্য নেই। পলাশীপাড়া থেকে ৭৫ কিলোমিটার দূরের শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ দেন ওই চিকিৎসক। তাছাড়া, মামণির চিকিৎসা যেহেতু প্রথম থেকে তিনিই করছেন, প্রসবের দায়িত্ব অন্য কোনও চিকিৎসকের হাতে ছেড়ে দিতে চাননি। তাই, এই ধরনের প্রসবের ক্ষেত্রে পর্যাপ্ত পরিকাঠামো না থাকলেও শান্তিপুর হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন।

চিকিৎসক পবিত্র বেপারীর কথায়, “আমার চিকিৎসক জীবনে এমন ঘটনা দেখিনি। বিশ্বে এমন ঘটনা বিরল হওয়ায় আমরাও সবসময় মামণির স্বাস্থ্যের দিকে নজর রাখছিলাম।” হাসপাতালের সুপারিনটেন্ডেন্ট চিকিৎসক তারক বর্মণের অনুমতি নিয়ে সিজার করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। মেটারনিটি স্টাফ ও ওটি স্টাফদের সহযোগিতায় সুস্থ ভাবে অস্ত্রোপচার সম্ভব হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

Nadia

চিকিৎসক পবিত্র বেপারী

চিকিৎসক জানিয়েছেন, প্রথম সদ্যোজাত মেয়ে। দ্বিতীয় সদ্যোজাত ছেলে। একজনের ওজন ২ কেজি ৩২০ গ্রাম। অন্যজনের বয়স ২ কেজি ২৫০ গ্রাম। দুই সদ্যোজাত ও প্রসূতি ভাল আছেন।

এই খবরটিও পড়ুন

যমজ সন্তানের পিতা হতে পেরে যারপরনাই খুশি মামণি বিবির স্বামী হাসিবুল শেখ। চাষাবাদ করে সংসার চালান। তিনি বলেন, চিকিৎসকরা প্রথম থেকে তাঁদের খুব সহযোগিতা করেছেন। চিকিৎসকদের ধন্যবাদ জানালেন। দুই সন্তানের পিতা হতে পেরে গ্রামের সকলকে মিষ্টি খাওয়াবেন হাসিবুল।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla