Person wrote letter to CM: ‘টাকা না দিলে জমি-বাড়ি সব বিক্রি করে দেব!’ এলাকার তোলাবাজের বিরুদ্ধে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি ব্যক্তির

Nadia: তোলা চাওয়া ওই ব্যক্তি তৃণমূল করে বলে অভিযোগ।

Person wrote letter to CM: 'টাকা না দিলে জমি-বাড়ি সব বিক্রি করে দেব!' এলাকার তোলাবাজের বিরুদ্ধে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি ব্যক্তির
মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন ব্যক্তি

নদিয়া: “টাকা দিন। নগদ দু’লাখ। টাকা না দিলে জমি বিক্রি করে লোক বসিয়ে দেব।” ঠিক এমনই হুমকির শিকার হলেন এক অবসর প্রাপ্ত সরকারি কর্মী। জমি কেনার জন্য তোলার বাজের এই হুমকিতে রীতিমতো ভয়ে শিটিয়ে রয়েছেন ওই ব্যক্তি। যদিও, চুপ করে বসে থাকেনি তিনি। সোজা চিঠি লিখলেন মুখ্যমন্ত্রীকে। পাশাপাশি নালিশ জানালেন পুলিশ কমিশনারকে।

তোলাবাজির ঘটনা নতুন নয়। জমি, বাড়ি কেনা থেকে শুরু করে সব কিছুতেই বারবার অভিযোগ উঠে আসে তোলার টাকার। কখনও-কখনও এই তোলাবাজির ঘটনায় খুন হতে হয়েছে সাধারণ অনেক মানুষকে। কঠোর হয়েছে প্রশাসন। মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং তোলাবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর হয়েছেন। কিন্তু তারপরও থামছে কই। এদের বাড়-বাড়ন্ত ক্রমাগত বেড়েই চলেছে।

নদিয়ার কল্যাণী থানা এলাকার সগুনার ঘটনা। অভিযোগকারী ওই সরকারি আধিকারিকের নাম গণেশ চন্দ্র সরকার। তার অভিযোগ এলাকারই এক যুবক রাজীব দে-র বিরুদ্ধে।

সগুনা এলাকার সুভাষ নগরের দুই কাঠা জমি গণেশবাবু তার ভাইয়ের জন্য কেনেন। গত ২৩ নভেম্বর ওই জমিতে দাঁড় করিয়েই তাকে রাজীব তোলাবাজির দুই লক্ষ টাকা চান। আর সেই টাকা না দিলে রাজীব ওই জমি বিক্রি করে দেবে বলে হুমকি দিতে থাকে।

বিষয়টি নিয়ে তিনি রানাঘাট পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার ও ডাক মারফত মুখ্যমন্ত্রীর নিকট চিঠি লেখেন বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার পর থেকে যথেষ্ট আতঙ্কিত অভিযোগকারীর পরিবার।

এই ঘটনার বিষয়ে গণেশবাবু জানিয়েছেন, “জমির মালিক হল আমার ছোট ভাই। আমি আমার ভাইকে ওই দুকাঠা জমি কিনে দিয়েছিলাম। ভাই সেইরকম কিছু করে না। ও ছয়-সাত হাজার টাকা রোজগার করে। একটি সিকিউরিটির কাজ করে সে। ওর নিজস্ব কোনও বাড়ি-ঘর নেই তাই আমি জমিটা কিনে দিই। গত পরশুদিন আমি আমার স্ত্রীর ব্যাঙ্কের পাসবই আপডেট করতে যাচ্ছিলাম। সেই সময় একটি প্রাথমিক স্কুলের সামনে আমাকে হাত দেখিয়ে আটকায় রাজীব দে নামের ওই ছেলেটি। এরপর সে আমায় হুমকি দিয়ে বলে কালকেই আপনার জায়গা আমরা নিয়ে নেব। আর জায়গা বাঁচাতে চাইলে আমাদের টাকা দিতে হবে। দুলাখ টাকার মতো ওরা আমার কাছ থেকে চায়। রাজীব এলাকায় তৃণমূল কর্মী হিসেবে পরিচিত। আমি ঘটনায় যথেষ্ট আতঙ্কিত। ইতিমধ্যে আমি মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী ও নদিয়া পুলিশ জেলার পুলিশ কমিশনারকে চিঠি লিখেছি। ”

এদিকে, নিজের উপর ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে অভিযুক্ত যুবক রাজীব। সে জানিয়েছে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: Murder News: শ্বশুরবাড়ি ফিরতে চাননি স্ত্রী! ধারোলো অস্ত্র দিয়ে শরীরে একের পর এক কোপ বসালো স্বামী

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla