New Digha: উপকূূলে আসন্ন ‘গুলাব’, নির্দেশ উপেক্ষা করে সমুদ্রস্নান, সলিলেই সমাধিস্থ ২!

Purba Medinipur: তালসারি থানার পুলিশ জানিয়েছে, ওই ৮জন যুবক উত্তর ২৪ পরগনার মধ্যমগ্রাম থেকে এসেছিলেন দিঘায় ঘুরতে। রবিবার সকলেই অল্পবিস্তর মদ্যপান করেছিলেন।

New Digha: উপকূূলে আসন্ন 'গুলাব', নির্দেশ উপেক্ষা করে সমুদ্রস্নান, সলিলেই সমাধিস্থ ২!
দিঘার সমুদ্রে তলিয়ে যাওয়া যুবকের দেহ উদ্ধার

পূর্ব মেদিনীপুর:  রবি-সন্ধ্যায় বঙ্গে আছড়ে পড়বে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ (Cyclone Gulab)। এদিন, সন্ধ্যাবেলা ওড়িশার গোপালপুর ও অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনমের মাঝে কলিঙ্গপত্তনমের কাছে ল্যান্ডফলের কথা  এই ঘূর্ণিঝড়ের। রাজ্যে সরাসরি ‘গুলাব এফেক্ট’ না দেখে গেলেও দুর্যোগে খামতি নেই। সেই পরিস্থিতির কথা চিন্তা করেই  দিঘাই ইতিমধ্য়েই পর্যটকদের ফেরার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। সমুদ্রস্নান-সহ একাধিক ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। কিন্তু সেই নির্দেশ অমান্য করেই নিউ দিঘার (New Digha) তালসারিতে সমুদ্রস্নানে যেতেই তলিয়ে গেলেন দুই যুবক।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, রবিবার নিউ দিঘা (New Digha) পেরিয়ে উদয়পুরে সমুদ্রে স্নান করতে নামে ৮ জনের একটি দল। বারবার বারণ করা সত্ত্বেও তাঁরা কেউ জল থেকে উঠে আসেননি বলে অভিযোগ। আচমকা, জলে ঢেউ বেড়ে যাওয়ায় আর টাল সামলাতে পারেননি ২জন। তাঁরাই  সঙ্গে সঙ্গে তলিয়ে যান। কিন্তু, চেষ্টা করলেও আর জল ছেড়ে ফিরতে পারেননি। সমুদ্রই তাঁদের টেনে নেয়। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীরা। আসে এনডিআরএফের একটি দল। ওই ২ পর্যটকের খোঁজে জলে নামানো হয় পুলিশ বোট। কিন্তু, যুবকদের খোঁজ মেলেনি বলেই জানা গিয়েছে।

তালসারি থানার পুলিশ জানিয়েছে, ওই ৮জন যুবক উত্তর ২৪ পরগনার মধ্যমগ্রাম থেকে এসেছিলেন দিঘায় ঘুরতে। রবিবার সকলেই অল্পবিস্তর মদ্যপান করেছিলেন। তলিয়ে যাওয়া ওই ২ যুবকও মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। ফলে, সামলাতে না পেরে জলেই ডুবে যান। বাকি ৬জন চেষ্টা করেও ফেরাতে পারেননি।

ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’  ছাড়াও সোমবার নাগাদ আরও একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হতে চলেছে পূর্ব মধ্য ও উত্তর পূর্ব বঙ্গোপসাগরে। ক্রমশ শক্তি বাড়িয়ে সেটি বাংলা ও বাংলাদেশের উপকূলে আছড়ে পড়বে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। সেই মোতাবেক, আগেভাগেই দিঘার (Digha) সমস্ত হোটেল খালি করার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। এমনকী, পর্যটকদের দিঘা ত্যাগের নির্দেশ দিয়ে মাইকিং করাও শুরু করেছে প্রশাসন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর,হাওয়া অফিসের আগাম সতর্কতা অনুযায়ী সমুদ্র নগরী থেকে পর্যটকদের ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি, ফের সমস্ত হোটেল খালি করে বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আশঙ্কা, উপকূলের নিচু এলাকা প্লাবিত হতে পারে।  বাড়বে সমুদ্রের জলোচ্ছ্বাস। পরিস্থিতি বুঝেই এই ব্যবস্থা। ইতিমধ্যেই জেলা জুড়ে বিশেষভাবে তৈরি হয়েছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। নজরদারির জন্য সর্বত্র লাগানো হয়েছে সিসিটিভি ও রেইন কন্ট্রোল মেশিন। প্রয়োজনে  নবান্নের কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতেই এই ব্যবস্থা। জেলার ২৫ টি ব্লকে থাকছে কন্ট্রোল রুম। সমস্ত গ্রাম পঞ্চায়েতে থাকছে পর্যবেক্ষণ দফতর যা এই বিষয়ে নজরদারি চালাবে।

রামনগর ১ব্লকের বিডিও বিষ্ণু পদ রায় বলেন, “জেলা প্রশাসনের নির্দেশে যে এলাকাগুলি প্লাবিত হতে পারে, সেগুলি চিহ্নিত করা হয়েছে। ছোট-বড় নৌকা ও ত্রিপল রাখা হয়েছে। জেলার সমস্ত ব্লক ও গ্রাম পঞ্চায়েতকে ঘূর্ণিঝড়ের (Cyclone Gulab) জন্য সবরকমভাবে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। সমস্ত ব্লক-পঞ্চায়েতের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ থাকবে নবান্নের।”

অন্ধ্র উপকূলের দিকে এগোচ্ছে ‘গুলাব’। আজ, রবিবার বিকালেই কলিঙ্গপত্তনামে ল্যান্ডফল। ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টা ৯০ কিলোমিটার। ঘূর্ণিঝড়ের পরই থাকছে নিম্নচাপের ফাঁড়া। বুধবার বাংলা উপকূলের কাছে পৌঁছবে নিম্নচাপ। মঙ্গল ও বুধবার কলকাতায় ভারী বৃ্ষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। মঙ্গলবার ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে ৭ জেলায়। বুধবার ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা ১২ জেলায়। মঙ্গল ও বুধবার কলকাতায় বইবে ঝোড়ো বাতাস। বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার। দুর্যোগ এড়াতে একগুচ্ছ নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব এইচ কে দ্বিবেদী। দক্ষিণবঙ্গের জেলাশাসক, পুলিশ সুুপারদের সঙ্গে বৈঠকে একাধিক নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

 

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla