স্বাস্থ্যকেন্দ্রে জুটল না স্ট্রেচার! প্রসব বেদনা নিয়েই হেঁটে অ্যাম্বুলেন্সে উঠতে গিয়ে মৃত সন্তানের জন্ম দেন প্রসূতি

প্রসবে জটিলতা ধরা পড়ায় তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাতে নির্দেশ দেন ব্লক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ততক্ষণে, শিশুর মাথা বেরিয়ে গিয়েছিল। অথচ ওই অবস্থাতেও জোটেনি একটি স্ট্রেচার।

স্বাস্থ্যকেন্দ্রে জুটল না স্ট্রেচার! প্রসব বেদনা নিয়েই হেঁটে অ্যাম্বুলেন্সে উঠতে গিয়ে মৃত সন্তানের জন্ম দেন প্রসূতি
প্রতীকী চিত্র

শিলিগুড়ি :  প্রসব বেদনা(Labor Pain) নিয়ে ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এসেছিলেন এক প্রসূতি। কিন্তু সঠিক সময়ে তাঁকে সন্তান প্রসব করতে না দিয়ে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে পাঠানোর সুপারিশ করে স্বাস্থ্যকেন্দ্র। এরপর মেডিক্যাল কলেজে যাওয়ার পথে গাড়িতেই মৃত সন্তানের জন্ম দেন ওই প্রসূতি। ফাঁসিদেওয়ার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বিক্ষোভ দেখান প্রসূতির পরিবার।

প্রসূতি শিউলি সাহা বৃহস্পতিবার প্রসব বেদনা(Labor Pain) নিয়ে ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসেন। অভিযোগ, প্রসবে জটিলতা ধরা পড়ায় তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাতে নির্দেশ দেন ব্লক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ততক্ষণে, শিশুর মাথা বেরিয়ে গিয়েছিল। অথচ ওই অবস্থাতেও জোটেনি একটি স্ট্রেচার। এগিয়ে আসেননি স্বাস্থ্যকর্মীরাও। এরপর হেঁটে অ্যাম্বুলেন্সে ওঠেন শিউলি। হাঁটার চাপে শিশুর নাক, কান দিয়ে রক্ত বেরতে শুরু করে। মেডিক্যাল কলেজে যাওয়ার পথে গাড়িতেই মৃত পুত্র সন্তান প্রসব করেন তিনি।

আরও পড়ুন :  দিলীপের সভার আগে ‘বিজেপি’র মাঠ ছয়লাপ মমতার ছবিতে

শিউলির পরিবারের অভিযোগ, সেই সময় কোনো চিকিৎসক ছিল না ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। কর্মীদের গাফিলতিতেই সদ্যোজাতর এভাবে মৃত্যু হয়। আজ সকাল থেকেই প্রসূতির পরিজনেরা ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এসে বিক্ষোভ দেখান। স্থানীয় প্রশাসনেও লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন শিউলির পরিবার।

আরও পড়ুন :  স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দেখেই মুখ ফেরাল একাধিক নার্সিংহোম! বাড়িতেই মৃত্যু বৃদ্ধের

ব্লক মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাক্তার অরুনাভ দাস জানান, ঘটনাটি দুর্ভাগ্যজনক। তবে এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হবে বলেই জানিয়েছেন স্বাস্থ্য আধিকারিক।