বিরল মুহূর্ত! বিজ্ঞানকে হাতিয়ার করে ছবি তৈরির সংজ্ঞাই বদলে দিল রাশিয়া

Russian Movie Shooting in Space, চলতি মাসের শুরুর দিকে, বাইকনুর কসমোড্রোম থেকে 'দ্য চ্যালেঞ্জ' (The Challenge) নামক ছবির বেশ কিছু দৃশ্যের শ্যুটিংয়ের জন্য, ছবির কলাকুশলীরা প্রবীণ মহাকাশচারী আন্তন শাপ্লেভের সঙ্গে মহাকাশে পাড়ি দেন।

বিরল মুহূর্ত! বিজ্ঞানকে হাতিয়ার করে ছবি তৈরির সংজ্ঞাই বদলে দিল রাশিয়া
রাশিয়ার এই সিনেমার গল্প, বাজেট সহ যাবতীয় বিষয়বস্তু গোপন রাখা হয়েছে। ছবি টুইটার

মস্কো:  সমাজ ও সভ্যতার সঙ্গে প্রতিনিয়ত এগিয়ে চলেছে বিজ্ঞান। বিজ্ঞানের অগ্রগতি এখন সকলেরই রোজকার জীবনের সঙ্গী হয়ে উঠেছে। আর বলা বাহুল্য, বিজ্ঞানের এগিয়ে চলায় রাশিয়ার অবদান নানা নতুন নজির স্থাপন করেছে। রাশিয়ানরাই প্রথম স্পুটনিক (Sputnik) নামক স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করে এবং মহাকাশে  একটি প্রাণী হিসেবে লাইকা (Laika) নামের একটি কুকুরকে পাঠায়। রাশিয়ান নাগরিক ইউরি গ্যাগারিন (Yuri Gagarin) ও ভ্যালেন্টিনা তেরেশকোভাকে (Valentina Tereshkova) মহাকাশে পাঠিয়ে বিশ্বের প্রথম ও মহিলা মহাকাশচারীর খেতাবও রাশিয়ার দখলে। এমনকি করোনা অতিমারির দাপটে যখন সারা বিশ্বে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে, তখন ত্রাতা হিসেবে রাশিয়া আবিষ্কার করেছে করোনা টিক স্পুটনিক ভি।

অন্যাথা হয়নি চলচিত্র শিল্পেও। মহাকাশে (Space) সিনেমার শ্যুটিং? যেটা ভাবতেও অবাক লাগে, সেটাই বাস্তবে করে দেখলো রাশিয়া (Russia)। রবিবার, রাশিয়ার এক অভিনেত্রী ও এক চিত্র পরিচালক দীর্ঘ ১২ দিন ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশনে (International Space Station ) কাটিয়ে দেশে ফিরে এলেন। এই ১২ দিন ধরে তাঁরা মহাকাশে সিনেমার শ্যুটিং করেছেন বলেই জানা গিয়েছে।

জানা গিয়েছে অভিনেত্রীর নাম ইউলিয়া পেরেস্লিদ (Yulia Peresild) ও পরিচালকের নাম ক্লিম শিপেনকো (Klim Shipenko)। এদের সঙ্গে যোগ্য সঙ্গত দিয়েছেন মহাকাশচারী ওলেগ নভিৎস্কি (Oleg Novitsky)। তিনি প্রায় ৬ মাসেরও বেশি সময় ধরে মহাকাশে রয়েছেন। রাশিয়ান স্পেস এজেন্সির (Russian space agency) তরফে এই শ্যুটিংয়ের দৃশ্য সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছে।

স্বভাবতই এই অনন্য নজির উচ্ছ্বসিত রাশিয়ান স্পেস এজেন্সি রসকসমস (Roscosmos)। সংস্থার তরফে টুইট করে জানানো হয়েছে ” সোয়ুজ এমএস ১৮ নামক যে যানটি সিনেমা নির্মাতাদের মহাকাশে নিয়ে গিয়েছিল, সেটি সম্পূর্ণ অক্ষত অবস্থায় রয়েছে, এবং কলাকুশলীরা দারুণ অনুভব করছেন।”

চলতি মাসের শুরুর দিকে, বাইকনুর কসমোড্রোম থেকে ‘দ্য চ্যালেঞ্জ’ (The Challenge) নামক ছবির বেশ কিছু দৃশ্যের শ্যুটিংয়ের জন্য, ছবির কলাকুশলীরা প্রবীণ মহাকাশচারী আন্তন শাপ্লেভের সঙ্গে মহাকাশে পাড়ি দেন। রাশিয়ার তরফে যদি এই কার্যকলাপ জারি রাখা হয় তবে শীঘ্রই রাশিয়ার কলাকুশলীরা, বিখ্যাত হলিউড তারকা টম ক্রুজের (Tom Cruise) এবং নাসা (NASA) ও এলন মাস্কের (Elon Musk) যৌথ উদ্যোগে নির্মিত ছবি ‘মিশন ইম্পসিবল ‘ এর রেকর্ডকে অতিক্রম করে যাবে।

রাশিয়ার এই সিনেমার গল্প, বাজেট সহ যাবতীয় বিষয়বস্তু গোপন রাখা হয়েছে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, এক মহাকাশচারীকে বাঁচাতে একজন চিকিৎসককে মহাকাশে পাঠাতে হবে, এই নিয়েই সিনেমার গল্প। ক্রেমলিনের পক্ষের টেলিভিশন চ্যানেল ওয়ান টিভি নেটওয়ার্কের প্রধান এবং “দ্য চ্যালেঞ্জ” ছবির সহ-প্রযোজক কনস্ট্যান্টিন আর্নস্ট সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, ছবির সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তি তাদের অবতরণের দৃশ্য ভিডিয়ো আকারে তুলে রেখেছে, সিনেমাতে সেই দৃশ্যও দেখানো হবে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (USA) এবং চিনের (China) কঠিন প্রতিযোগিতার মুখে রাশিয়া বিশ্বব্যাপী মহাকাশ দৌড়ে ক্রমেই পিছিয়ে পড়ছিল। মহাকাশে সিনেমার শ্যুটিং যে তাদের অনেকটাই এগিয়ে দেবে সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

আরও পড়ুন RG Kar Hospital: নাক-মুখ দিয়ে রক্ত পড়া বৃদ্ধাকেও ফেরাল আরজিকর, কেউ পেল ‘সান্তনা পুরস্কার’ স্যালাইনের বোতল

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla