SAARC Meeting Cancelled: তালিবান বিদেশমন্ত্রীকে ডাকতেই হবে বৈঠকে, ইসলামাবাদের ‘আবদার’ না মানায় বাতিল বৈঠক

Pakistan insists on Taliban participation: সূত্রের খবর, সার্কের বেশিরভাগ সদস্য পাকিস্তানের এই দাবির বিরোধিতা করে। ফলে, কোনও ঐকমত্যে পৌঁছানো সম্ভব হয়নি এবং ২৫ সেপ্টেম্বর সার্কের সদস্য দেশগুলি বিদেশমন্ত্রীদের বৈঠক বাতিল করতে হয়েছে।

SAARC Meeting Cancelled: তালিবান বিদেশমন্ত্রীকে ডাকতেই হবে বৈঠকে, ইসলামাবাদের 'আবদার' না মানায় বাতিল বৈঠক
২৫ সেপ্টেম্বর সার্কের বিদেশমন্ত্রীদের বৈঠক বাতিল (ফাইল ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Soumya Saha

Sep 21, 2021 | 11:26 PM

নয়াদিল্লি : ২৫ সেপ্টেম্বর আয়োজিত হচ্ছে না সার্ক (SAARC) অন্তর্ভুক্ত দেশগুলির বিদেশমন্ত্রীদের বার্ষিক সভা। সংবাদসংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, বিদেশমন্ত্রীদের বার্ষিক সভা বাতিল করা হয়েছে। সূত্রের খবর, সার্কের বিদেশমন্ত্রীদের আসন্ন বৈঠকে আফগানিস্তানের তালিবান সরকারের বিদেশমন্ত্রীকেও যুক্ত করার দাবি তুলেছিল পাকিস্তান। কিন্তু সার্কের বেশিরভাগ সদস্য দেশই পাকিস্তানের এই ‘আবদার’ মেটাতে রাজি নয়। আর সেই কারণেই বাতিল করা হয়েছে বৈঠক।

নিউইয়র্কে রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ সভা ৭৬ তম অধিবেশন চলাকালীনই মাঝে ২৫ সেপ্টেম্বর সার্ক ভুক্ত দেশগুলির বিদেশমন্ত্রীদের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পাকিস্তানের এই তালিবান-প্রীতির জেরে তা বাতিল করে দেওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না বলেই সূত্রের খবর। শুধু তালিবানের বিদেশমন্ত্রীকে বৈঠকে নিয়ে আসাই নয়, আশরাফ ঘানির সরকারের কোনও প্রতিনিধিত্ব যাতে সার্কের বৈঠকে না থাকে, সেই দাবিও রেখেছিল ইসলামাবাদ। সূত্রের খবর, সার্কের বেশিরভাগ সদস্য পাকিস্তানের এই দাবির বিরোধিতা করে। ফলে, কোনও ঐকমত্যে পৌঁছানো সম্ভব হয়নি এবং ২৫ সেপ্টেম্বর সার্কের সদস্য দেশগুলি বিদেশমন্ত্রীদের বৈঠক বাতিল করতে হয়েছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৫ অগস্ট আফগানিস্তানের গণতান্ত্রিকভাবে প্রতিষ্ঠিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যূত করে তালিবান। এরপর মার্কিন সেনা কাবুল ছাড়ার পরপরই নিজেদের অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করে নিয়েছে তারা। গঠন করা হয়েছে মন্ত্রিসভাও। তালিবান সরকারের বিদেশমন্ত্রীর নাম আমির খান মুত্তাকি। তবে এখনও পর্যন্ত বিশ্বের হাতে গোনা কয়েকটি দেশ বাদে কেউই তালিবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি।

সার্কের সবথেকে নতুন সদস্য রাষ্ট্র আফগানিস্তান। এছাড়া অন্যান্য সদস্য দেশগুলির মধ্যে রয়েছে ভারত, বাংলাদেশ, ভুটান, নেপাল, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা এবং পাকিস্তান। ১৯৮৭ সালের ১৭ জানুয়ারি নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে সার্কের সেক্রেটারিয়েট গযন করা হয়।

সার্কের ন’টি পর্যবেক্ষক দেশও রয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে চিন, ইউরোপীয় উইনিয়ন, ইরান, গণপ্রজাতন্ত্রী কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, মরিশাস, মায়ানমার ও আমেরিকা।

তালিবান সরকারের একেবারে শুরুর দিন থেকে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে ইসলামাবাদ। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দাবি আফগানিস্তানে শান্তি ফেরাতে পারে তালিবানই। কিছুদিন আগেই তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছিল, ‘তালিবান যদি সঠিক পথে সরকার গঠন করে, তাহলে ৪০ বছর পর আফগানিস্তানে শান্তি ফিরবে। কিন্তু যদি একটু ভুল হয়ে যায় তাহলেই অনেক বড় সমস্যা তৈরি হবে।’ একদিকে যখন আন্তর্জাতিক মহলে আফগান মহিলাদের স্বাধীনতা রক্ষা নিয়ে সওয়াল উঠছে, তখন ইমরান খান সেই প্রসঙ্গে বলেন, ‘এটা ভাবা ভুল যে বাইরে থেকে কেউ আফগা মহিলাদের অধিকার দেবে। আফগানিস্তানের মহিলারা অতটাও দুর্বল নয়। ওদের সময় দিন। ওরা ঠিক ওদের অধিকার ফিরে পাবে।’

আরও পড়ুন : একটু ‘সময়’ দিলেই নাকি শান্তি ফেরাবে তালিবান! মহিলাদের অধিকার নিয়েও মুখ খুললেন ইমরান

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla