Acidity: অ্যান্টাসিড ছাড়া কীভাবে বদহজমের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করবেন? পরামর্শ বিশিষ্ট চিকিৎসকের

Indigestion: ঘন ঘন গ্যাস-অম্বলের সমস্যা স্বাস্থ্যের পক্ষে একদমই ভাল নয়। আবার কথায় কথায় মুঠো-মুঠো অ্যান্টাসিড খাওয়ার অভ্যাসও কিন্তু ভাল নয়।

Acidity: অ্যান্টাসিড ছাড়া কীভাবে বদহজমের সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করবেন? পরামর্শ বিশিষ্ট চিকিৎসকের
TV9 Bangla Digital

| Edited By: megha

Aug 03, 2022 | 4:46 PM

বাইরে একদিন সামান্য জাঙ্ক ফুড খেলেই বাড়ি এসে অ্যান্টাসিড খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে অনেকের। সামান্য মশলাজাতীয় খাবার খাওয়া মাত্রই চোঁয়া ঢেকুর, বুক জ্বালার সমস্যা দেখা দেয় বহু মানুষের। পেট ফুলে যাওয়া, বদহজম, বমি, পাতলা পায়খানার সমস্যা এড়াতে অম্বলের ওষুধের উপর ভরসা রাখেন অনেকেই। কিন্তু এভাবে ঘন ঘন গ্যাস-অম্বলের সমস্যা স্বাস্থ্যের পক্ষে একদমই ভাল নয়। আবার কথায় কথায় মুঠো-মুঠো অ্যান্টাসিড খাওয়ার অভ্যাসও কিন্তু ভাল নয়। তাহলে এই পরিস্থিতি সামাল দেবেন কীভাবে? এই প্রসঙ্গে TV9 বাংলার তরফে যোগাযোগ করা হয় চিকিৎসক তথা মেডিসিন-বিশেষজ্ঞ শুদ্ধসত্ত্ব চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে।

প্রশ্ন: খাবার খাওয়ার পরই চোঁয়া ঢেকুর, বুক জ্বালার সমস্যা কেন দেখা দেয়?

ঘন ঘন গ্যাস-অম্বলের সমস্যা কেন হচ্ছে, তা আগে জানা দরকার। অনেকক্ষণ পেট খালি থাকলে পেটে অ্যাসিড তৈরি হয়। দীর্ঘক্ষণ কিছু না খাওয়ার পর যখন আপনি খাবার খান, তখন ওই অ্যাসিড আরও খারাপ আকার ধারণ করে। এখান থেকে চোঁয়া ঢেকুর, গলা জ্বালার সমস্যা দেখা দেয়। সুতরাং ভারী খাবার খেলেই যে সবসময় বদহজমের সমস্যা দেখা দেয়, তা কিন্তু নয়। তবে অবশ্যই আপনাকে বেশি ঝাল, মশলা জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।

Doctor shared ways to relieve acid reflux without medication

প্রশ্ন: বদহজমের সমস্যা এড়াবেন কীভাবে?

দীর্ঘক্ষণ পেট খালি রাখলে চলবে না। অল্প-অল্প পরিমাণে বারে-বারে খাবার খেতে হবে। দিনে তিন-চার বার খাবার খাওয়ার বদলে অন্তত আটবার খাবার খেতে হবে। এই খাবারের পরিমাণও অল্প করতে হবে। পাশাপাশি অতিরিক্ত পরিমাণে তেল-ঝাল, মশলা খাবার খাওয়া চলবে না। এই লাইফস্টাইল না মেনে চললেই ঘনঘন বদহজমের সমস্যা দেখা দেবে। যাঁরা দীর্ঘক্ষণ খালি পেটে থাকেন, তাঁদের মধ্যে ঘনঘন চা-কফি খাওয়ার প্রবণতা বেশি দেখা যায়। এই অভ্যাসও বদহজমের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। লাইফস্টাইলে পরিবর্তন আনলেই একমাত্র বদহজমের সমস্যাকে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। সঠিক সময়ে ঘুম থেকে ওঠা, সঠিক সময়ে খাবার খাওয়া খুবই জরুরি। পাশাপাশি নিয়মিত শরীরচর্চা করতে হবে। খাবার খেয়েই শুয়ে পড়ার অভ্যাস ত্যাগ দিতে হবে। খাবার খাওয়ার অন্তত এক ঘণ্টা পর ঘুমোবেন। আর যতটা সম্ভব মানসিক চাপ কমাতে হবে।

প্রশ্ন: খালি পেটে ঘন ঘন চা-কফি পানের অভ্যাস কতটা ক্ষতিকর?

এই খবরটিও পড়ুন

ওজন কমানোর জন্য খালি পেটে ঘন ঘন চা-কফি পানের অভ্যাস রয়েছে অনেকের। এই অভ্যাস মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। এই অভ্যাস পরবর্তী সময়ে গিয়ে পেটে আলসারের সমস্যা তৈরি করতে পারে। এই অভ্যাস গ্যাস্ট্রিক আলসারের ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে। বরং যে খাবারে ক্যালোরির পরিমাণ কম সেই খাবার খেতে পারেন। ফাইবার-সমৃদ্ধ খাবার বেশি করে খান। এই ধরনের খাবারগুলো পেটকে দীর্ঘক্ষণ ভর্তি রাখে। পেট খালি রাখলে ওজন কমে না। বরং পেট খালি থাকলে শরীরে নানা ধরনের রোগের প্রকোপ ঘটে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla