Punjab Health Minister: হঠাৎ হাসপাতালে হাজির স্বাস্থ্যমন্ত্রী, দুরাবস্থা দেখে ভাইস চ্যান্সেলরকেই বললেন বেডে শুয়ে পড়তে, তারপর…

Punjab Health Minister: আগেই অভিযোগ পেয়েছিলেন যে, হাসপাতালের ওয়ার্ড অত্যন্ত নোংরা থাকে, তা সচক্ষে দেখতেই এ দিন হাজির হয়েছিলেন তিনি। রোগীদের শয্যা নোংরা দেখেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী রেগে যান। হাসপাতালের ভাইস চ্যান্সেলর ডঃ রাজ বাহাদুরকে নির্দেশ দেন ওই নোংরা শয্যায় শুয়ে পড়ার।

Punjab Health Minister: হঠাৎ হাসপাতালে হাজির স্বাস্থ্যমন্ত্রী, দুরাবস্থা দেখে ভাইস চ্যান্সেলরকেই বললেন বেডে শুয়ে পড়তে, তারপর...
হাসপাতালের কর্তাকেই রোগীর বেডে শোয়ালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ছবি: টুইটার
TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Jul 30, 2022 | 9:34 AM

চণ্ডীগঢ়: সরকারি হাসপাতালের দুরাবস্থা নিয়ে অভিযোগ ভুরিভুরি। কোথাও চিকিৎসকের আকাল, কোথাও আবার বেডের। সাধারণ মানুষের করের টাকায় কেনা দামি যন্ত্রপাতিও নষ্ট হচ্ছে অবহেলার কারণে। একের পর এক এমনই অভিযোগ জমা পড়েছিল পঞ্জাবের স্বাস্থ্যমন্ত্রী চেতন সিং জৌরমাজরার দফতরে। হাসপাতালের ওয়ার্ড অত্য়ন্ত নোংরা থাকে, এই অভিযোগ কানে আসতেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঠিক করেন তিনি নিজের চোখেই সরকারি হাসপাতালের দুরাবস্থা দেখবেন। যেমন ভাবা, তেমন কাজ। আধিকারিকদের নিয়ে সোজা ঢুকে পড়লেন হাসপাতালের একটি ওয়ার্ডে। রোগীদের শয্যা কতটা নোংরা, তা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিতে, এক আধিকারিককেই শুয়ে পড়তে বললেন রোগীর বেডে।

শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে পঞ্জাবের ফরিদকোটে। সেখানে অবস্থিত বাবা ফরিদ ইউনিভার্সিটি অব হেলথে বিনা নোটিসেই পরিদর্শনে চলে যান স্বাস্থ্যমন্ত্রী চেতন সিং জৈরমাজরা। সাধারণ মানুষের কাছ থেকে তিনি আগেই অভিযোগ পেয়েছিলেন যে, হাসপাতালের ওয়ার্ড অত্যন্ত নোংরা থাকে, তা সচক্ষে দেখতেই এ দিন হাজির হয়েছিলেন তিনি। সঙ্গে সংবাদমাধ্যমও ছিল। রোগীদের শয্যা নোংরা দেখেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী রেগে যান। হাসপাতালের ভাইস চ্যান্সেলর ডঃ রাজ বাহাদুরকে নির্দেশ দেন ওই নোংরা শয্যায় শুয়ে পড়ার। প্রথমে আমতা আমতা করলেও পরে ওই আধিকারিক শুয়ে পড়েন। তিনি উঠতেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী চিকিৎসকদের দিকে ফিরে বলেন, “সবই আপনাদের হাতে রয়েছে।”

মন্ত্রীর পাশেই দাঁড়ানো এক আধিকারিক বিছানায় পাতা গদি তুলে তার জরাজীর্ণ অবস্থা দেখান। এরপরই স্বাস্থ্যমন্ত্রী নির্দেশ দেন তাঁকে যেন স্টোর রুমটিও দেখানো হয়। তিনি হাসপাতালের রোগীদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের যাবতীয় অভিযোগও শোনেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এই ভূমিকাকে অনেকেই সাধুবাদ জানালেও, তীব্র সমালোচনা করেছেন বিরোধীরা। কংগ্রেস নেতা পরগত সিং ওই ভিডিয়ো টুইট করে বলেন, “আম আদমি পার্টি এইধরনের নিম্নমনস্ক কাজকর্ম কখনওই বন্ধ হয় না। আজ বাবা ফরিদ মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলরকে জনসমক্ষে অপমান করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী চেতন সিং জৌরমাজরা, যিনি দ্বাদশ শ্রেণি পাশ। এই ধরনের গুন্ডাগিরি স্বাস্থ্যকর্মীদের মনোবলকেই ভেঙে দেয়।”

উল্লেখ্য, এই প্রথম পঞ্জাবে ক্ষমতায় এসেছে আম আদমি পার্টি। গত মে মাসেই মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিজয় সিংগলাকে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কার করেন দুর্নীতির অভিযোগে। এরপরই দায়িত্ব গ্রহণ করেন চেতন সিং।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla