South Africa Returnee Tested COVID Positive: করোনা আক্রান্ত দক্ষিণ আফ্রিকা ফেরত ব্যক্তি, দেশেও কি ঢুকে পড়ল ওমিক্রন?

South Africa Returnee Tested COVID Positive: মহারাষ্ট্রের থানের বাসিন্দা ওই ব্য়ক্তি গত ২৪ নভেম্বরই দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ভারতে ফেরেন। রবিবার কল্যাণ-ডোম্বিভালি পুরসভার তরফে ওই ব্যক্তির করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসার কথা জানানো হয়।

South Africa Returnee Tested COVID Positive: করোনা আক্রান্ত দক্ষিণ আফ্রিকা ফেরত ব্যক্তি, দেশেও কি ঢুকে পড়ল ওমিক্রন?
দৈনিক সংক্রমণ হু হু করে বাড়ছে রাজ্যে (ফাইল ছবি)

মুম্বই: ভারতেও কী এবার প্রবেশ করল ওমিক্রন ভ্য়ারিয়েন্ট (Omicron Variant)? সম্প্রতিই দক্ষিণ আফ্রিকা (South Africa) থেকে ফেরত এক ব্যক্তির করোনা রিপোর্ট পজেটিভ(COVID Positive) আসায় ছড়িয়েছে এই আতঙ্ক। মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) থানের বাসিন্দা ওই ব্য়ক্তি গত ২৪ নভেম্বরই দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ভারতে ফেরেন। রবিবার কল্যাণ-ডোম্বিভালি পুরসভার তরফে ওই ব্যক্তির করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসার কথা জানানো হয়।

করোনা রিপোর্ট পজেটিভ এলেও ওই ব্যক্তি ওমিক্রন ভ্য়ারিয়েন্টে আক্রান্ত হয়েছেন কিনা, তা এখনও জানা যায়নি। বর্তমানে তাঁকে কেডিএমডির আর্ট গ্যালারি আইসোলেশন সেন্টারে ভর্তি রাখা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। কেডিএমডির মেডিক্যাল অফিসার ডঃ প্রতিভা পানপাটিল বলেন, “আক্রান্ত ব্যক্তি গত ২৪ নভেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউন থেকে মুম্বইয়ে ফেরেন। তিনি থানের ডোম্বিভালির বাসিন্দা। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফেরার পর তিনি কারোর সংস্পর্শে আসেননি বলেই জানান।”

তিনি আরও জানান, ওই ব্যক্তির করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসার পরই স্বাস্থ্য় দফতর সতর্ক হয়েছে। নতুন ভ্যারিয়েন্টের সঙ্গে লড়াই করার জন্য় যথাযথ ব্যবস্থাও নেওয়া হচ্ছে। করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তির জিনোম সিকোয়েন্সিং (Genome Sequencing)-র রিপোর্ট না আসা অবধি নিশ্চিতভাবে বলা যাবে না যে তিনি ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হয়েছেন কিনা।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহেই দক্ষিণ আফ্রিকায় নতুন করোনা ভ্যারিয়েন্টের খোঁজ মেলে। বি.১,১,৫২৯ ভ্যারিয়েন্টটিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে ওমিক্রন নাম দেওয়া হয়। কমপক্ষে ৩০ বার অভিযোজিত এই ভ্য়ারিয়েন্টকে “উদ্বেগের কারণ” হিসাবেও চিহ্নিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ইতিমধ্যেই হংকং, বেলজিয়াম, ইজরায়েল, অস্ট্রেলিয়া সহ একাধিক দেশে নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়তেই সতর্ক হয়েছে কেন্দ্রও। গতকালই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে চিঠি পাঠিয়ে সমস্ত রাজ্য়কে সতর্ক করা হয়েছে। চিঠিতে কড়া নজরদারি ও কন্টেনমেন্ট জ়োন (Containment Zone) তৈরির কথা বলা হয়েছে। একইসঙ্গে টিকাকরণের (COVID Vaccination) হার বাড়ানোরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যেই যে দেশগুলিতে ওমিক্রন ভ্য়ারিয়েন্টের খোঁজ মিলেছে, তাদের “ঝুঁকিপূর্ণ” দেশ হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এই সমস্ত দেশগুলি থেকে আগত যাত্রীদের উপর কড়া নজরদারি রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য়মন্ত্রকের তরফে যে পদক্ষেপগুলি গ্রহণ করতে বলা হয়েছে, সেগুলি হল আন্তর্জাতিক যাত্রীদের উপর কড়া নজরদারি, করোনা পরীক্ষার হার বৃদ্ধি, সংক্রমণের কেন্দ্রস্থল বা হটস্পটগুলির উপর নজরদারি, দ্রুত জিনোম সিকোয়েন্সিংযের জন্য নমুনা পাঠানো ও প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরিকাঠামো প্রস্তুত রাখা।

অন্যদিকে, আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা চালু করার যে চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছিল, তাতে ফের লাগাম পরাতে পারে কেন্দ্র। করোনার নতুন স্ট্রেন ওমিক্রনের হদিশ মিলতেই ফের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ভাবছে কেন্দ্র। শনিবার করোনা পর্যালোচনা বৈঠকেই প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা স্বাভাবিক করার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা প্রয়োজন।

আরও পড়ুন: Curfew imposed in Tripura: ফল প্রকাশ হতেই হামলার শিকার তৃণমূল সমর্থকরা, ১৪৪ ধারা জারি হল খোয়াইয়ে 

Published On - 9:52 am, Mon, 29 November 21

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla