একদা ভারতীয় সেনা ‘জওয়ান’ আজ তালিবানের শীর্ষ নেতা! বৈঠক করলেন ভারতের সঙ্গেই

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: ঋদ্ধীশ দত্ত

Updated on: Aug 31, 2021 | 11:50 PM

এই তালিবানি নেতা নাকি একসময় ভারতীয় সেনাবাহিনীতে প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন। এমনকী, ভারতে একটা দীর্ঘ সময়ও তিনি কাটিয়ে গিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

একদা ভারতীয় সেনা 'জওয়ান' আজ তালিবানের শীর্ষ নেতা! বৈঠক করলেন ভারতের সঙ্গেই
একসময় ভারতীয় সেনায় তিন বছর সময় কাটান অধুনা এই তালিবানি নেতা

নয়া দিল্লি: তালিবানের সঙ্গে কূটনৈতিক স্তরে আলোচনার কথা প্রথমবার জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। মঙ্গলবার কাতারের দোহায় ভারতীয় দূতাবাসে এই বৈঠক হয় বলে খবর। তালিবানের যে শীর্ষ নেতার সঙ্গে ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বৈঠক করেছেন, তাঁর নাম আব্বাস স্তানিকজাই বলে জানানো হয় বিদেশ মন্ত্রক সূত্রে। এবং এই বৈঠক মেটার কয়েক ঘণ্টা পরেই জানা যায়, এই তালিবানি নেতা নাকি একসময় ভারতীয় সেনাবাহিনীতে প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন। এমনকী, ভারতে একটা দীর্ঘ সময়ও তিনি কাটিয়ে গিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

মঙ্গলবার দোহায় ভারতের পক্ষ থেকে তালিবানের সঙ্গে বৈঠক করেন রাষ্ট্রদূত দীপক মিত্তল। বৈঠকে তিনি সেই নাম আব্বাস স্তানিকজাইকের মুখোমুখি হন, যিনি তালিবানের প্রধান ৭ নেতার মধ্যে অন্যতম। আর এই বৈঠকের শেষ হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই স্তানিকজাইকের ইতিহাস নিয়ে কাটাছেঁড়া শুরু হয়। সেখানেই উঠে আসে, আশির দশকে ভারতে বেশ কয়েক বছর থেকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন তিনি।

সালটা ছিল ১৯৭৯, তখন ভারতে প্রথম পা রাখেন অধুনা তালিবানের এই শীর্ষ নেতা। সেই সময় থেকে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত অসমের নগাঁওতে আর্মি ক্যাডার কলেজের জওয়ান, এবং তারপর দেহরাদুনে ভারতীয় মিলিটারি অ্যাকাডেমির অফিসার পদে ছিলেন। তালিবানি শীর্ষ নেতাদের মধ্যে একমাত্র তিনিই খুবই ঝরঝরে ইংরাজি বলতে পারেন। পৃথিবীর বহু দেশ ঘোরা রয়েছে। ১৯৯৬ সাল থেকে যখন আফগানিস্তানে তালিবানি রাজ ছিল, তখন সে দেশের ডেপুটি বিদেশমন্ত্রী ছিলেন তিনি।

অলংকরণ-অভীক দেবনাথ

বড় মাপের আন্তর্জাতিক বৈঠকে অংশ নেওয়া, বা অন্য কোনও দেশে প্রতিনিধি পাঠানোর ক্ষেত্রে এই আব্বাস স্তানিকজাইক তালিবানের প্রথম পছন্দ। ১৯৯৬ সালে তাঁর নেতৃত্বে তালিবানের এক প্রতিনিধি দল আমেরিকা গিয়েছিল। তালিবান সরকারকে যাতে মার্কিন সরকার স্বীকৃতি দেয় সেই দাবি নিয়ে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি বিল ক্লিন্টনের সঙ্গে তিনি দেখা করেন। যদিও সেই বৈঠক ফলপ্রসূ হয়নি। প্রতিনিধি দল নিয়ে তিনি চিনেও সফর করেছিলেন বলে জানা যায়।

অন্যদিকে, মঙ্গলবারের বৈঠকে ভারতের তরফে তালিবানকে একপ্রকার সতর্কবার্তা দিয়ে জানানো হয়েছে, আফগানিস্তানের মাটিতে যেন ভারত-বিরোধী সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ না হয়। সূত্রের খবর, আফাগানিস্তানে থাকা ভারতীয়দের নিরাপত্তা, এবং তাঁদের ফিরিয়ে আনার বিষয়েও আলোচনা হয়েছে এই বৈঠকে। একই সঙ্গে আফগানিস্তানে তালিবান দখল নেওয়ার পর থেকেই যেভাবে জঙ্গিরা নিজেদের পছন্দের জায়গা হিসেবে একে ব্যবহার করা শুরু করেছে, তা নিয়ে নিজেদের আপত্তির কথা জানিয়ে দিয়েছে ভারত।

এর আগে আফগানিস্তানের ব্যবসায়িক মহলের সঙ্গেও একটি বৈঠক করেছিল ভারত। তবে তালিবানের সঙ্গে এর আগে কোনও বৈঠক নয়া দিল্লির পক্ষ থেকে ঘোষিতভাবে করা হয়নি। ফলে এই বৈঠকই দুই দেশের মধ্যে পরিবর্তীত পরিস্থিতিতে প্রথম কূটনৈতিক এবং সরকারি বৈঠক বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে। এতদিন পর্যন্ত ভারতের পক্ষ থেকে ধীরে চলো নীতি আপন করে ‘ওয়েট অ্যান্ড ওয়াচ পন্থা’ ধরে এগোন হচ্ছিল। তবে সোমবার মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের কাজ শেষ হওয়ার পরই প্রথম কোনও পদক্ষেপ করা হল ভারতের পক্ষ থেকে। আরও পড়ুন: প্রথমবার তালিবানের সঙ্গে বৈঠকে ভারত, সন্ত্রাসবাদ নিয়ে কড়া বার্তা আফগান শাসকদের

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla