Suvendu Adhikari : ‘ভোট পরবর্তী হিংসায় অভিযুক্ত ২ নেতাকে মন্ত্রী’, আমন্ত্রণ পেয়েও না যাওয়ার কারণ জানালেন শুভেন্দু

Suvendu Adhikari: প্রসঙ্গত, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পর থেকেই রাজ্য সরকার তথা তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে কার্যত নিয়মিত আক্রমণ করে গিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তবে এদিন আবার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাওয়া নিয়ে এদিন রাজ্যের মুখ্যসচিবকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন তিনি।

Suvendu Adhikari : ‘ভোট পরবর্তী হিংসায় অভিযুক্ত ২ নেতাকে মন্ত্রী', আমন্ত্রণ পেয়েও না যাওয়ার কারণ জানালেন শুভেন্দু
TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

Aug 03, 2022 | 6:17 PM

কলকাতা: নাম ঘোষণা হলেও এখনও হয়নি দফতর বণ্টন। তবে কারা কারা মমতার মন্ত্রিসভায় (Cabinet) নতুন করে ঠাঁঁই পেতে চলেছেন তা ইতিমধ্যেই ঘোষণা করা হয়ে গিয়েছে। পূর্ণমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন প্রদীপ্ত মজুমদার, বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriya), স্নেহাশিস চক্রবর্তী, পার্থ ভৌমিক এবং উদয়ন গুহ। অন্যদিকে স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন বীরবাহা হাঁসদা এবং বিপ্লব রায় চৌধুরী। একইসঙ্গে প্রতিমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পেয়েছেন সত্যজিৎ বর্মণ ও তাজমূল হোসেন। এদিকে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ ছিল রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikari)। কিন্তু, তিনি যাননি। আমন্ত্রণ পেয়েও কেন অংশগ্রহণ করলেন না? তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জোরদার জল্পনা চলছিল। 

প্রসঙ্গত, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পর থেকেই রাজ্য সরকার তথা তৃণমূল কংগ্রেসের (Trinamool Congress) বিরুদ্ধে কার্যত নিয়মিত আক্রমণ করে গিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তবে এদিন আবার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাওয়া নিয়ে এদিন রাজ্যের মুখ্যসচিবকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন শুভেন্দু। তবে একইসঙ্গে নতুন মন্ত্রীদের দায়িত্ব দেওয়া নিয়েও কটাক্ষ করেছেন তিনি। এদিন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে শুভেন্দু বলেন, “আগে তো আমাকে ডাকত না। এখন ডাকা শুরু হয়েছে। মুখ্যসচিব কার্ড দিয়েছিলেন। আমি তাঁকে ধন্যবাদ জানাব।”

এই খবরটিও পড়ুন

এ কথা বলার পরেই নয়া মন্ত্রিসভা নিয়ে বক্রোক্তি করতে দেখা যায় শুভেন্দুকে। রীতিমতো ব্যাঙ্গাত্মক ভঙ্গিতে শুভেন্দু বলেন, “মন্ত্রী কে হবেন তা মুখ্যমন্ত্রী ঠিক করবেন। আমার যেতেও কোনও আপত্তি ছিল না। কিন্তু মন্ত্রিসভার তালিকাটা দেখছিলাম, এমন দুজনকে পূর্ণ মন্ত্রী করা হয়েছে যাঁদের বিরুদ্ধে ভোট পরবর্তী হিংসায় সরাসরি যুক্ত থাকার অভিযোগ রয়েছে। উদয়ন গুহ ও পার্থ ভৌমিক, এই দুজনকে পূর্ণ মন্ত্রী করা হয়েছে। এরা সরাসরি পোস্ট পোল ভায়োলেন্সে অভিযুক্ত। এনএইচআরসি হাইকোর্টে যে সমস্ত রাজনৈতিক গুন্ডাদের বিরুদ্ধে রিপোর্ট দিয়েছিল সেই তালিকায় এদের দুজনের নাম আছে। কিন্তু শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে গিয়ে তো এসব বলা যেত না। হাসিমুখে থাকতে হত। আমি গেলে কোচবিহারের, ও উত্তর ২৪ পরগণার ব্যারাকপুর বেল্ট বিজেপির ভোটদাতারা, বিশেষ করে সনাতনীরা খুব আঘাত পেতেন। তাই যাইনি।” শুভেন্দুর এ বক্তব্য নিয়েই বর্তমানে রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে জোরদার চাপানউতর।  

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla