Detox Water: শরীরে জলের চাহিদা মিটুক অন্য উপায়ে! জানুন ডিটক্স ওয়াটারের গুণাগুণ

সারাদিন ধরে এনার্জে‌টিক থাকতে ঘন ঘন চা-কফি পান করছেন? এর বদলে ডিটক্স ওয়াটার পান করা শুরু করুন। উপকারিতা মিলবে হাজারো।

May 20, 2022 | 8:38 AM
TV9 Bangla Digital

| Edited By: megha

May 20, 2022 | 8:38 AM

আমাদের দিনে ৩ থেকে ৪ লিটার তরল পান করা প্রয়োজন। এর মধ্যে জলের পাশাপাশি তরল ও কঠিন খাবারও রয়েছে। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, এনার্জি জোগাতে মানুষ ঘন ঘন চা-কফি পান করছেন। এই অভ্যাসকে বদলে আপনি ডিটক্স ওয়াটারের ওপর ভরসা রাখতে পারেন।

আমাদের দিনে ৩ থেকে ৪ লিটার তরল পান করা প্রয়োজন। এর মধ্যে জলের পাশাপাশি তরল ও কঠিন খাবারও রয়েছে। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, এনার্জি জোগাতে মানুষ ঘন ঘন চা-কফি পান করছেন। এই অভ্যাসকে বদলে আপনি ডিটক্স ওয়াটারের ওপর ভরসা রাখতে পারেন।

1 / 7
ডিটক্স ওয়াটারে সব ধরনের ফল ব্যবহার করা হয়। এই ফল শরীরের জলের চাহিদাকে পূরণ করে। শরীরকে কোনও ভাবেই ডিহাইড্রেটেড হতে দেয় না। এর পাশাপাশি একাধিক প্রভাব ফেলে সামগ্রিক স্বাস্থ্যের ওপর।

ডিটক্স ওয়াটারে সব ধরনের ফল ব্যবহার করা হয়। এই ফল শরীরের জলের চাহিদাকে পূরণ করে। শরীরকে কোনও ভাবেই ডিহাইড্রেটেড হতে দেয় না। এর পাশাপাশি একাধিক প্রভাব ফেলে সামগ্রিক স্বাস্থ্যের ওপর।

2 / 7
যেহেতু ডিটক্স ওয়াটারে ফলও থাকে তাই এই জল শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও মিনারেলের চাহিদা পূরণ করে। ফলের রস ও ফাইবার সমৃদ্ধ এই জল শরীরের জন্য ভীষণ ভাবে উপকারী।

যেহেতু ডিটক্স ওয়াটারে ফলও থাকে তাই এই জল শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও মিনারেলের চাহিদা পূরণ করে। ফলের রস ও ফাইবার সমৃদ্ধ এই জল শরীরের জন্য ভীষণ ভাবে উপকারী।

3 / 7
সারাদিন শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ঘরে বসে থাকলে ঘাম হয় না। ফলে শরীর থেকে ক্ষতিকারক বা বিষাক্ত পদার্থ দূর করবেন কীভাবে? এখানেও আপনাকে সাহায্য করবে ডিটক্স ওয়াটার। ডিটক্স ওয়াটার পান করলে এটি শরীর থেকে টক্সিন পদার্থ বার করে দিয়ে শরীরকে সুস্থ রাখে।

সারাদিন শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ঘরে বসে থাকলে ঘাম হয় না। ফলে শরীর থেকে ক্ষতিকারক বা বিষাক্ত পদার্থ দূর করবেন কীভাবে? এখানেও আপনাকে সাহায্য করবে ডিটক্স ওয়াটার। ডিটক্স ওয়াটার পান করলে এটি শরীর থেকে টক্সিন পদার্থ বার করে দিয়ে শরীরকে সুস্থ রাখে।

4 / 7
যাঁদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সম্ভাবনা রয়েছে তাঁরাও নিয়মিত ভাবে এই ডিটক্স ওয়াটার খেতে পারেন। এতে মলত্যাগের সমস্যা সহজেই নিরাময় হবে। কারণ এই ডিটক্স ওয়াটার ফাইবার সমৃদ্ধ, যা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও উপকারী।

যাঁদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সম্ভাবনা রয়েছে তাঁরাও নিয়মিত ভাবে এই ডিটক্স ওয়াটার খেতে পারেন। এতে মলত্যাগের সমস্যা সহজেই নিরাময় হবে। কারণ এই ডিটক্স ওয়াটার ফাইবার সমৃদ্ধ, যা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও উপকারী।

5 / 7
ডিটক্স ওয়াটার আমাদের মেটাবলিক রেট বাড়িয়ে দেয়। ফলে খুব সহজেই ক্যালোরি ঝরে। আর ফল, শাকসবজি দেওয়া এই সব ডিটক্স ওয়াটার খেলে শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতাও বাড়ে। এর পাশাপাশি যাঁরা ইউরিন ইনফেকশনে প্রায়শই ভোগেন, তাঁরা যদি এই ডিটক্স ওয়াটার খেতে পারেন, উপকার পাবেন।

ডিটক্স ওয়াটার আমাদের মেটাবলিক রেট বাড়িয়ে দেয়। ফলে খুব সহজেই ক্যালোরি ঝরে। আর ফল, শাকসবজি দেওয়া এই সব ডিটক্স ওয়াটার খেলে শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতাও বাড়ে। এর পাশাপাশি যাঁরা ইউরিন ইনফেকশনে প্রায়শই ভোগেন, তাঁরা যদি এই ডিটক্স ওয়াটার খেতে পারেন, উপকার পাবেন।

6 / 7
ডিটক্স ওয়াটার হল ফ্রুট ইনফিউডস ওয়াটার। একটু বড় মুখওয়ালা কাঁচের জারের মধ্যে ফলের টুকরো দিয়ে জল ভরে রেখে দিন। অন্তত ৫ থেকে ৬ ঘন্টা তা ফ্রিজের মধ্যে রাখুন। এভাবে জল রেখে দুদিন পর্যন্ত খেতে পারেন। ডিটক্স ওয়াটার খেলে যেমন শরীর-মন ভাল থাকে তেমনই শরীরের অতিরিক্ত মেদও ঝরে যায়।

ডিটক্স ওয়াটার হল ফ্রুট ইনফিউডস ওয়াটার। একটু বড় মুখওয়ালা কাঁচের জারের মধ্যে ফলের টুকরো দিয়ে জল ভরে রেখে দিন। অন্তত ৫ থেকে ৬ ঘন্টা তা ফ্রিজের মধ্যে রাখুন। এভাবে জল রেখে দুদিন পর্যন্ত খেতে পারেন। ডিটক্স ওয়াটার খেলে যেমন শরীর-মন ভাল থাকে তেমনই শরীরের অতিরিক্ত মেদও ঝরে যায়।

7 / 7

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA