India vs South Africa: শার্দূলের সপ্তবাণে জর্জরিত প্রোটিয়ারা, জো’বার্গে নজরে রাহানে-পূজারা জুটির লড়াই

টিম ইন্ডিয়াকে জো'বার্গে সিরিজ জয়ের স্বাদ দিতে হলে, রাহানে-পূজারা এই দুই সিনিয়র ক্রিকেটারকে তৃতীয় দিন লড়তে হবে। চতুর্থ দিনের মাথায় ভারতকে যদি জেতাতে হয়, তা হলে স্কোরবোর্ডে একটা এমন রান দিতেই হবে, যাতে সিরিজের ফয়সলার জন্য তৃতীয় ম্যাচ অবধি অপেক্ষা করতে না হয়।

India vs South Africa: শার্দূলের সপ্তবাণে জর্জরিত প্রোটিয়ারা, জো'বার্গে নজরে রাহানে-পূজারা জুটির লড়াই
India vs South Africa: শার্দূলের সপ্তবাণে জর্জরিত প্রোটিয়ারা, জো'বার্গে নজরে রাহানে-পূজারা জুটির লড়াই (ছবি-টুইটার)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sanghamitra Chakraborty

Jan 04, 2022 | 10:00 PM

ভারত – ২০২ (৬৩.১ ওভার) (প্রথম ইনিংস) ৮৫-২ (২০ ওভার) (দ্বিতীয় ইনিংস) দক্ষিণ আফ্রিকা – ২২৯ (৭৯.৪ ওভার) (প্রথম ইনিংস) দঃ আফ্রিকা ৩৫-১ (১৮ ওভার) প্রথম দিনের পর

সঙ্ঘমিত্রা চক্রবর্ত্তী

ওয়ান্ডারার্সের ওয়ান্ডার বয় শার্দূল ঠাকুর‌! দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে তো বটেই, প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সেরা বোলিং করলেন ভারতীয় অলরাউন্ডার। অবিশ্বাস্য বোলিং বিশ্লেষণ তাঁর। ১৭.৫-৩-৬১-৭! প্রথম দিনের শেষ যতটা কোণঠাসা ভারত দ্বিতীয় দিন ঘুরে দাঁড়াল বল হাতে শার্দূলের দুরন্ত পারফরম্যান্সেই। শার্দূল-মুগ্ধতার মধ্যেই এ বার ফোকাসে আরও দুই ভারতীয় ক্রিকেটার। ওয়ান্ডারার্সের দ্বিতীয় ইনিংস চেতেশ্বর পূজারা ও অজিঙ্ক রাহানের কাছে প্রত্যাবর্তনের শেষ সুযোগ। যদি রান না পান, তা হলে তরুণ প্রজন্মের হাতে তুলে দিতে হতে পারে ব্যাটন।

সেঞ্চুরিয়নে দাপুটে জয়ের পর জোহানেসবার্গে মাত্র ২০২ রানে গুটিয়ে যাওয়া। বছর ঘুরতেই এক অন্য ভারতীয় দল দেখা গিয়েছে। তবে দ্বিতীয় টেস্ট যে গতিতে এগোচ্ছে তাতে পুরো পাঁচ দিন খেলা হবে বলে মনে করছে না বিশেষজ্ঞমহল। দ্বিতীয় দিনই ২২৯ রানে দক্ষিণ আফ্রিকাকে গুটিয়ে দিয়ে, দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে টিম ইন্ডিয়া। লোকেশ রাহুল-মায়াঙ্ক আগরওয়ালের ওপেনিং জুটি আজ জো’বার্গে জ্বলে উঠতে পারল না। দুই ওপেনার প্যাভিলিয়নে ফেরার পর, ভারতকে লড়াই করার মতো জায়গায় পৌঁছে দেওয়ার গুরুদায়িত্ব গিয়ে দাঁড়াল দুই সিনিয়র ক্রিকেটারের কাঁধে। দ্বিতীয় দিনের শেষে ক্রিজে রয়েছেন অজিঙ্ক রাহানে (১১) এবং চেতেশ্বর পূজারা (৩৫)। দিনের শেষে ভারতের স্কোর ২ উইকেটে ৮৫। প্রোটিয়াদের থেকে এই মুহূর্তে ৫৮ রানে এগিয়ে রয়েছে ভারত।

টিম ইন্ডিয়াকে জো’বার্গে সিরিজ জয়ের স্বাদ দিতে হলে, রাহানে-পূজারা এই দুই সিনিয়র ক্রিকেটারকে তৃতীয় দিন লড়তে হবে। চতুর্থ দিনের মাথায় ভারতকে যদি জেতাতে হয়, তা হলে স্কোরবোর্ডে একটা এমন রান দিতেই হবে, যাতে সিরিজের ফয়সলার জন্য তৃতীয় ম্যাচ অবধি অপেক্ষা করতে না হয়। রাহানে-পূজারার ব্যাটে দীর্ঘদিন বড় রান নেই। ফলে, দ্বিতীয় ইনিংসেও তাঁরা ব্যর্থ হলে কেপ টাউনে প্রথম একাদশে থাকা বোধহয় আর হবে না তাঁদের। তৃতীয় টেস্টের প্রথম একাদশে থাকতে হলে কমপক্ষে দু’জনকেই জো’বার্গে হাফসেঞ্চুরি করতেই হবে। আর যদি আইসিইউ থেকে যদি বেরোতে হয়, তা হলে নিশ্চিতভাবে দু’জনের ব্যাট থেকে দুটো সেঞ্চুরি দরকার। যেটা কিন্তু কঠিন হলেও, অসম্ভব নয়। ভারতের ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যেই এই দুই সিনিয়র ক্রিকেটারকে নিয়ে প্রশ্ন তোলা শুরু করে দিয়েছেন, যে কেন এই রাহানে-পূজারাকে সুযোগের পর সুযোগ দেওয়া হবে? যখন রিজার্ভ বেঞ্চে প্রতিভাবান ক্রিকেটাররা রয়েছেন। তাদের মতে সময় এসে গিয়েছে, নতুনদের সুযোগ দেওয়ার, তাঁদের পরখ করে নেওয়ার। ফলে তৃতীয় দিন এই জুটিকে এমন একটা করে ইনিংস দেখাতে হবে, যাতে সকল সমালোচনার যোগ্য জবাব দেওয়া যায়।

জোহানেসবার্গের মাঠে ভারতের রেকর্ড কিন্তু যথেষ্ট ভালো। কোনও দিন এই মাঠে টিম ইন্ডিয়া হারেনি। আর এখনও যে জো’বার্গ টেস্টে ভারত টিকে রয়েছে, তার পিছনে সব থেকে বড় অবদান কিন্তু ‘লর্ড’ শার্দূল ঠাকুরের। দ্বিতীয় দিন তিনটে স্পেলে বল করে গেলেন, শার্দূল। আর প্রতিটা স্পেলেই রীতিমতো ধাক্কা দিয়ে গেলেন প্রোটিয়াদের। ক্যাপ্টেন ডিন এলগারের সঙ্গে কেগান পিটারসেন জুটি যখন দক্ষিণ আফ্রিকাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন, ঠিক মোক্ষম সময়ে সেই জুটিকে ভাঙেন শার্দূল। ক্যাপ্টেন এলগারের (২৮) উইকেট নেওয়ার পর ৬২ রানের মাথায় পিটারসেনকে ফেরান শার্দূল। এরপর তেম্বা বাভুমা যখন কাইল ভেরেইনের সঙ্গে জুটি বেঁধে দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন, তখন ফের ভারতের ত্রাতা হয়ে দাঁড়ান শার্দূল। ৫১ রানের মাথায় বাভুমা ফেরেন সাজঘরে। অনবদ্য শার্দূলের পারফরম্যান্স। ৬১ রানের বিনিময়ে ৭ উইকেট নিয়েছেন লর্ড শার্দূল। জো’বার্গ তো বটেই, এই রকম পারফরম্যান্স বিদেশের মাটিতে সাম্প্রতিককালে কিন্তু মনে পড়ছে না। ২০২ রানে প্রথম ইনিংসে আটকে গিয়ে কার্যত একটা চাপে ছিল ভারত। সেই চাপ থেকে জো’বার্গে দ্বিতীয় দিন টিম ইন্ডিয়াকে উদ্ধার করলেন ভারতের ক্রাইসিস ম্যান শার্দূল ঠাকুর। একাই সাবাড় করলেন প্রোটিয়াদের ৭টি উইকেট। টেস্ট কেরিয়ারে এই প্রথম বার ৫ উইকেট নেওয়ার স্বাদ পেলেন লর্ড শার্দূল।

তৃতীয় দিন বিশেষ নজর রাখতেই হবে রাহানে-পূজারা জুটির ওপর। জো’বার্গের পিচ থেকে ফাস্ট বোলাররা কিন্তু সুবিধা পাচ্ছেন। পিচে অতিরিক্ত বাউন্সও রয়েছে। সব মিলিয়ে দ্বিতীয় টেস্টের ফল কী হতে চলেছে তা কিন্তু এখনই বলা যাচ্ছে না।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: ভারত (দ্বিতীয় ইনিংস) ৮৫-২ (চেতেশ্বর পূজারা ৩৫, অজিঙ্ক রাহানে ১১ ; মার্কো জেনসেন ১-১৮, ডুয়ান অলিভিয়ের ১-২২) দক্ষিণ আফ্রিকা ২২৯ (কেগান পিটারসেন-৬২, তেম্বা বাভুমা ৫২ ; শার্দূল ঠাকুর ৭-৬১, মহম্মদ সামি ২-৫২)

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla