জিজ্ঞাসা: কীভাবে করবেন উচ্চ প্রাথমিক নিয়োগের ভেরিফিকেশন? কোনটা বৈধ কোনটা অবৈধ! জেনে নিন

৪ জানুয়ারি থেকে ২০ জানুয়ারি সন্ধেয় ৬ টার মধ্যে সকল প্রার্থীকে নিজেদের নথি কমিশনের ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়ার জন্য কাউকেই সশরীরে উপস্থিত থাকতে হবে না।

জিজ্ঞাসা: কীভাবে করবেন উচ্চ প্রাথমিক নিয়োগের ভেরিফিকেশন? কোনটা বৈধ কোনটা অবৈধ! জেনে নিন
অলঙ্করণ- অভীক দেবনাথ
সুমন মহাপাত্র

|

Jan 04, 2021 | 8:11 PM

কলকাতা: উচ্চ প্রাথমিকে (Upper Primary) শিক্ষক নিয়োগ শুরু করছে স্কুল সার্ভিস কমিশন (SSC)। সোমবার কমিশনের তরফ থেকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানানো হয়েছে, হাইকোর্টের নির্দেশ মেনেই এই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। তবে কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এবার ভেরিফিকেশন বা তথ্য যাচাইয়ের প্রক্রিয়া অনলাইনেই ।

বিজ্ঞপ্তিতে কমিশন জানিয়েছে, গত ১১ ডিসেম্বর হাইকোর্টের পক্ষ থেকে যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, তা মেনেই এই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। ৪ জানুয়ারি থেকে ২০ জানুয়ারি সন্ধেয় ৬ টার মধ্যে সকল প্রার্থীকে নিজেদের নথি কমিশনের ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়ার জন্য কাউকেই সশরীরে উপস্থিত থাকতে হবে না।

ভেরিফিকেশনের পদ্ধতি:

*wbcssc.co.in ওয়েবসাইটে লগ ইন করতে হবে। *সেখানে টেট-এর রোল নম্বর কিংবা অ্যাপলিকেশন আইডি ও ডেট অব বার্থ এবং ক্যাপচা কোড দিতে হবে। *এরপর মোবাইল নম্বরে ওটিপি আসবে। সেই ওটিপি দিতে হবে। *এরপর বিভিন্ন নথি আপলোড করার জায়গা আসবে। সেখানে ছবি-সহ একাধিক শিক্ষাগত সার্টিফিকেট আপলোড করতে হবে।

আরও পড়ুন: জিজ্ঞাসা: চিকিৎসা থেকে ওষুধের খরচ কীভাবে মিলবে ‘স্বাস্থ্য সাথী’ কার্ডে? জানুন

ভেরিফিকেশনের জন্য প্রয়োজনীয় নথি:

* ভোটার কার্ড, আধার কার্ড, প্যান কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্টের মতো যে কোনও সচিত্র পরিচয়পত্র আপলোড করতে হবে। *মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড ও মার্কশিট। *স্নাতকের মার্কশিট। যদি প্রত্যেক বছরের মার্কশিট থেকে থাকে তাহলে প্রত্যেক বছরের মার্কশিটই আপলোড করতে হবে। *প্রশিক্ষণের সব মার্কশিট। *জাতিগত প্রমাণপত্র। *শারীরিক প্রতিবন্ধতকার প্রমাণপত্র। * সাম্প্রতিক স্ট্যাম্প সাইজের রঙিন ছবি।

আরও পড়ুন: জিজ্ঞাসা: ট্রায়াল আগেই অনুমোদন কোভ্যাকসিনকে! জেনে নিন সব ভ্যাকসিনের সর্বশেষ পরিস্থিতি

ভেরিফিকেশনের সময় যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে:

*যদি প্রয়োজনীয় তথ্য আপলোড না করা হয়, তাহলে চাকরীপ্রার্থীকে অনুপস্থিত বলে ধরে নেওয়া হবে। *প্রত্যেকটি নথিই জেপিইজি ফরম্যাটে আপলোড করতে হবে। পিডিএফে আপলোড হবে না। *২৪ জুন ২০১৬ এর পরে কোনও নথিকেই বৈধ বলে ধরা হবে না।

আরও পড়ুন: জিজ্ঞাসা: করোনার ভ্যাকসিন কীভাবে পাবেন? জেনে নিন, রেজিস্ট্রেশন থেকে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla