Malda: নিজের বৌদির সঙ্গে স্বামীর কি না এই সম্পর্ক, জানতে পারার পরই গৃহবধূর মর্মান্তিক পরিণতি

Malda: মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার দৌলতপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বেজপুরা গ্রাম। মৃত গৃহবধূর নাম ফুলমণি খাতুন (৩০)।

Malda: নিজের বৌদির সঙ্গে স্বামীর কি না এই সম্পর্ক, জানতে পারার পরই গৃহবধূর মর্মান্তিক পরিণতি
মালদায় আত্মঘাতী গৃহবধূ
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Aug 02, 2022 | 8:06 PM

মালদা: আগে দু’বার বিয়ে হয়েছিল। তবে টেকেনি। তৃতীয়বারও বিয়ে হয়। তবে স্ত্রীর অভিযোগ তাঁর স্বামীর সঙ্গে বৌদির বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে। আর তার প্রতিবাদ করতেই লাগাতার নির্যাতন স্ত্রীর উপর। অমানবিক অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে শেষে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হলেন মহিলা।

মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার দৌলতপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বেজপুরা গ্রাম। মৃত গৃহবধূর নাম ফুলমণি খাতুন (৩০)। অভিযোগ পেয়ে ফুলমণি খাতুনের স্বামী নুরুদ্দিন ইসলাম এবং তার ননদ নাসো বিবিকে গ্রেফতার করেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। বাকি অভিযুক্তরা পলাতক।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বিগত আট বছর আগে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার মালিপাকোর গ্রামের বাসিন্দা ফুলমণির সঙ্গে পার্শ্ববর্তী গ্রাম বেজপুরা গ্রামের বাসিন্দা নুরুদ্দিনের বিয়ে হয়। জানা যায়, নুরুদ্দিনের এর আগে দু’টি বিয়ে হয়েছিল। আগের দুই স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার পরেই ফুলমনির সঙ্গে তাঁর তৃতীয়বার বিয়ে হয়। এরপর ফুলমণি ও নুরুদ্দিনের এক ছেলে এক মেয়ে হয়। ফুলমণির পরিবারের অভিযোগ বিগত কয়েক মাস ধরেই নুরুদ্দিনের তাঁর বৌদি বেলো বিবির সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে রয়েছেন। এই জন্য প্রায়শই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে গণ্ডগোল লেগে থাকত। ফুলমণি প্রতিবাদ করতে গেলে স্বামী নুরুদ্দিনসহ শ্বশুরবাড়ির লোকেরা মিলে শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন চালাতেন বলে অভিযোগ।

এই খবরটিও পড়ুন

গত কয়েকদিন ধরে সেই অত্যাচারের মাত্রা চরমে পৌঁছয়। অবশেষে ফুলমণি খাতুনকে তাঁর শ্বশুরবাড়িতেই শাড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। খবর দেওয়া হয় হরিশ্চন্দ্রপুর থানায়। পুলিশ এসে দেহটিকে উদ্ধার করে, ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। ফুলমণির মায়ের অভিযোগ শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তাঁর মেয়ে আত্মঘাতী হয়েছে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla