Taliban: একের পর এক মসজিদকেই নিশানা বানাচ্ছে আইসিস-কে! নিরাপত্তা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত তালিবানের

Taliban to Tighten Security: কান্দাহার পুলিশ সূত্রে খবর, এতদিন স্থানীয় বাসিন্দা ও স্বেচ্ছাসেবকরাই শিয়া মসজিদটি্ পাহারা দিচ্ছিল। অস্ত্র রাখার জন্যও তাদের বিশেষ অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। তবে এবার থেকে পুলিশের একটি দলও নিরাপত্তার জন্য মসজিদে মোতায়েন থাকবে।

Taliban: একের পর এক মসজিদকেই নিশানা বানাচ্ছে আইসিস-কে! নিরাপত্তা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত তালিবানের
ফাইল চিত্র।

কাবুল: দেশ সামলানো সহজ কাজ নয়, তা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে তালিবান (Taliban)। একের পর এক হামলায় রক্তাক্ত হচ্ছে তালিব বাহিনী। বিশেষ করে মসজিদগুলিকেই নিশানা বানানো হচ্ছে বলে এবার শিয়া মসজিদে নিরাপত্তা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল তালিবান সরকার। শুক্রবার কান্দাহার(Kandahar)-র শিয়া মসজিদে হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ৪০ জনের মৃত্যুর পরই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার কান্দাহারের ফতিমা মসজিদে নমাজ চলাকালীনই আত্মঘাতী হামলা হয়। এক দল আত্মঘাতী হামলাকারী নমাজ পড়তে আসা বাকিদের মধ্যেই ঢুকে পড়ে বিস্ফোরণ ঘটায়। এক স্বাস্থ্য আধিকারিক সূত্রে জানা গিয়েছে, সেদিনের বিস্ফোরণের ঘটনায় মোট ৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং কমপক্ষে ৭০ জন আহত হয়েছেন। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

জানা গিয়েছে, আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক। তাদের কাবুলে স্থানান্তরিত করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য আধিকারিকরা। বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করে নিয়েছে আইসিস খোরাসান গোষ্ঠী।

এদিকে, একের পর এক মসজিদে হামলার ঘটনার পরই তালিবান সরকারের তরফে পুলিশি নিরাপত্তা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কান্দাহার পুলিশ সূত্রে খবর, এতদিন স্থানীয় বাসিন্দা ও স্বেচ্ছাসেবকরাই শিয়া মসজিদটি্ পাহারা দিচ্ছিল। অস্ত্র রাখার জন্যও তাদের বিশেষ অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। তবে এবার থেকে পুলিশের একটি দলও নিরাপত্তার জন্য মসজিদে মোতায়েন থাকবে।

তালিবান মুখপাত্র টুইট করে বলেন, “দুঃখজনকভাবে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকরা এই এলাকা রক্ষা করতে পারেনি। ভবিষ্যতে নিরাপত্তার কথা ভেবে আমরাই বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করব মসজিদ ও মাদ্রাসাগুলিতে।”

প্রসঙ্গত, আফগানিস্তানের মোট জনসংখ্যার প্রায় ২০ শতাংশ শিয়া সম্প্রদায় মুসলিম। এদের মধ্যে অনেকেই হাজারা নামে একটি গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত। এই জাতিগোষ্ঠী বিগত কয়েক দশক ধরে আফগানিস্তানে ব্যাপকভাবে নির্যাতিত হয়েছে। তালিবান আসার পরও তাদের উপর অত্যাচার চলেছে।

এদিকে, তালিবানকে টক্কর দিতে ক্ষমতা দখলের পর থেকেই ক্রমাগত হামলা চালাচ্ছে আইসিস-কে গোষ্ঠী। শুক্রবার কান্দাহারের ফতিমা মসজিদে হামলা চালানোর আগে গত সপ্তাহে কুন্দুজেও একটি শিয়া মসজিদে হামলা চালানো হয় একই পদ্ধতিতে। সেই  ঘটনায় কমপক্ষে ৮০ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

আরও পড়ুন:  World Bank chief praises India: করোনার টিকাকরণে ভারতের সাফল্যের প্রশংসা বিশ্ব ব্যাংকের 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla