5

Viral Video of Ukraine Woman’s Bravery: রুশ সেনাকে দেখেই দাঁড়িয়ে পড়লেন মাঝপথে, চোখ পাকিয়ে বৃদ্ধার প্রশ্ন ‘এই তোমাদের এখানে কী কাজ?’

Viral Video of Ukraine Woman's Bravery: যেই ওই মহিলা বুঝতে পারেন যে, ওই সেনা রুশ বাহিনীর, সঙ্গে সঙ্গে হেনিচেস্কের ওই বাসিন্দা বলেন, " এখানে তোমার কী কাজ?"। মেশিন গান ও হ্যান্ডগান দেখেও ওই মহিলা একটুও দমে যাননি।

Viral Video of Ukraine Woman's Bravery: রুশ সেনাকে দেখেই দাঁড়িয়ে পড়লেন মাঝপথে, চোখ পাকিয়ে বৃদ্ধার প্রশ্ন 'এই তোমাদের এখানে কী কাজ?'
রুশ সেনাকে হুঁশিয়ারি ইউক্রেনীয় মহিলার। ছবি: টুইটার থেকে।
Follow Us:
| Edited By: | Updated on: Feb 26, 2022 | 1:59 PM

কিয়েভ: পুতিনের সবুজ সংকেত মিলতেই সীমান্ত পার করে ইউক্রেন(Ukraine)-র ভিতরে ঢুকে পড়েছে রাশিয়ান সেনা (Russian Army)। পাল্টা জবাব দিচ্ছে ইউক্রেনের সেনাও। টোকিয়ো থেকে নিউইয়র্ক কিংবা  রাশিয়া, সব জায়গাতেই রাশিয়ান আগ্রাসনের বিরুদ্ধে পথে নেমেছেন সাধারণ মানুষ। এতকিছুর মাঝেও নজর কেড়েছে ইউক্রেনের এক মহিলাই, যিনি রুশ সেনাকে দেখেই প্রশ্ন করেছেন, তারা এখানে কী করছে? ওই মহিলার সাহসিকতাকেই এখন সাধুবাদ দিচ্ছেন নেটাগরিকরা। যেভাবে ওই মহিলা রুশ সেনার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছেন, সেভাবেই ইউক্রেনীয় সেনাও যাতে রাশিয়ার সেনাবাহিনীকে কড়া জবাব দেন, সেই আশাই করছেন বিশ্ববাসী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, এক ইউক্রেনীয় মহিলা রাস্তায় হাঁটতে হাঁটতে বন্দুকধারী এক রুশ সেনাকে দেখতে পেয়েই দাঁড়িয়ে পড়েন। এরপরই তিনি প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন ওই সেনার দিকে, জানতে চান ওই সেনা এখানে কী করছে। ভিডিয়োয় দেখা যায় ওই মহিলা প্রশ্ন করছেন, “তুমি কে?”, জবাবে ওই রুশ সেনা বলছেন, “আমরা এখানে সামরিক অভিযান চালাচ্ছি। দয়া করে অন্য পথ দিয়ে যান”।

যেই ওই মহিলা বুঝতে পারেন যে, ওই সেনা রুশ বাহিনীর, সঙ্গে সঙ্গে হেনিচেস্কের ওই বাসিন্দা বলেন, ” এখানে তোমার কী কাজ?”। মেশিন গান ও হ্যান্ডগান দেখেও ওই মহিলা একটুও দমে যাননি। ওই সেনা যখন তাঁকে শান্ত হতে বলেন, তাও শুনতে অস্বীকার করেন ওই মহিলা। ওই রুশ সেনা বলেন, “আমাদের এই আলোচনায় কোনও সমাধানই হবে না”, তবে ওই মহিলাও ভয় না পেয়েই তিনি বলেন, “তোমরা দখলদারী চালাচ্ছ! এত বন্দুক নিয়ে আমাদের দেশে তোমরা কী করছ? এই বীজগুলি নাও এবং নিজের পকেটে রাখ। তাহলে তোমরা যদি এখানে মারাও যাও, তবে অন্তত কয়েকটা সূর্যমুখী ফুল ফুটবে।”

উল্লেখ্য, সূর্যমুখী ইউক্রেনের জাতীয় ফুল।

ওকুতোভয় ওই মহিলার ভিডিয়ো রেকর্ড করেছিলেন পথচলতি এক ব্যক্তি। তিনিই সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ভিডিয়ো পোস্ট করেন। টুইটারে ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিয়ো দেখে ব্যবহারকারীরা বলেছেন, “কী সাহসী মহিলা! রুশ সেনার বিরুদ্ধে একাই রুখে দাঁড়াচ্ছেন”। আরেকজন বলেছেন, “ওই মহিলাকে দেশের সেনাবাহিনীর সঙ্গে কথা বলতে দেওয়া উচিত। উনি বুঝিয়ে দেবেন যে আমরা কোনওভাবে হার মানতে রাজি নই।”

শুক্রবারই ইউক্রেনের রাজধানাী কিয়েভে ঢুকে পড়েছে। সারারাত একাধিক জায়গায় সংঘর্ষের খবর মিলেছে। সকালে পরিস্থিতি থমথমে থাকলেও, বেলা গড়াতেই ফের দুটি ক্ষেপণাস্ত্র বর্ষণ করেছে রাশিয়া।