COVID Cases in Delhi: টানা দু’দিন কমল রাজধানীর দৈনিক সংক্রমণ, পজিটিভিটি রেট এখনও ৩০ শতাংশ

Coronavirus cases in Delhi: রাজধানীতে টানা দ্বিতীয় দিন কমল করোনার সংক্রমণ। যদিও সংক্রমণের হার এখনও ৩০ শতাংশের উপরে। গত ২৪ ঘণ্টায়, দিল্লিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২০ হাজার ৭১৮ জন।

COVID Cases in Delhi:  টানা দু'দিন কমল রাজধানীর দৈনিক সংক্রমণ, পজিটিভিটি রেট এখনও ৩০ শতাংশ
রেলস্টেশনে চলছে করোনা পরীক্ষা। ছবি:PTI

নয়া দিল্লি: রাজধানীতে টানা দ্বিতীয় দিন কমল করোনার সংক্রমণ (COVID 19 cases in Delhi)। যদিও সংক্রমণের হার এখনও ৩০ শতাংশের উপরে। গত ২৪ ঘণ্টায়, দিল্লিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২০ হাজার ৭১৮ জন। এই নিয়ে রাজধানী এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ১৬ লাখ ৯১ হাজার ৬৮৪। দিল্লি সরকারের সর্বশেষ বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায়, ৩০ জন রোগী করোনায় মারা গিয়েছেন। দিল্লিতে এই নিয়ে মোট করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৫ হাজার ৩৩৫। দিল্লিতে সুস্থও হয়ে উঠতে শুরু করেছেন অনেকে। গত ২৪ ঘণ্টায়, ১৯ হাজার ৫৫৪ জন করোনা মুক্ত হয়েছেন। দিল্লিতে বর্তমানে মোট সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯৩ হাজার ৪০৭ জন। সক্রিয় রোগীদের মধ্যে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ৬৯ হাজার ৫৫৪ জন। এই মুহূর্তে রাজধানীতে করোনা হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা আড়াই হাজারের কিছু বেশি। তাঁদের মধ্যে ৭২৪ জন ভর্তি রয়েছেন আইসিইউতে, ৮৮৭ জন রয়েছেন অক্সিজেন সাপোর্টে এবং ১১৩ জন রয়েছেন ভেন্টিলেটরে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে তৈরি দিল্লি সরকার

জাতীয় রাজধানীতে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বিগত কয়েকদিন আগেও দ্রুত বাড়তে দেখা যাচ্ছিল। তবে তারপরেও শুক্রবার দিল্লিবাসীকে আশ্বস্ত করে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেছিলেন, উদ্বেগের কোনও কারণ নেই। হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুর হার বেশ কম বলে জানিয়েছিলেন তিনি। এর পাশাপাশি দিল্লিবাসীকে দায়িত্বশীল হতেও অনুরোধ করেছেন তিনি। সেই সঙ্গে সকলকে আশ্বস্ত করে জানান, দিল্লি সরকার সমস্ত রকমের প্রস্তুতি নিয়েছে এবং শহরের হাসপাতালগুলিতে পর্যাপ্ত বেড রয়েছে।

লকডাউন নিয়ে কী জানিয়েছেন কেজরিওয়াল

দিল্লিতে লকডাউন করা হবে কি না, তা নিয়েও অনেকের মধ্যে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছিল। সেই সংক্রান্ত বিষয়েও শুক্রবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, “প্রয়োজন হলে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করতে হবে। তবে যদি করোনার সংক্রমণ কমতে শুরু করে তবে আমরা নিষেধাজ্ঞাগুলি শিথিল করব।” তিনি আরও বলেছিলেন, “আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। আমরা সকলেই জানি যে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টটি বেশ সংক্রমণযোগ্য।” মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “হাসপাতালে ভর্তির হার এবং মৃত্যুর সংখ্যা বেশ কম। ফলে মানুষের উদ্বিগ্ন হওয়ার বা আতঙ্কিত হওয়ার দরকার নেই। দিল্লি সরকারের দৃষ্টিকোণ থেকে, সবকিছু ঠিক আছে। হাসপাতালে বেডের অভাব নেই। এছাড়াও রয়েছে প্রচুর আইসিইউ বেড। আমাদের আতঙ্কিত হওয়ার দরকার নেই, তবে আমাদের অবশ্যই দায়িত্বশীলভাবে কাজ করতে হবে। আমরা করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির উপর নজর রাখছি।”

এদিকে গত ২৪ ঘন্টায়, দিল্লিতে ১ লাখ ২৯ হাজার ৫৩৮ জনকে করোনা টিকার ডোজ় দেওয়া হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ৮০ হাজার ৬০৬ জন, যাঁদের টিকার প্রথম ডোজ় দেওয়া হয়েছিল। দ্বিতীয় ডোজ় দেওয়া হয়েছে ৩০ হাজার ৫৩১ জনকে। কিশোর কিশোরীদের মধ্যে ৪৭ হাজার ৯৮২ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন : UP Assembly Election: ‘হাউজ়ফুল’ সপা, পদ্ম মন্ত্রী-বিধায়কদের জন্য দরজা বন্ধ করলেন অখিলেশ

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla