লালকেল্লায় পতাকা উত্তোলনকারীকে শনাক্ত করল দিল্লি পুলিশ, ‘নির্দোষ’ সার্টিফিকেট দিল গ্রামবাসীরা

অভিযুক্ত যুবকের ঠাকুরদা মেহাল সিং বলেন, "কৃষক আন্দোলন ও ট্রাক্টর মিছিলে অংশ নিতেই একদল কৃষকের সঙ্গে দিল্লি গিয়েছিল যুগরাজ। লালকেল্লায় পতাকা উত্তোলনের কোনও পরিকল্পনা ছিল না। আশেপাশের কেউ পতাকা লাগাতে পারছিল না, তাই তাঁকে উঠে পতাকা লাগাতে বলা হয়। যুগরাজ সম্পূর্ণ নির্দোষ।"

লালকেল্লায় পতাকা উত্তোলনকারীকে শনাক্ত করল দিল্লি পুলিশ, 'নির্দোষ' সার্টিফিকেট দিল গ্রামবাসীরা
পতাকা লাগাচ্ছে অভিযুক্ত যুবক।
ঈপ্সা চ্যাটার্জী

|

Jan 28, 2021 | 7:43 PM

নয়া দিল্লি: প্রজাতন্ত্র দিবসে লালকেল্লায় (Rad Fort) ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন ঘিরে তোলপাড় দেশ। এরইমাঝে দিল্লি পুলিশ (Delhi Police) বিভিন্ন ফুটেজ দেখে পতাকা উত্তোলনকারীকে শনাক্ত করতে সক্ষম হল। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত যুবকের নাম যুগরাজ সিং (২৩)। তাঁর বাড়ি পঞ্জাবের অমৃতসরের কাছে অবস্থিত তরণ তারাণ জেলার ভান তারা সিং গ্রামে।

দুদিন আগে প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানের দিনই দিল্লিতে শান্তিপূর্ণভাবে ট্রাক্টর মিছিল করার কথা ছিল। কিন্তু মিছিল বের হতেই আন্দোলনকারীদের একাংশ নির্ধারিত রুট ভেঙে আউটার রিং রোড ধরে লালকেল্লায় পৌঁছয়। সেখানে নিরাপত্তারক্ষী ও পুলিশকর্মীরা বাধা দিলেও জোর করে লালকেল্লায় প্রবেশ করে আন্দোলনকারীরা এবং কেল্লার চূড়োয় নিশান সাহিবের পতাকা (Nishan Sahib flag) উত্তোলন করা হয়। এরপরই দেশজুড়ে শুরু হয় বিতর্ক, জাতীয় পতাকার অপমান করা হয়েছে বলে রব তোলেন একাংশ।

বিনা অনুমতিতে লালকেল্লায় ধর্মীয় পতাকা উত্তোলনের ঘটনায় তদন্তে নামে দিল্লি পুলিশ। বিভিন্ন ফুটেজ খতিয়ে দেখে তাঁরা অভিযুক্ত যুবককে চিহ্নিত করে। তাঁর বিরুদ্ধে জারি করা হয়েছে লুকআউট নোটিশ (Look Out Notice)। যেকোনও সময়ে গ্রেফতার করা হতে পারে তাঁকে।

আরও পড়ুন: গ্রামবাসীদেরও সমর্থন হারাল কৃষকরা, আন্দোলনস্থল খালি করার দাবিতে সরব স্থানীয়রা

এদিকে, অভিযুক্ত যুবকের পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, সম্পূর্ণ নির্দোষ সে। আন্দোলনকারীদের উসকানিতেই যুগরাজ পতাকা লাগাতে উঠেছিল। অভিযুক্ত যুবকের ঠাকুরদা মেহাল সিং বলেন, “কৃষক আন্দোলন ও ট্রাক্টর মিছিলে অংশ নিতেই একদল কৃষকের সঙ্গে দিল্লি গিয়েছিল যুগরাজ। লালকেল্লায় পতাকা উত্তোলনের কোনও পরিকল্পনা ছিল না। আশেপাশের কেউ পতাকা লাগাতে পারছিল না, তাই তাঁকে উঠে পতাকা লাগাতে বলা হয়। যুগরাজ সম্পূর্ণ নির্দোষ।” তিনি জানান, যুগরাজের পতাকা লাগানোর ছবি ভাইরাল হতেই পুলিশ, সংবাদ মাধ্যম, এমনকি গোয়েন্দা বিভাগের আধিকারিকরাও তাঁদের বাড়িতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাজির হয়েছেন।

কেবল পরিবার নয়, ভান তারা সিং গ্রামের বাসিন্দারাও যুগরাজকে নির্দোষ বলেই মনে করেন। তাঁরা জানান, অত্যন্ত ভাল ছেলে যুগরাজ। প্রায়সই গুরুদ্বারে পতাকা লাগাতে সাহায্য করে সে, সেই কারণেই ঘটনার দিনও আন্দোলনকারীদের উসকানিতে সে লালকেল্লায় পতাকা লাগায়। এক প্রাক্তন পুলিশকর্মী প্রেম সিং বলেন, “লালকেল্লায় নিসান সাহিবের পতাকা উত্তোলনের উদ্দেশ্যে সে দিল্লি যায়নি। তাঁর সঙ্গে কোনও পতাকাও ছিল না। খুব তাড়াতাড়ি পোল বেয়ে উঠতে পারে বলেই তাঁকে পতাকা লাগাতে বলা হয়েছিল। তাঁর হাতে অন্য একজন পতাকা তুলে দিয়েছিল।”

তরণ তারাণ জেলার পুলিশ অফিসাররা যদিও এই বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন। সূত্র অনুযায়ী, অভিযুক্ত যুবকের সঙ্গে কোনও সংগঠনের যোগ রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: এলআইসি-সহ আরও ৩ রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের শেয়ার বিক্রির ঘোষণা থাকতে পারে বাজেটে!

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla