Karnataka Rain: একটানা বৃষ্টিতেই ফের উঠে এল নিকাশি ব্যবস্থার কঙ্কালসার দশা! মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজকে ফোন প্রধানমন্ত্রীর

PM Modi called Karnataka CM: বৃষ্টিতে কেন্দ্রীয় বিহার নামক একটি বড় আবাসনের নীচের তলটি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায়, ৬০০টি ফ্ল্যাটের মোট ১৬০০ বাসিন্দার পুনর্বাসনের ব্য়বস্থা করে প্রশাসন। বেঙ্গালুরুর ইলাহাঙ্কা জ়োনও বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হয়েছে। সেখানে প্রায় চার ফিট জল জমে গিয়েছে।

Karnataka Rain: একটানা বৃষ্টিতেই ফের উঠে এল নিকাশি ব্যবস্থার কঙ্কালসার দশা! মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজকে ফোন প্রধানমন্ত্রীর
আবাসিকদের উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ছবি: টুইটার

বেঙ্গালুরু: একটানা বৃষ্টিতে তামিলনাড়ু (Tamil Nadu), অন্ধ্র প্রদেশ(Andhra Pradesh)-র পাশাপাশি ভাসছে কর্নাটকও (Karnataka)। একদিনের বৃষ্টিতেই সেখানে অধিকাংশ এলাকায় জল জমে গিয়েছিল। মঙ্গলবার কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্বাই(Basavaraj Bommai)-কে ফোন করে রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে খোঁজ খবর নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। রবিবার থেকে শুরু হওয়া একটানা ভারী বৃষ্টিতে যে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, তা মোকাবিলায় কেন্দ্রের তরফে পূর্ণ সহযোগিতা করা হবে বলেও জানান।

মঙ্গলবারই কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ টুইট করে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনালাপের কথা জানান। তিনি বলেন, “ভারী বৃষ্টির কারণে রাজ্যে যে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, সে সম্পর্কে ফোন করে খোঁজ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অতি বৃষ্টিতে যাদের প্রাণহানি হয়েছে, তাদের জন্য শোকপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী, একইসঙ্গে ফসলের যে ব্যপক ক্ষতি হয়েছে, তা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। কেন্দ্রের তরফে সবরকমের সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।”

সোমবারই সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে বেঙ্গালুরু ও সংলগ্ন এলাকাগুলিতে জল জমে থাকার ছবি ও ভিডিয়ো ভাইরাল হয়। রবিবার রাত থেকে শুরু হওয়া ভারী বৃষ্টিতেই হাটু সমান জল যাওয়ার চিত্র দেখা যায়। একাধিক জায়গায় বাড়ির একতলাগুলি জলে সম্পূর্ণ ডুবে থাকতে দেখা যায়। রাস্তাও সম্পূর্ণ ডুবে যাওয়ায় বাসিন্দাদের যাতায়াতের ভরসা হয়ে ওঠে কেবল নৌকাই।

বৃষ্টিতে কেন্দ্রীয় বিহার নামক একটি বড় আবাসনের নীচের তলটি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায়, ৬০০টি ফ্ল্যাটের মোট ১৬০০ বাসিন্দার পুনর্বাসনের ব্য়বস্থা করে প্রশাসন। বেঙ্গালুরুর ইলাহাঙ্কা জ়োনও বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হয়েছে। সেখানে প্রায় চার ফিট জল জমে গিয়েছে। ট্রাক্টর ও বড় এসইউভি গাড়ির সাহায্যে স্থানীয় বাসিন্দাদের ওই এলাকা থেকে বের করে আনা হয়। মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্বাইও বন্যায় বিপর্যস্ত এলাকাগুলি পরিদর্শন করেন। জওহরলাল নেহেরু সেন্টার ফর অ্যাডভান্সড সায়েন্টিফিক রিসার্চেও বৃষ্টির জল ঢুকে যাওয়ায় দামী গবেষণার সামগ্রী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই রিসার্চ সেন্টারও ঘুরে দেখেন মুখ্যমন্ত্রী।

এলাকা পরিদর্শনের পর তিনি বলেন, “বেঙ্গালুরু সহ অন্যান্য এলাকার পুরসভা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তারা দ্রুত জল বের করার চেষ্টা করছেন। দুটি ঝড়বৃষ্টির জলের ড্রেন রয়েছে। তবে এদের আকার তুলনামূলকভাবে ছোট হওয়ায় ও জলের পরিমাণ অনেকটাই বেশি হওয়ায় এলাকাগুলি প্লাবিত হয়েছে। দ্রুত নিকাশি ব্যবস্থা পরিস্কার করার চেষ্টা করা হচ্ছে।”

রবিবার রাত থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টিতে আল্লালাসান্দ্রা লেক প্লাবিত হয়েছে। এরফলে পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলিতে জল জমে গিয়েছে। উত্তর বেঙ্গালুরুর একাধিক রাস্তাও জলের তলায় চলে গিয়েছে। ইয়েলাহাঙ্কা, নাগাভারা, কোগিলু ও বিদ্যারান্য়াপুরা এলাকা সব থেকে বেশি প্রভাবিত হয়েছে বৃষ্টিতে। কেবল ইয়েলাহাঙ্কা এলাকাতেই গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এরফলে গোটা এলাকাতেই জল জমে গিয়েছে।

আরও পড়ুন: Farm Laws Repeal Bill, 2021: শীতকালীন অধিবেশনের প্রথম দিনেই কৃষি আইন প্রত্যাহারের বিল আনছে কেন্দ্র

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla