Photo Gallery: সবটাই জলপথ, পাঁশকুড়ার বিস্তীর্ণ অঞ্চলের যোগাযোগের মাধ্যম কেবল কলার ভেলা!

Flood in Panskura: দ্রুত বাঁধ সারিয়ে জল আটকানোর ব্যবস্থা না করলে আবারও ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির বিস্তীর্ণ কয়েকটি এলাকায়।

1/6
পূর্ব মেদিনীপুর: প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে আগামী তিন দিন প্রবল বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে বন্যা বিধ্বস্ত জেলাগুলিতে পরিদর্শনে এসেছে কেন্দ্রের প্রতিনিধি দল।  আর তখনই জল যন্ত্রণার ছবি পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়ায়।
পূর্ব মেদিনীপুর: প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে আগামী তিন দিন প্রবল বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এর মধ্যে বন্যা বিধ্বস্ত জেলাগুলিতে পরিদর্শনে এসেছে কেন্দ্রের প্রতিনিধি দল। আর তখনই জল যন্ত্রণার ছবি পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়ায়।
2/6
গত ১৬ ই সেপ্টেম্বর প্রবল জলের তোড়ে ভেঙে গিয়েছিল পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির পটলবাড়ির কাছে কাঁসাই নদীর বাঁধ। এখনেও ভাঙা অবস্থায় পড়ে  রয়েছে সেই বাঁধ। এদিকে নদীর জলস্তর বেড়ে যাওয়ায় প্রতিনিয়ত ভাঙা বাঁধ দিয়ে  জল ঢুকেই চলেছে। যার জেরে প্লাবিত পটলবাড়ি, কানাসি বৃন্দাবন চক, কিশোরচক, বিজয়নগর, কালই, চৈতন্যপুর এক ও দুই নম্বর অঞ্চলের একাধিক এলাকা।
গত ১৬ ই সেপ্টেম্বর প্রবল জলের তোড়ে ভেঙে গিয়েছিল পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির পটলবাড়ির কাছে কাঁসাই নদীর বাঁধ। এখনেও ভাঙা অবস্থায় পড়ে রয়েছে সেই বাঁধ। এদিকে নদীর জলস্তর বেড়ে যাওয়ায় প্রতিনিয়ত ভাঙা বাঁধ দিয়ে জল ঢুকেই চলেছে। যার জেরে প্লাবিত পটলবাড়ি, কানাসি বৃন্দাবন চক, কিশোরচক, বিজয়নগর, কালই, চৈতন্যপুর এক ও দুই নম্বর অঞ্চলের একাধিক এলাকা।
3/6
ফলে আরও বিপদ বাড়ছে এলাকার সাধারন মনুষের। বাড়ছে এলাকার মানুষের জল যন্ত্রণা। ঘরবন্দি থাকার পর সরকারি সাহায্যকে উপেক্ষা করেই কলাগাছের তৈরি ভেলায় করে জলের উপর চলছে নিত্যপ্রয়োজনীয় যাতায়াত। এলাকার প্রায় সব মানুষ, কচিকাঁচা থেকে যুবক-যুবতী, বৃদ্ধ, সবার যাতায়াতের একমাত্র ভরসা হয়ে উঠেছে কলা গাছের তৈরি ভেলা।
ফলে আরও বিপদ বাড়ছে এলাকার সাধারন মনুষের। বাড়ছে এলাকার মানুষের জল যন্ত্রণা। ঘরবন্দি থাকার পর সরকারি সাহায্যকে উপেক্ষা করেই কলাগাছের তৈরি ভেলায় করে জলের উপর চলছে নিত্যপ্রয়োজনীয় যাতায়াত। এলাকার প্রায় সব মানুষ, কচিকাঁচা থেকে যুবক-যুবতী, বৃদ্ধ, সবার যাতায়াতের একমাত্র ভরসা হয়ে উঠেছে কলা গাছের তৈরি ভেলা।
4/6
এখন অসুস্থ রোগী নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে চরম বিপদের কথা জানিয়েছেন এলাকার মানুষ। তবে সর্বোপরি ভাঙা বাঁধ দ্রুত নির্মাণ করে জল আটকানোর  দাবি তুলেছেন বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি ত্রিপল ছাড়া আর কিছুই পাননি। মূল নদীর উপর দড়ি ধরে একটিমাত্র নৌকা পারাপারের ব্যবস্থা করা হয়েছে বটে। কিন্তু বাকি সব জায়গাতেই কলাগাছের ভেলাই ভরসা।
এখন অসুস্থ রোগী নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে চরম বিপদের কথা জানিয়েছেন এলাকার মানুষ। তবে সর্বোপরি ভাঙা বাঁধ দ্রুত নির্মাণ করে জল আটকানোর দাবি তুলেছেন বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি ত্রিপল ছাড়া আর কিছুই পাননি। মূল নদীর উপর দড়ি ধরে একটিমাত্র নৌকা পারাপারের ব্যবস্থা করা হয়েছে বটে। কিন্তু বাকি সব জায়গাতেই কলাগাছের ভেলাই ভরসা।
5/6
শুধুমাত্র বাঁচার তাগিদে ভাঙা বাঁধ দ্রুত সরানোর দাবি তুলেছেন চৈতন্যপুর এক ও দুই নম্বর অঞ্চলের মানুষজন। যদিও প্রশাসনের বক্তব্য, নিয়মিত তারা ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছে এলাকায়।  তবে কাঁসাই নদীর ভাঙা বাঁধ মেরামতির ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যার  কথা জানিয়েছেন স্থানীয় ব্লক তৃণমূল সহ সভাপতি। পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি শেখ হানিফ মহম্মদের দাবি, চারদিকে জল জমে থাকায় ভাঙা বাঁধ  মেরামতির ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যা হচ্ছে। দ্রুত বাঁধ মেরামত করে জল আটকানোর জন্য সেচ মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র সহ জেলা সেচ দফতরের দফতরের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি জানানো হয়েছে।
শুধুমাত্র বাঁচার তাগিদে ভাঙা বাঁধ দ্রুত সরানোর দাবি তুলেছেন চৈতন্যপুর এক ও দুই নম্বর অঞ্চলের মানুষজন। যদিও প্রশাসনের বক্তব্য, নিয়মিত তারা ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছে এলাকায়। তবে কাঁসাই নদীর ভাঙা বাঁধ মেরামতির ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যার কথা জানিয়েছেন স্থানীয় ব্লক তৃণমূল সহ সভাপতি। পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি শেখ হানিফ মহম্মদের দাবি, চারদিকে জল জমে থাকায় ভাঙা বাঁধ মেরামতির ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যা হচ্ছে। দ্রুত বাঁধ মেরামত করে জল আটকানোর জন্য সেচ মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র সহ জেলা সেচ দফতরের দফতরের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি জানানো হয়েছে।
6/6
দ্রুত বাঁধ সারিয়ে জল আটকানোর ব্যবস্থা না করলে আবারও ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির বিস্তীর্ণ কয়েকটি এলাকায়। দ্রুত বাঁধ মেরামতি করে জল আটকানোর আশ্বাস দিয়েছেন সেচমন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র।
দ্রুত বাঁধ সারিয়ে জল আটকানোর ব্যবস্থা না করলে আবারও ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে পাঁশকুড়া পঞ্চায়েত সমিতির বিস্তীর্ণ কয়েকটি এলাকায়। দ্রুত বাঁধ মেরামতি করে জল আটকানোর আশ্বাস দিয়েছেন সেচমন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla