ISL 2021-22: শুধু আক্রমণ নয়, টিমগেম আমার শক্তি: হাবাস

গত বছরের থেকে এ বারের এসসি ইস্টবেঙ্গল (SC East Bengal) একেবারেই অচেনা, আলাদা। এই বদলে যাওয়া লাল-হলুদই মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠেছে হাবাসের (Antonio Habas)।

ISL 2021-22: শুধু আক্রমণ নয়, টিমগেম আমার শক্তি: হাবাস
ISL 2021-22: শুধু আক্রমণ নয়, টিমগেম আমার শক্তি: হাবাস (ছবি-টুইটার)

পানাজি: গত বছরের থেকে এ বারের এসসি ইস্টবেঙ্গল (SC East Bengal) একেবারেই অচেনা, আলাদা। এই বদলে যাওয়া লাল-হলুদই মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠেছে হাবাসের (Antonio Habas)।

খাতায়-কলমে এ বারের বড় ম্যাচে এসসি ইস্টবেঙ্গলের (SC East Bengal) চেয়ে অনেকগুণ এগিয়ে এটিকে মোহনবাগান (ATK Mohun Bagan)। সবুজ-মেরুনের দেশি এবং বিদেশি ফুটবলাররা লাল-হলুদের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে। তবু শনিবারের বড় ম্যাচে সতর্ক হাবাস। ডার্বির আগে কী বললেন সবুজ-মেরুন কোচ?

প্রস্তুতি ম্যাচ ছাড়াই জয় দিয়ে শুরু

সব সময় প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার দরকার পড়ে না। পরিস্থিতি অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নিতে হয়। এএফসি কাপে দলকে দেখে নিয়েছিলাম।

অচেনা এসসি ইস্টবেঙ্গল

গত বছরের চেয়ে এ বারের দলটা একেবারে আলাদা। অধিকাংশ ফুটবলারই নতুন। কোচও পাল্টে গিয়েছে। আগের ম্যাচে ওরা ড্র করলেও ভালো ফুটবল খেলেছে। আর এটা আমাকে অবশ্যই ভাবাচ্ছে। ভারতীয় ফুটবলে সবাই তড়িঘড়ি সাফল্যের প্রত্যাশা করে। কিন্তু সাফল্য পেতে হলে সময় লাগে। ওদের কোচ কিন্তু বেশ ভালো। হাইপ্রোফাইল। প্রচুর অভিজ্ঞতা।

ডার্বির গুরুত্ব

অবশ্যই ডার্বির গুরুত্ব বুঝি এবং জানি। এখানে থেকেই বড় ম্যাচের উত্তাপ টের পাচ্ছি। কলকাতায় সমর্থকদের মধ্যে কি চলছে, তা ভালই আন্দাজ করতে পারছি। ডার্বি জিতে সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটাতে চাই।

প্রথম জেতায় কি ডার্বিতে এগিয়ে?

একেবারেই নয়। ওটা আলাদা ম্যাচ, ডার্বি আলাদা। অন্য আর একটা ম্যাচ। ওরা ড্র করলেও ভালো ফুটবল খেলেছে।

বোমাস-কৃষ্ণা-মনবীরদের ফর্ম কি শক্তি বাড়াচ্ছে?

শুধু আমার টিমের আক্রমণ নিয়ে কথা বলছেন কেন? আমার দলে প্রীতম কোটাল, কার্ল ম্যাকহিউ, অমরিন্দর সিংরাও আছে। দলগত পারফরম্যান্সই সাফল্য এনে দেয় একটা টিমকে। কাউকে আলাদা ভাবে দেখি না। প্রত্যেককেই আমার কাছে সমান গুরুত্ব।

ডার্বি জেতার স্বাদ

গত বছর দুটো ডার্বি জিতেছি ঠিকই, কিন্তু সেটা এখন অতীত। ওটার পুনরাবৃত্তি হবে না। তবে নতুনভাবে ডার্বিতে সমর্থকদের জয়ের স্বাদ দিতে হবে। শনিবারের ম্যাচটা নতুন, আলাদা। বড় ম্যাচে ১০০% জয়ের রেকর্ড বজায় রাখাই আমার লক্ষ্য।

বিশেষ পরিকল্পনা

সে ভাবে বিশেষ পরিকল্পনা মানতে নারাজ। প্রত্যেক ম্যাচই আমি সমান ভাবে দেখি, সমান গুরুত্ব দিই।

টিম আপডেট

চোটের জন্য তিরি নেই। ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছে ও। বাকি সবাইকে পাব ডার্বিতে।

বল পজেশন

কেরালা ব্লাস্টার্সের বিরুদ্ধে ৩৫% বল পজেশন থাকলেও আমার টিমই ম্যাচ জিতেছে। রেজাল্টই আসল কথা। বল পজেশন কখনও ম্যাচ জেতাতে পারে না। আমি ম্যাচ জেতার দিকেই নজর দিই। প্রতিপক্ষ বুঝে দল সাজাতে হয়। রোজ এক দল মাঠে নামানো যায় না। তাই বল পজেশনের দিকে তাকাই না।

চিমা ও পেরোসেভিচকে থামানোর রণকৌশল

কোনও আলাদা পরিকল্পনা নেই। ওদের এগারো জনকে নিয়েই ভাবতে চাই। কারণ খেলাটা এগারো বনাম এগারো হবে।

রক্ষণ নিয়ে ভাবনা

গত ম্যাচে দুটো বাজে গোল হজম করতে হয়েছে। এগিয়ে থাকার জন্য দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচটাকে ফুটবলাররা হালকাভাবে নিয়েছিল। এরকম করলেই মুশকিল। মাঠে ৯০ মিনিটই ম্যাচটাকে সমানভাবে গুরুত্ব দিতে হবে।

জনি কাউকোর পারফরম্যান্স

গত ম্যাচে ওর খেলা দেখে খুশি। খুব ভালো ফুটবল খেলেছে ও। সব সময় একজন ফুটবলার প্রতি ম্যাচে ১০০% ভালো খেলতে পারে না। কিন্তু ও যে রকম পারফর্ম করেছে, তাতে আমি বেশ খুশি।

আরও পড়ুন: ISL 2021-22: পাল্টা আক্রমণেই ডার্বি জেতার অঙ্ক সাজাচ্ছেন মানোলো

আরও পড়ুন: IND vs NZ 1st Test Day 2 Live: প্রথম ইনিংসে টিম ইন্ডিয়া তুলেছে ৩৪৫ রান, উইল ইয়ংয়ের হাফ সেঞ্চুরি

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla