Tokyo Olympics 2020: অলিম্পিক তাঁর কেরিয়ারের মোড় ঘোরাতে পারে, আশাবাদী সুমিত নাগাল

একের পর টেনিস তারকা চোট, আঘাত, করোনা জন্য উদ্বেগের কারণে নাম তুলে নেওয়ার পর, ২৩ বছর বয়সী নাগাল অলিম্পিকে পুরুষদের সিঙ্গলসের যোগ্যতা অর্জন করেছেন।

Tokyo Olympics 2020: অলিম্পিক তাঁর কেরিয়ারের মোড় ঘোরাতে পারে, আশাবাদী সুমিত নাগাল
Tokyo Olympics 2020: অলিম্পিক তাঁর কেরিয়ারের মোড় ঘোরাতে পারে, আশাবাদী সুমিত নাগাল

নয়াদিল্লি: শেষ মুহূর্তে টোকিওর (Tokyo Olympics) টিকিট নিশ্চিত করেছেন ভারতীয় টেনিস (Tennis) তারকা সুমিত নাগাল (Sumit Nagal)। এই অনুভূতি বলে বোঝাতে পারছেন না তিনি। এত বড় ইভেন্টে যোগ্যতা অর্জন করার পর তাঁর মনে যে আবেগ ফুটে উঠেছে, সেটা প্রকাশ করার শব্দও খুঁজে পাচ্ছেন না তিনি। টোকিও গেমসই তাঁর কেরিয়ারে নতুন মোড় তৈরি করতে পারে। আশাবাদী সুমিত নাগাল।

একের পর টেনিস তারকা চোট, আঘাত, করোনা জন্য উদ্বেগের কারণে নাম তুলে নেওয়ার পর, ২৩ বছর বয়সী নাগাল অলিম্পিকে পুরুষদের সিঙ্গলসের যোগ্যতা অর্জন করেছেন। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৫৪ নম্বরে রয়েছেন নাগাল। অলিম্পিকে যাওয়ার সুযোগ পাওয়ার খবর জানতে পেরে উচ্ছ্বসিত নাগাল। টুইটারে তিনি লেখেন, “আমার আবেগ প্রকাশ করার জন্য কোনও শব্দ খুঁজে পাচ্ছি না। টোকিও অলিম্পিকের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে পারাটা আমার কাছে একটা অবাস্তব অনুভূতির মতো। আপনাদের সমর্থন ও শুভেচ্ছাবার্তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ।”

টোকিও গেমস (Tokyo Games) তাঁর কেরিয়ারের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। এমনটাই মনে করেন নাগাল। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “অলিম্পিকে উঠলে আশা করি আমার কেরিয়ারের অনেক কিছু বদলে যাবে। অলিম্পিকে থাকার যে অনুভূতি, সেটা অনেকের মুখে শুনলেও, সেই অনুভূতিটা উপভোগ করার জন্য ওখানে উপস্থিত থাকতে হবে। আমি খুব খুশি। আমি এটার অপেক্ষায় রয়েছি। এটা একটি দারুণ অভিজ্ঞতা হতে চলেছে। আমি কোর্টে আমার একশো শতাংশ দেব।” টোকিওর টিকিট পেয়ে আপ্লুত নাগাল বললেন, “ভারতের জার্সি চাপিয়ে অলিম্পিকে নামার সুযোগ পেয়ে আমি ভীষণ খুশি হয়েছি। দেশের হয়ে পুরুষদের সিঙ্গলসে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পেয়ে আমি আপ্লুত।”

শেষ মুহূর্তে টোকিওর ডাক পাওয়ায় যথেষ্ট প্রস্তুতি না নিয়েই কোর্টে নামতে হবে নাগালকে। এই ব্যাপারে তিনি বললেন, “সত্যি বলতে কী কয়েকটা বিষয় নিয়ে আমাকে লড়াই করতে হচ্ছে, যেগুলি আমি প্রকাশ করব না। আমি আশা করছি কোর্টে যতটা সম্ভব সুস্থ থেকে লড়াই করতে পারব। শেষ মুহূর্তে সুযোগ পেয়েছি। সবকিছু এতটাও সহজ নয়। আমাকে নিজের সময়সূচি ও অনেক কিছুই বদলাতে হবে। তবে এটা অলিম্পিক। এর জন্য সব কিছু করা যায়।”

আরও পড়ুন: Tokyo Olympics 2020: শেষ মুহূর্তে অলিম্পিকের টিকিট সুমিতের

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla