Tokyo Olympics 2020: ম্যাচ হারার ক্ষোভে র‍্যাকেট ছুড়লেন জোকার

Novak Djokovic: ম্যাচের শুরু থেকেই একেবারে ছন্দে ছিলেন না জকোভিচ। বুস্তার বিরুদ্ধে হারতে হারতে রাগ সামলাতে না পেরে ফাঁকা কোর্টে র‍্যাকেট ছোড়েন তিনি।

Tokyo Olympics 2020: ম্যাচ হারার ক্ষোভে র‍্যাকেট ছুড়লেন জোকার
Tokyo Olympics 2020: ম্যাচ হারার ক্ষোভে র‍্যাকেট ছুড়লেন জোকার (সৌজন্যে-টুইটার)

টোকিও: গোল্ডেন স্লামের (Golden Slam) স্বপ্নভঙ্গ হওয়ার পর, শনিবার ব্রোঞ্জ পদক ম্যাচে নেমেছিলেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা নোভাক জকোভিচ (Novak Djokovic)। ৬-৪, ৬-৭ (৬/৮), ৬-৩ ব্যবধানে স্পেনের পাবলো ক্যারেনা বুস্তার (Pablo Carreno Busta) কাছে হেরে ব্রোঞ্জও কপালে জুটল না জকোভিচের। রাগের বহিঃপ্রকাশ ঘটল ম্যাচেই। বুস্তার সঙ্গে খেলা চলাকালীন বেশ কয়েকবার মেজাজ হারান সার্বিয়ান তারকা। ফাঁকা কোর্টে র‍্যাকেট (Racquet ) ছুড়ে মারেন। নেটের পোস্টেও র‍্যাকেট দিয়ে মারেন।

ম্যাচের শুরু থেকেই একেবারে ছন্দে ছিলেন না জকোভিচ। বুস্তার বিরুদ্ধে হারতে হারতে রাগ সামলাতে না পেরে ফাঁকা কোর্টে র‍্যাকেট ছোড়েন তিনি। একইভাবে দিক পরিবর্তনের সময় নেট পোস্টে র‍্যাকেট দিয়ে ফের মারেন। তারপর দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া র‍্যাকেটটি তুলে ছুড়ে ফেলেন তিনি। আম্পায়র সতর্কও করেন জোকারকে। আসলে তিনি বুস্তার বিরুদ্ধে হারটা কোনও মতেই সহ্য করতে পারছিলেন না। আর তাতেই এই ঘটনা।

যদিও ম্যাচের শেষএ জকোভিচ বলেন, “আমার মনে হয়, এটা ম্যাচেরই অংশ। আমি এই রকম করতে চাই না। এই রকম বার্তা পাঠানোর জন্য আমি দুঃখিত। কিন্তু আমরা সকলেই তো মানুষ। কখনও কখনও নিজের আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করা মুশকিল হয়ে পড়ে। তবে এটা কিন্তু প্রথমবার নয়, আর শেষবারও নয়। এই ঘটনাটা অবশ্যই ভালো না।” তিনি আরও যোগ করেন, “আমি জানি আবার ফিরে আসব। প্যারিস অলিম্পিকে আমি দেশকে পদক এনে দেওয়ার জন্য লড়াই করব।”

অলিম্পিকের আরও খবর পড়তে ক্লিক করুনঃ টোকিও অলিম্পিক ২০২০

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla