Havana Syndrome: করোনার পর নতুন আতঙ্ক, ভারত সফররত সিআইএ অফিসারের হাভানা সিনড্রোমের উপসর্গ

havana syndrome মার্কিন দূতাবাসে (American Embassy) কর্মরত এক আধিকারিকের দেহে প্রথম হাভানা সিনড্রোমের হদিশ মেলে। সম্প্রতি ২০০ জনের মত মার্কিন আধিকারিক ও তাঁদের পরিবারের সদস্যরা হাভানা সিনড্রোমের জেরে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

Havana Syndrome: করোনার পর নতুন আতঙ্ক, ভারত সফররত সিআইএ অফিসারের হাভানা সিনড্রোমের উপসর্গ
এই মাসে ভারত ঘুরে যাওয়া এক সিআইএ অফিসারের দেহে মারাত্বক হাভানা সিনড্রোমের উপসর্গ দেখা দিয়েছে। ছবি টুইটার

ওয়াশিংটন: একে করোনায় (Covid 19) নিস্তার নেই, তাঁর ওপর দোসর এক নতুন সংক্রমণ। হাভানা সিনড্রোম (Havan Syndrome)। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ (Central Intellegence Agency, USA) র ডিরেক্টর উইলিয়াম বার্নসের (William Burns) সঙ্গে এই মাসে ভারত (India) ঘুরে যাওয়া এক সিআইএ অফিসারের (CIA official) দেহে মারাত্বক হাভানা সিনড্রোমের উপসর্গ দেখা দিয়েছে। অসমর্থিত সূত্রে খবর, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার, যে অফিসারের মধ্যে হাভানা সংক্রমণের লক্ষণ দেখা গিয়েছে, তাঁকে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা। এখনও অবধি ওই সিআইএ অফিসারের পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে।

২০১৬ সালে কিউবার (Cuba) মার্কিন দূতাবাসে (American Embassy) কর্মরত এক আধিকারিকের দেহে প্রথম হাভানা সিনড্রোমের হদিশ মেলে। সম্প্রতি ২০০ জনের মত মার্কিন আধিকারিক ও তাঁদের পরিবারের সদস্যরা হাভানা সিনড্রোমের জেরে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। এই অদ্ভূত রোগে মাইগ্রেন (migraine), বমি বমি ভাব (nausea), স্মৃতিশক্তি হ্রাস ও মাথা ঘোরার (dizziness) মত কিছু উপসর্গ লক্ষ্য করা গিয়েছে।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে (Reuters) দেওয়া এক বিবৃতিতে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ-র এক আধিকারিক বলেন, এই ধরনের কোনও ঘটনার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট অফিসারের বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে অপারগ এজেন্সি। তাঁর মতে ” আমাদের বেশ কিছু প্রোটোকল মেনে চলতে হয়। যখন সংস্থার কোনও সদস্যের স্বাস্থ্য জনিত অস্বাভাবিক কোনও সমস্যা দেখা দেয়, তাঁদের দ্রুত চিকিৎসার বন্দোবস্ত করা হয়।”

 

আরও পড়ুন Coal Scam Case: দিল্লি হাইকোর্টে ধাক্কা অভিষেকের, ইডি-র সমনে স্থগিতাদেশ দিল না আদালত

 

গত মাসে ভারতীয় বংশোদ্ভুত মার্কিন উপরাষ্ট্রপতি কমলা হ্যারিসের (US Vice President Kamala Harris) হ্যানয় (Hanoi) সফর, তিন ঘণ্টা বিলম্বিত হয়। কারণ স্থানীয় মার্কিন দূতাবাস থেকে খবর পাওয়া গিয়েছিল, একজন ব্যক্তির দেহে এমন কিছু উপসর্গ দেখা দিয়েছে যার সঙ্গে, হাভানা সিনড্রোমের উপসর্গের সাদৃশ্য রয়েছে।

গোয়েন্দা সংস্থার ডিরেক্টর উইলিয়াম বার্নস জানিয়েছেন, এই বছর জুলাই মাসে ওসামা বিন লাদেনকে (Osama Bin Laden) ধরার অভিযানের নেতৃত্ব দেওয়া এক বরিষ্ঠ আধিকারিকের দেহে হাভানা সিনড্রোম সংক্রমণের খোঁজ মেলে। ইউএস ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সের (US National Academy of Science) বেশ কিছু গবেষকের মতে রেডিও তরঙ্গ (Radio Frequency) থেকে তৈরি হওয়া শক্তির থেকে এই হাভানা সিনড্রোম সংক্রমণের জন্ম হতে পারে। কিন্তু এখনও অবধি এই দাবির স্বপক্ষে উপযুক্ত প্রমাণ তাঁরা দিতে পারেননি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য হাভানা সিনড্রোম সংক্রমণে আক্রান্ত রোগী উপযুক্ত চিকিৎসা পাওয়ার পরই সেরে উঠেছেন, যার অর্থ এই রোগ দীর্ঘমেয়াদি নয়। কিন্তু সিআইএ অফিসারের বেশ কিছু রোগীর এই সংক্রমণের পর, রোগ থেকে সেরে উঠতে কতদিন সময় লেগেছে সেই বিষয়ে কিছু বলা কঠিন। কারণ মনে করা হচ্ছে, এমনটা হতেই পারে বাকি রোগীদের তুলনায় এই সংক্রমণ থেকে সেরে উঠতে তাঁদের আরও বেশি সময় লেগেছে। ইতিমধ্যেই আমেরিকার প্রশাসনের পক্ষ থেকে চিকিৎসক ও গোয়েন্দা সংস্থাকে এই সংক্রমণের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন TMC In Tripura: ত্রিপুরায় আইনি গেরোয় অভিষেক, ৪ নভেম্বর পর্যন্ত বাতিল সমস্ত মিটিং-মিছিল

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla