Amit Shah on UP Polls: ‘ভারতের ভবিষ্যৎ স্থির করবে এই নির্বাচনই’, যোগীরাজ্যে প্রচারে ‘শাহি’ বার্তা

Amit Shah on UP Polls: 'ভারতের ভবিষ্যৎ স্থির করবে এই নির্বাচনই', যোগীরাজ্যে প্রচারে 'শাহি' বার্তা
অমিত শাহ (ফাইল ছবি)

Uttar Pradesh Assembly Election 2022: বৃহস্পতিবার মথুরায় বাড়ি বাড়ি প্রচারে গিয়ে তিনি বলেন, "উত্তর প্রদেশের নির্বাচনই আগামিদিনে ভারতের ভবিষ্যৎ স্থির করবে।"  

TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Jan 28, 2022 | 1:46 PM

আগ্রা: হাতে আর মাত্র কয়েকটা দিন, তারপরই অগ্নিপরীক্ষা। উত্তর প্রদেশে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের (Uttar Pradesh Assembly Election 2022) আগেই শেষ মুহূর্তে প্রচারের ময়দানে নেমেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা অমিত শাহ (Amit shah)। বৃহস্পতিবার মথুরা(Mathura)-এ বাড়ি বাড়ি প্রচারে গিয়ে তিনি বলেন, “উত্তর প্রদেশের নির্বাচনই আগামিদিনে ভারতের ভবিষ্যৎ স্থির করবে।”

আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। যোগীরাজ্য ক্ষমতা ধরে রাখতে মরিয়া বিজেপি, কারণ এই নির্বাচনে জয়লাভ করলেই ২০২৪ সালের  লোকসভা নির্বাচনে জয়ের পথও অনেকটাই সাফ হয়ে যাবে। সেই কারণেই শেষ মুহূর্তে তারকা প্রার্থীরা প্রচারে নেমেছে। বৃহস্পতিবারই মথুরায় বাড়ি বাড়ি প্রচারে যান অমিত শাহ। বৃন্দাবনের বঙ্কে বিহারী মন্দিরেও অমিত শাহ পুজো দেন। সেখানে তিনি দলীয় কর্মী ও ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন, “একমাত্র বিজেপিই দেশকে সুরক্ষিত রাখতে পারে। দেশের অভ্যন্তরীণ ও বহির্ভাগের সুরক্ষাকেই সবথেকে গুরুত্ব দেয় বিজেপি সরকার, সেই কারণেই দেশের সীমান্তগুলি সুরক্ষিত রয়েছে।”

উত্তর প্রদেশের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “উত্তর প্রদেশ নেপালের সঙ্গে সীমান্ত ভাগ করে, সেই কারণেই রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা ব্যবস্থার উপরও বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন। বিরোধী দলগুলির কাছে সুরক্ষিত পরিবেশ তৈরি করার ক্ষমতা নেই।”

উত্তর প্রদেশের উন্নয়নের উপর জোর দিয়ে তিনি বলেন, “যতক্ষণ উত্তর প্রদেশের উন্নয়ন হবে না, ততক্ষণ ভারতও উন্নয়নের পথে এগোতে পারবে না। কারণ উত্তর প্রদেশের জনসংখ্যা ২০ কোটিরও বেশি। এই রাজ্যের নির্বাচনই আগামিদিনে দেশের ভবিষ্যৎ স্থির করবে।”

পূর্ববর্তী সমাজবাদী পার্টির সরকারকেও কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন বিজেপি নেতা অমিত শাহ। জনতার উদ্দেশ্যে তিনি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে বলেন, “আগে রাজ্যে গুন্ডারাজ ছিল? বাহুবলীরা সাধারণ মানুষকে সমস্যায় ফেলতেন না? রাজ্যের মা-বোনেদের সম্মানের সঙ্গে খেলা করা হত না। আইন শৃঙ্খলা নিয়ে অখিলেশ যাদবের লজ্জা হওয়া উচিত।”

শাহের দাবি, এবারের নির্বাচনে অখিলেশ যাদব যদি আবার জিতে ক্ষমতায় আসেন, তবে রাজ্যে আবার ‘গুন্ডারাজ’ ফিরে আসবে, কিন্তু বিজেপি যদি আবার ক্ষমতায় আসে তবে রাজ্যে শুধুই উন্নয়ন হবে। আগে রাজ্যে সমাজবাদী পার্টি ও বহুজন সমাজ পার্টির  সরকার ছিল।তারা কেবল নির্দিষ্ট কিছু জাতির জন্যই কাজ করেছে। কেউই রাজ্যের সার্বিক উন্নয়নের জন্য চিন্তাভাবনা করেননি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে যোগী আদিত্যনাথই একমাত্র সেই কাজ করেছেন। বিজেপি কোনও একটি নির্দিষ্ট জাতের দল নয়, বিজেপি সমগ্র সমাজের।

আরও পড়ুন: COVID-19 Restriction Extended: ৪০৭টি জেলাতেই সংক্রমণের হার ১০ শতাংশে বেশি! বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়াল কেন্দ্র 

আরও পড়ুন: Budget 2022: বাজেট অধিবেশনে কে করবে কিস্তিমাত? ঘুটি সাজাতে ব্যস্ত কেন্দ্র-বিরোধী দলগুলি

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA