Vitamins: শরীরের প্রয়োজনেই এই দুই ভিটামিন খান একসঙ্গে, গুনে শেষ করতে পারবেন না উপকারিতা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Reshmi Pramanik

Updated on: Apr 25, 2022 | 7:06 AM

Role of Vitamins in Human Health; শরীর গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে ভিটামিনের। ভিটামিনের অভাব হলে সেখান থেকে দেখা দেয় একাধিক সমস্যা। আর সতাই ওষুধ খাওয়ার আগে অবস্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেবনে...

Vitamins: শরীরের প্রয়োজনেই এই দুই ভিটামিন খান একসঙ্গে, গুনে শেষ করতে পারবেন না উপকারিতা
চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনও ভিটামিন নয়

Role of vitamins: শরীরের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হল ভিটামিন। শরীর সুস্থ রাখতে, শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে কিন্তু এই সব ভিটামিন ভীষণ ভাবে সাহায্য করে। চুল, হাড়, দাঁত, নখের গঠনে ভূমিকা রয়েছে এই ভিটামিনের। শরীরে যদি কোনও একটি ভিটামিনের অভাব হয় তাহলে কিন্তু একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। শরীরে রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে ভূমিকা রয়েছে ভিটামিন সি-এর। তেমনই শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় দুই ভিটামিন হল- D এবং K। আজকাল বেশিরভাগ মহিলার শরীরেরই কিন্তু ভিটামিন ডি-এর অভাব লক্ষ্য করা যা। এর জন্য দায়ী সূর্যালোক। অধিকাংশ সময়ই ঘরে থাকার জন্য, একটানা দীর্ঘক্ষণ বসে কাজ করার ফলে শরীর তার পর্যাপ্ত ভিটামিন পায় না। ফলে সেখান থেকে আসে একাধিক সমস্যা। এছাড়াও কোভিডকালে শরীরে রোগ-প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলার জন্য নিয়মিত ভাবে ভিটামিন C এবং D- খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল।

তবে ভিটামিন সাপ্লিমেন্ট খাওয়ার সময় অধিকাংশই কোনও চিকিৎসকের পরামর্শ নেন না। যেহেতু চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন ছাড়াই এসব ওষুধ কিনতে পাওয়া যায়, তাই বেশিরভাগই নিজের মত করে ওষুধ কিনে খান। আর এর ফলে কিন্তু ক্ষতি হয় আমাদের শরীরের। প্রতিটি ওষুধ খাওয়ার নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম থাকে। আর সেই নিয়ম মেনে ওষুধ খেতে পারলে তবেই হয় সমস্যার সমাধান। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ভিটামিন ডি-খাওয়া ঠিক নয়। কারণ এই ভিটামিনের একটি নির্দিষ্ট ডোজ রয়েছে। এছাড়াও ভিটামিন-D এর সঙ্গে আরও একটি ভিটামিন মিশিয়ে খেতে হয়। নইলে কিন্তু শরীরে দেখা দেয় একাধিক শারীরিক সমস্যা।

চর্বিতে দ্রবণীয় ভিটামিন D। মাছ, দুধ আর ডিমের মধ্যে থাকে এই ভিটামিন। শরীর যখন সূর্যালোকের সংস্পর্শে আসে তখন এই ভিটামিন ত্বকেই সংশ্লেষিত হয়। ভিটামিন ডি অন্ত্রের ক্যালশিয়াম শোষণ বৃদ্ধি করে ক্যালশিয়ামের বিপাক নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। যে কারণে হাড় ভঙ্গুর হয়ে যাওয়া, হাড় ভেঙে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা পায় শরীর। শরীরে যখন পর্যাপ্ত ক্যালশিয়াম থাকে না তখন, ভিটামিন ডি হাড় থেকেই সেই ক্যালশিয়াম শোষণ করে। যেখান থেকে কিন্তু আসে অস্টিওপরোসিসের সম্ভাবনা। এছাড়াও শরীরে যদি ভিটামিন-ডি এর পরিমাণ বেড়ে যায় তাহলে সেখান থেকে রক্তনালীর সমস্যা আসে। হার্টের উপর চাপ পড়ে এবং হার্টের স্বাস্থ্য বিঘ্নিত হয়। আর তাই চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ভিটামিন খাবেন না। এতে শরীরে অতিরিক্ত পরিমাণে ভিটামিন জমা হয়। এবং তার প্রভাব তখন কিন্তু উল্টো হয়।

অনেক গবেষণার পর দেখা গিয়েছে ভিটামিন D-এর সঙ্গে সব সময়ই ভিটামিন K- খাওয়া উচিত। ভিটামিন ডি অতিরিক্ত খেলে রক্তে ক্যালশিয়ামের মাত্রা বেড়ে যায়। আর ভিটামিন K-সেই অতিরিক্ত ক্যালশিয়ামকে শোষণে সাহায্য করে। ভিটামিন K-ও চর্বিতে দ্রবণীয়। শাক, সবজি, ফল, ফার্মান্টেড দুধের মধ্যে এই ভিটামিন K- বেশি পরিমাণে পাওয়া যায়। অন্ত্রে ল্যাকটিক অ্যাসিড ব্যাকটেরিয়া তৈরির মাধ্যমে এই ভিটামিন সংশ্লেষিত হয়। নিয়মিত ভাবে ভিটামিন কে (K) -খেতে পারলে হার্টের সমস্যারও সমাধান হয়।

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

আরও পড়ুন: Blood Group: আপনার হার্ট কতটা সুস্থ বলে দেবে ব্লাডগ্রুপই! কীভাবে?

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla