S Jaishankar: ‘জাগো হো?’ মধ্যরাতের পর হঠাৎ বিদেশমন্ত্রীকে ফোন প্রধানমন্ত্রী মোদীর

PM Modi calls Jaishankar after midnight: মাঝরাতে ফোনটা এসেছিল বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের কাছে। ফোন ধরেই চমকে গিয়েছিলেন তিনি, অপর প্রান্তে প্রধানমন্ত্রী।

S Jaishankar: 'জাগো হো?' মধ্যরাতের পর হঠাৎ বিদেশমন্ত্রীকে ফোন প্রধানমন্ত্রী মোদীর
মাঝরাতে প্রধানমন্ত্রীর ফোন, অবাক হয়েছিলেন জয়শঙ্কর
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Amartya Lahiri

Sep 23, 2022 | 8:01 PM

ওয়াশিংটন: মাঝরাতে ফোনটা এসেছিল বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের কাছে। ফোন ধরেই চমকে গিয়েছিলেন তিনি। অপর প্রান্তে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর প্রথম প্রশ্ন ছিল- ‘জাগে হো?…আচ্ছা টিভি দেখা রাহে হো…তো কেয়া হো রাহা হ্যায় ওঁহা?” শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর), আমেরিকার নিউ ইয়র্ক শহরে ‘মোদি অ্যাট ২০: ড্রিমস মিট ডেলিভারি’ নামে একটি বই নিয়ে আলোচনা সভা ছিল। সেই সভায় বক্তৃতা করতে দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বের গুণাবলীর ভূয়সী প্রশংসা করেন বিদেশমন্ত্রী। আর কার সেই সময়ই এই অজানা কাহিনি জানালেন এস জয়শঙ্কর।

ঘটনাটি ছিল ২০১৬ সালের। আফগানিস্তানের মাজার-ই-শরিফে ভারতীয় কনস্যুলেটে হামলা হয়েছিল। তারপরই এস জয়শঙ্কর মধ্যরাতের ওই আশ্চর্যজনক ফোন পেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে। জয়শঙ্কর বলেন, “তখন মধ্যরাত পেরিয়ে গিয়েছিল। আফগানিস্তানের মাজার-ই-শরিফে আমাদের কনস্যুলেটে হামলা হয়েছিল। আমরা ফোনে ফোলে খবর নিচ্ছিলাম, কী ঘটেছে তা বোঝার চেষ্টা করছিলাম। এমন সময় আমার ফোন বেজে উঠেছিল। আমি একটু অবাক হয়েছিলান। সাধারণত প্রধানমন্ত্রী ফোন করলে, কলারের পরিচয় জানা যায় না। অন্য একজন ফোনে যোগাযোগ করে, তারপর প্রধানমন্ত্রীকে দেন। কিন্তু, এই ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী নিজেই সরাসরি ফোন করেছিলেন।”

তারপরই, আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী তাঁকে প্রশ্ন করেছিলেন । বিদেশ মন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী মোদীকে জানিয়েছিলেন, সাহায্য পাঠানো হচ্ছে। তাতে মোদী জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তাঁকে যেন ব্যক্তিগতভাবে জানানো হয়। জয়শঙ্কর বলেন, “আমি তাঁকে বলেছিলাম যে আরও কয়েক ঘন্টা সময় লাগতে পারে। অপারেশন শেষ হলে আমি তাঁর কার্যালয়ে ফোন করব। জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, মুঝে ফোন কর দেনা।”

ওই ঘটনাতেই তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দায়িত্ববোধের পরিচয় পেয়েছিলেন। তবে বিদেশমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে প্রথম সাক্ষাতের আগে থেকেই তিনি নরেন্দ্র মোদীকে পছন্দ করতেন। নিজেকে ‘মাইক্রোম্যানেজার’ বলে দাবি করে তিনি বলেন, “সংকটের সময় আমি শান্ত থাকতে পারি। কিন্তু তিনি যে প্রস্তুতি নিয়েছিলেন তা প্রশংসনীয় ছিল।”

বর্তমানে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ পরিষদের বার্ষিক অধিবেশনে যোগ দিতে আমেরিকার নিউইয়র্কে আছেন এস জয়শঙ্কর। মূল অধিবেশনের পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক, ত্রিপক্ষীয় বৈঠকও করেছেন তিনি।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla