Rain Forecast: কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই দক্ষিণে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি, বাইরে বেরোলে ছাতা অবশ্যই

Rain in West Bengal: পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, বাঁকুড়া এবং পুরুলিয়ায় আগামী এক থেকে দুই ঘণ্টার মধ্যে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি নামতে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া অফিস।

Rain Forecast: কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই দক্ষিণে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি, বাইরে বেরোলে ছাতা অবশ্যই
বৃষ্টি থেকে এখনই মুক্তি নেই , (ফাইল ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Soumya Saha

Sep 29, 2021 | 6:02 PM

কলকাতা: দুর্যোগ আর দুর্ভোগ থেকে এখনই রেহাই নেই দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। গতকাল রাত থেকে একনাগাড়ে বৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণের একাধিক জেলায়। বেশ কিছু নিচু জায়গায় জলও জমে গিয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া অফিস বলছে, সেই জলযন্ত্রণা থেকে এখনই মুক্তি নেই। আগামী কয়েক ঘণ্টা দক্ষিণের জেলাগুলিতে বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে।

পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, বাঁকুড়া এবং পুরুলিয়ায় আগামী এক থেকে দুই ঘণ্টার মধ্যে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি নামতে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া অফিস। ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস না থাকলেও আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকবে এবং বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে আজ রাতে এই জেলাগুলিতে।

অনবরত বর্ষণ চলছেই। কোনও বিরতি ছাড়াই ঝরে চলেছে বৃষ্টির ধারা। আর নতুন করে শহরের একাধিক এলাকায় জল জমে শুরু হয়েছে শহরবাসীদের ভোগান্তি। একাধিক জেলাতেও অবস্থা তথৈবচ। এই পরিস্থিতিতে অবশেষে আশার কথা শোনাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বুধবার বিকেলে এক আলিপুর হাওয়া অফিসে এক সাংবাদিক বৈঠক করে জানানো হয়, আগামিকাল অর্থাৎ ৩০ সেপ্টেম্বর থেকেই আবহাওয়ার উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মাসের শেষ দিন রৌদ্রজ্জ্বল সকাল না দেখা গেলেও এখন যে ধরনের বৃষ্টিপাত হচ্ছে তার প্রকোপ কমবে অনেকটাই।

অন্যদিকে, বর্ষণের রেখাচিত্র তুলে ধরে এ দিন আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানায়, যে নিম্নচাপের প্রভাবে এই ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে, তা বর্তমানে পুরুলিয়ার পশ্চিমে অবস্থান করছে। ধীরে ধীরে তা ঝাড়খণ্ডের দিকে সরে যাবে। গতকাল থেকে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে দুই মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায়। সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের হলদিয়ায়। আগামিকাল থেকেই মেঘ কেটে যেতে শুরু করবে। বৃহস্পতিবার কলকাতায় তেমন ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। তবে যেহেতু বর্ষা এখনও পুরোপুরি বিদায় নেয়নি, তাই কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হলেও হতে পারে।

দুর্যোগ মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই প্রস্তুত রয়েছে প্রশাসন। নবান্নে খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম। রাজ্যের সমস্ত রিজিওনাল অফিসে কন্ট্রোল রুম চলছে। ট্রান্সফার জলের নীচে থাকলে পাওয়ার অফ করা হবে। কোনও সমস্যা হলে টোল ফ্রী নম্বরে জানানো যাবে-১৯১২১ (টোল ফ্রী নম্বর)। হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে যোগাযোগ করা যাবে- ৮৯০০৭৯৩৫০৩ ও ৮৯০০৭৯৩৫০৪ এই নম্বরে।

নবান্নে কন্ট্রোল রুম হয়েছে। বিদ্যুৎ ভবনেও কন্ট্রোল রুম করা হয়েছে। সাংবাদিক বৈঠকে জানালেন বিদ্যুতমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। সংবাদ মাধ্যম সহ বিভিন্ন জায়গায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে সতর্কতার বার্তা দেওয়া হয়েছে। ১ কোটি ২৫ লক্ষ মানুষকে এসএমএস এর মাধ্যমে সতর্কতা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : West Bengal Weather Live Update: অবিরাম বর্ষণ থেকে মুক্তি মিলবে শীঘ্রই! অবশেষে সুখবর শোনাল আবহাওয়া দফতর

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla