Corona Virus: বালুরঘাট পৌরসভার নতুন উদ্যোগ! ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে এবার শুরু করোনা পরীক্ষা

Balurghat: মাস্ক ছাড়া পথে যাঁরা বেরোচ্ছেন তাদের ধরে নিয়ে গিয়ে পরীক্ষা করানো হচ্ছে।

1/5
সংক্রমণ রুখতে এবার বালুরঘাটে শুরু হল দুয়ারে করোনা পরীক্ষা শিবির। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার জেলাশাসক আয়েশা রানির নির্দেশে বুধবার থেকে বালুরঘাট পৌরসভা, স্বাস্থ্য দফতর ও পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় শুরু হল শহরের হাই রিস্ক এলাকায় ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে করোনার পরীক্ষা শিবির। বুধবার দুপুরে বালুরঘাট থানা মোড় এলাকা থেকে ভ্রাম্যমান গাড়িতে করে শুরু হয় এই করোনার পরীক্ষা শিবির। মূলত যাঁরা মাস্ক ছাড়া চলাচল করছে সেই সব পথচলতি মানুষদেরই করোনার টেস্ট করা হচ্ছে। আজ থেকে এই কর্মসূচি শুরু হয়েছে যা আগামী দিনে বালুরঘাট শহরের বিভিন্ন প্রান্তে চলবে।
সংক্রমণ রুখতে এবার বালুরঘাটে শুরু হল দুয়ারে করোনা পরীক্ষা শিবির। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার জেলাশাসক আয়েশা রানির নির্দেশে বুধবার থেকে বালুরঘাট পৌরসভা, স্বাস্থ্য দফতর ও পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় শুরু হল শহরের হাই রিস্ক এলাকায় ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে করোনার পরীক্ষা শিবির। বুধবার দুপুরে বালুরঘাট থানা মোড় এলাকা থেকে ভ্রাম্যমান গাড়িতে করে শুরু হয় এই করোনার পরীক্ষা শিবির। মূলত যাঁরা মাস্ক ছাড়া চলাচল করছে সেই সব পথচলতি মানুষদেরই করোনার টেস্ট করা হচ্ছে। আজ থেকে এই কর্মসূচি শুরু হয়েছে যা আগামী দিনে বালুরঘাট শহরের বিভিন্ন প্রান্তে চলবে।
2/5
 গত তিনদিনে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় করোনার সংক্রমণ ১০০ গণ্ডি পেরিয়েছে৷ বালুরঘাট শহরেও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এমত অবস্থায় জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার পক্ষ থেকে সংক্রমণ রুখতে একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। করোনার প্রকোপ রুখতে এবার অভিনব উদ্যোগ নিল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসণ। আজ থেকে শহরে পৌরসভা ও প্রশাসনের উদ্যোগে শুরু হয়েছে ভ্রাম্যমাণ করোনা পরীক্ষা শিবির। এদিন দুপুর থেকে পথচলতি মানুষদের করা হচ্ছে করোনার টেস্ট। মূলত যেই সব এলাকায় সব থেকে বেশি করোনার সংক্রমণ সেই সব এলাকায় ভ্রাম্যমাণ গাড়ি নিয়ে পৌঁছে যাচ্ছে পৌরসভার স্বাস্থ্যকর্মীরা ৷ পথচলতি মানুষ থেকে ব্যবসায়ী ও স্থানীয়দের করা হচ্ছে করোনার পরীক্ষা ৷ যারা মূলত মাস্ক ছাড়া রাস্তায় বেরিয়েছে তাঁদেরকে ধরে ধরে করা হচ্ছে করোনার পরীক্ষা। এদিন বালুরঘাট শহরের থানা মোড়, চকভৃগু, চকভবানী সহ হাইরিস্ক এলাকায় এই করোনার পরীক্ষা শিবির অনুষ্ঠিত হচ্ছে৷ এর ফলে করোনার সংক্রমণ অনেকটাই ঠেকানো সম্ভব বলে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে।
গত তিনদিনে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় করোনার সংক্রমণ ১০০ গণ্ডি পেরিয়েছে৷ বালুরঘাট শহরেও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এমত অবস্থায় জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার পক্ষ থেকে সংক্রমণ রুখতে একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। করোনার প্রকোপ রুখতে এবার অভিনব উদ্যোগ নিল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসণ। আজ থেকে শহরে পৌরসভা ও প্রশাসনের উদ্যোগে শুরু হয়েছে ভ্রাম্যমাণ করোনা পরীক্ষা শিবির। এদিন দুপুর থেকে পথচলতি মানুষদের করা হচ্ছে করোনার টেস্ট। মূলত যেই সব এলাকায় সব থেকে বেশি করোনার সংক্রমণ সেই সব এলাকায় ভ্রাম্যমাণ গাড়ি নিয়ে পৌঁছে যাচ্ছে পৌরসভার স্বাস্থ্যকর্মীরা ৷ পথচলতি মানুষ থেকে ব্যবসায়ী ও স্থানীয়দের করা হচ্ছে করোনার পরীক্ষা ৷ যারা মূলত মাস্ক ছাড়া রাস্তায় বেরিয়েছে তাঁদেরকে ধরে ধরে করা হচ্ছে করোনার পরীক্ষা। এদিন বালুরঘাট শহরের থানা মোড়, চকভৃগু, চকভবানী সহ হাইরিস্ক এলাকায় এই করোনার পরীক্ষা শিবির অনুষ্ঠিত হচ্ছে৷ এর ফলে করোনার সংক্রমণ অনেকটাই ঠেকানো সম্ভব বলে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে।
3/5
বালুরঘাট শহরের ২৫ টি ওয়ার্ডের মধ্যেই জেলার প্রায় ৫০ শতাংশ সংক্রিয় রোগী রয়েছে। প্রতিদিন  বালুরঘাটেই গড়ে ৩০-৪০ জন নতুন করে সংক্রমিত হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। যার ফলে শহরে বেশি করে টেস্টের উপর জোর দেওয়া হয়েছে। এদিন থেকেই মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে শহরের থানা মোড় ও চকভৃগু বাজার এলাকায় ওই মোবাইল ভ্যানটি পৌঁছায়। সেখানে মাস্কহীনদের পুলিস এদিন গ্রেফতার না করে সোজা র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্টের করায়। পাশাপাশি প্রথম দিনে বহু ব্যবসায়ী, পথচারী, ও বাসের কর্মীরা টেস্ট করায়। তবে এদিন কাউকেই পজ়িটিভ পাওয়া যায়নি বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে, প্রতিদিনই জেলায় হুহু করে করোনার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ইতিমধ্যেই বহু আধিকারিক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা পজ়িটিভও হয়েছে। তবে প্রশাসনের কাজ যাতে ব্যহত না ঘটে, তার জন্য জেলার অনেক আধিকারিকরাই আইসোলেশনে ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন বলে জানা গিয়েছে।
বালুরঘাট শহরের ২৫ টি ওয়ার্ডের মধ্যেই জেলার প্রায় ৫০ শতাংশ সংক্রিয় রোগী রয়েছে। প্রতিদিন বালুরঘাটেই গড়ে ৩০-৪০ জন নতুন করে সংক্রমিত হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। যার ফলে শহরে বেশি করে টেস্টের উপর জোর দেওয়া হয়েছে। এদিন থেকেই মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে শহরের থানা মোড় ও চকভৃগু বাজার এলাকায় ওই মোবাইল ভ্যানটি পৌঁছায়। সেখানে মাস্কহীনদের পুলিস এদিন গ্রেফতার না করে সোজা র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্টের করায়। পাশাপাশি প্রথম দিনে বহু ব্যবসায়ী, পথচারী, ও বাসের কর্মীরা টেস্ট করায়। তবে এদিন কাউকেই পজ়িটিভ পাওয়া যায়নি বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে, প্রতিদিনই জেলায় হুহু করে করোনার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ইতিমধ্যেই বহু আধিকারিক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা পজ়িটিভও হয়েছে। তবে প্রশাসনের কাজ যাতে ব্যহত না ঘটে, তার জন্য জেলার অনেক আধিকারিকরাই আইসোলেশনে ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন বলে জানা গিয়েছে।
4/5
এবিষয়ে সদর মহকুমাশাসক সুমন দাশগুপ্ত বলেন, "বালুরঘাট শহরে সংক্রমণ বেশি হচ্ছে। যার ফলে শহরের সংক্রমিত এলাকাগুলিতে মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্টের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। যাতে করে কোভিড কেসগুলি চিহ্নিত করা যায়। শহরের পথচারী ও সাধারণ ব্যবসায়ীদেরও এই টেস্ট করা হবে। এছাড়াও মাস্ক নিয়ে সকলকে সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে।"
এবিষয়ে সদর মহকুমাশাসক সুমন দাশগুপ্ত বলেন, "বালুরঘাট শহরে সংক্রমণ বেশি হচ্ছে। যার ফলে শহরের সংক্রমিত এলাকাগুলিতে মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্টের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। যাতে করে কোভিড কেসগুলি চিহ্নিত করা যায়। শহরের পথচারী ও সাধারণ ব্যবসায়ীদেরও এই টেস্ট করা হবে। এছাড়াও মাস্ক নিয়ে সকলকে সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে।"
5/5
এবিষয়ে বালুরঘাট পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলির চেয়ারম্যান শেখর দাশগুপ্ত বলেন, "বালুরঘাট শহরে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। যার ফলে বেশি করে সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে। জেলাশাসক ম্যাডাম শহরে টেস্ট বেশি করার ক্ষেত্রে জোর দিয়েছিলেন। সেই মত আজ থেকে মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে যতটা সম্ভব বেশি টেস্ট করা যায়। তা পুলিস প্রশাসনের সহযোগিতায় করা হবে।"
এবিষয়ে বালুরঘাট পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলির চেয়ারম্যান শেখর দাশগুপ্ত বলেন, "বালুরঘাট শহরে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। যার ফলে বেশি করে সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে। জেলাশাসক ম্যাডাম শহরে টেস্ট বেশি করার ক্ষেত্রে জোর দিয়েছিলেন। সেই মত আজ থেকে মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে যতটা সম্ভব বেশি টেস্ট করা যায়। তা পুলিস প্রশাসনের সহযোগিতায় করা হবে।"

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla