Raj Chakraborty: ‘আমাদের মেরেই দিত…’, হামলার মুখে বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী

Raj Chakraborty: 'আমাদের মেরেই দিত...', হামলার মুখে বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী
হামলার পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন রাজ

Raj Chakraborty: রাজের ওপর আচমকা হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতী। প্রথমে বিধায়কের ওপর হামলা চালানো হয়। কিন্তু নিরাপত্তারক্ষী থাকার কারণে দুষ্কৃতীরা রাজ চক্রবর্তীকে আঘাত করতে ব্যর্থ হন।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: tannistha bhandari

Jan 25, 2022 | 10:12 PM

ব্যারাকপুর : হামলার মুখে পড়লেন বারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী। মঙ্গলবার টিটাগড় বড় মসজিদের কাছে একটি পার্ক উদ্বোধন করতে গিয়েছিলেন বিধায়ক তথা পরিচালক রাজ। সেখান থেকে বেরিয়ে আর একটি আর অনুষ্ঠানে যাওয়ার সময় তাঁর ওপর হামলা হয় বলে অভিযোগ। বিধায়ক জানান, একটু অসতর্ক হলে মেরেও দিতে পারত দুষ্কৃতী। মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও তিনি বিষয়টি জানিয়েছেন বলে উল্লেখ করেন রাজ। খবর পেয়ে বারাকপুরের পুলিশ কমিশনার মনোজ ভার্মার নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় বিশাল পুলিশ বাহিনী। চিহ্নিত করা হয় দুষ্কৃতীদের। এখনও কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

অভিযোগ, এ দিন রাজের ওপর আচমকা হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতী। প্রথমে বিধায়কের ওপর হামলা চালানো হয়। কিন্তু নিরাপত্তারক্ষী থাকার কারণে দুষ্কৃতীরা রাজ চক্রবর্তীকে আঘাত করতে ব্যর্থ হন। এরপরই দুষ্কৃতীরা তাঁর নিরাপত্তারক্ষীর ওপর হামলা চালায়। তৎক্ষণাৎ তৃণমূল কর্মীরা জড় হলে দুষ্কৃতীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় বলে দাবি স্থানীয় নেতাদের।

এই ঘটনার পরই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হযন বারাকপুরের পুলিশ কমিশনার মনোজ ভার্মা, বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের জয়েন্ট সিপি অজয় ঠাকুর, খড়দা থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক। এ ছাড়াও সেখানে উপস্থিত হন বিধায়ক সুবোধ অধিকারী, নৈহাটির বিধায়ক পার্থ ভৌমিক, কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র। তবে এই ঘটনায় কেউ আহত হননি। দুষ্কৃতীদের ধরতে তৎপর পুলিশ। শুরু হয়েছে খোঁজ।

রাজ চক্রবর্তী এই ঘটনার পর জানান, এ দিন প্রথমে তাঁর হাতে একটি চিঠি দেওয়া হয়। তারপরই আচমকা হামলার চেষ্টা করা হয়। তিনি বলেন, ‘সঙ্গে সঙ্গে আমাদের একটা আশ্রয়ে নিয়ে আসা হয়। নাহলে আমাদের মেরেই দিত।’ তাঁর দাবি, তিনি বারাকপুর অঞ্চলে সুষ্ঠ পরিবেশ তৈরি করার কথা বলছেন বলে, দুষ্কৃতীদের তিনি ঘৃণা করেন বলেই এই হামলা। তাঁর দাবি, দুবৃত্তরা চাইছে না ভালো পরিবেশ তৈরি হোক। টীটাগড়ে যাতে ভালো পরিবেশ তৈরি না হয়, তার জন্যই এসব করা হচ্ছে বলে মনে করেন রাজ।

বিধায়ক বলেন,  ‘এদের কাছে মাথা নোয়াব না। আমি পাঁচ বছর এখানে বিধায়ক আছি। পাঁচ বছরের আগেই এ সব শেষ করব। তিনি মনে করেন, তাঁর ওপর যদি হামলা হয়, সাধারণ মানুষের ওপর আরও অত্যাচার হবে। এটা চ্যালেঞ্জ বলে উল্লেখ করেন বিধায়ক তথা পরিচালক রাজ।’

রাজ চক্রবর্তী জানিয়েছেন, সিসিটিভিতে পুরো ঘটনা ধরা পড়েছে। দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করা সম্ভব হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও সবটা জানিয়েছেন রাজ। অবিলম্বে দুষ্কৃতীদের শাস্তি দেওয়া হবে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন : Buddhadeb Bhattacharjee :পূর্বসূরির পথেই হাঁটলেন বুদ্ধদেব, প্রত্যাখ্যান করলেন পদ্ম সম্মান

আরও পড়ুন : Covid Bulletin: দৈনিক সংক্রমণ আরও কিছুটা কমল, নেমেছে পজিটিভিটি রেটও

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA