Weather Update: কম্বলের আরাম আর ধোঁয়া ওঠা চায়ের কাপে চুমুক, হাজির শীত! তবে কবে থেকে জাঁকিয়ে পড়বে ঠান্ডা?

Weather Update: মূলত পরিস্কার আকাশ, তাই তাপমাত্রা কম। সকালে শীতের আমেজ রয়েছে শহর জুড়ে। তবে বেলা বাড়তেই তাপমাত্রার পারদ বাড়ছে ক্রমশ। নভেম্বরের শেষেও সারাদিন শীতের অপেক্ষায় বাঙালি।

Weather Update: কম্বলের আরাম আর ধোঁয়া ওঠা চায়ের কাপে চুমুক, হাজির শীত! তবে কবে থেকে জাঁকিয়ে পড়বে ঠান্ডা?
এখনও শীত অধরা (ফাইল চিত্র)

কলকাতা: সকালের হিমেল পরশ, কম্বলের আরাম আর ধোঁয়া ওঠা চায়ের কাপে চুমুক! ব্যস, আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, দোরগোড়ায় হাজির শীত। উত্তুরে হাওয়া বইতে শুরু করেছে জেলাগুলিতে।

ফের নামল পারদ। আগামী কয়েকদিন পারদ নিম্নমুখী থাকবে বলেই জানাচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা।  শুক্রবারের তুলনায় শনিবার এক ডিগ্রি সেলসিয়াস কমেছে তাপমাত্রা। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন ১৮.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৃষ্টি হয়নি। মূলত পরিস্কার আকাশ, তাই তাপমাত্রা কম। সকালে শীতের আমেজ রয়েছে শহর জুড়ে। তবে বেলা বাড়তেই তাপমাত্রার পারদ বাড়ছে ক্রমশ। নভেম্বরের শেষেও সারাদিন শীতের অপেক্ষায় বাঙালি।

আগামী ২৪ ঘণ্টা থাকবে শুষ্ক আবহাওয়া। পার্বত্য এলাকায় হালকা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা থাকলেও কলকাতায় বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বলেই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। জলীয় বাষ্পের দাপটে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল উত্তুরে-পশ্চিমী বাতাস। মেঘের দখলে আকাশ। এখন কিছুটা হলেও সেই বাধা কেটেছে।

আবহাওয়া দফতর অবশ্য জানিয়েছে, উচ্চচাপের গেরো কেটে গিয়েছে। মেঘ সরে আকাশ পরিষ্কার হয়েছে। ফলে ফিরেছে হেমন্তের ঠান্ডা আমেজ। আগামী ২-৩ দিনের মধ্যে ২-৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা কমতে পারে। সকাল থেকে হালকা কুয়াশার চাদরে মোড়া শহর কলকাতাও। দার্জিলিং ও কালিম্পঙে আজও হালকা বৃষ্টি হতে পারে। দুই বঙ্গেই বিক্ষিপ্তভাবে হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশার পূর্বাভাস।

হাওয়া অফিস অবশ্য বলছে, তাপমাত্রা ক্রমশ নিম্নমুখী হচ্ছে আর কয়েকদিনের মধ্যেই জাঁকিয়ে শীত পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। উচ্চচাপের ফাঁড়া কেটেছে। তাই বুধবারের পর থেকে ধীরে ধীরে ফিরছে ঠান্ডা আমেজ। এমনও হতে পারে, আগামী সপ্তাহান্তে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচেও নামতে পারে।

তবে হাওয়া অফিসের যা ইঙ্গিত, তাতে পুরোদমে দক্ষিণবঙ্গে শীত পড়তে এখনও কিছুটা সময় বাকি। ১৫ ডিসেম্বরের আগে সে অর্থে কলকাতায় শীত পড়েও না। তবে ধীরে ধীরে তাপমাত্রা নামতে শুরু করে। কিন্তু এবার নভেম্বরেই দু’বার তাপমাত্রা ১৮’র কাছাকাছি নেমে গিয়েছিল।

সপ্তাহান্তে ফের একবার পূবালি হাওয়ার প্রভাবে রাজ্যে জলীয় বাষ্প ঢুকবে। রাজ্যে উত্তুরে হাওয়া ঢোকায় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল পূবালি বাতাস। তার দাপটে বঙ্গোপসাগর থেকে রাজ্যে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছিল। এর প্রভাবে গত কয়েকদিনে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি হয়েছে কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায়। কিন্তু সেই বাধা কাটায় এখন আকাশ পরিষ্কার। ফলে নিম্নমুখী পারদ। শিরশিরে ভাব অনুভূত হচ্ছে। তবে এখনও জাঁকিয়ে ঠান্ডার জন্য বেশ কয়েকটা দিন অপেক্ষাই করতে হবে।

আরও পড়ুন: Bank Fraud Awareness: বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কর্মী-যোগের প্রমাণ মিলেছে, জালিয়াতি রুখতে এবার ব্যাঙ্কগুলিকে বিশেষ সতর্কতা লালবাজারের

আরও পড়ুন: আগামী বছর টানা ১১ দিন পুজোর ছুটি, ২০২২ সালের ছুটির তালিকা প্রকাশ নবান্নের

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla