European Super League: বার্সা-রিয়াল-জুভের বিরুদ্ধে পিছু হঠল উয়েফা

এক বিবৃতিতে উয়েফার অ্যাপিলস বডি জানিয়েছে, বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, জুভেন্তাসের সুপার লিগ আয়োজন করার জন্য নিয়মভঙ্গের গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছিল। তাতে উয়েফার ভাবমূর্তি কোথাও না কোথাও নষ্ট হয়েছে বলে মনে হয়েছিল। সেই অভিযোগ খারিজ করে দেওয়া হল। ব্যাপারটা এমন যেন, তাদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ভাবাই হয়নি।

European Super League: বার্সা-রিয়াল-জুভের বিরুদ্ধে পিছু হঠল উয়েফা
বার্সা-রিয়ালদের বিরুদ্ধে আইনি পথে লড়বে না উয়েফা। ছবি: টুইটার

জুরিখ: বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, জুভেন্তাসের বিরুদ্ধে আর আইনি লড়াই লড়বে না উয়েফা। স্পষ্ট জানিয়ে দিল ইউরোপের ফুটবল নিয়ামক সংস্থা। এর ফলে সুপার লিগ বনাম উয়েফা এখানেই শেষ হয়ে গেল। উয়েফার একগুঁয়েমির বিরুদ্ধে একে তিন ক্লাবের জয় বলেই ধরছে ফুটবল দুনিয়া।

ইউরোপের সেরা ক্লাবগুলোর জোট তৈরি হয়েছিল সুপার লিগ আয়োজন করার জন্য। কিন্তু উয়েফা ও ফিফার হুমকিতে শেষ পর্যন্ত নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে জোট ভেঙে বেরিয়ে আসে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি, লিভারপুল, আতলেতিকো মাদ্রিদের মতো ন’টি ক্লাব। পরিস্থিতি যাই হোক না কেন, নিজেদের অবস্থান থেকে বিন্দুমাত্র সরেনি এই তিন ক্লাব। তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছিল। পুরো ঘটনার তদন্তের জন্য কমিটিও তৈরি করা হয়। তিন ক্লাব থেমে থাকেনি। মাদ্রিদ কোর্টে এ নিয়ে মামলাও করা হয়। মাদ্রিদ আদালত রায় দেয়, উয়েফা আইনের বাইরে গিয়ে কাজ করছে। জানিয়ে দেওয়া হয়, এই তিন ক্লাবের বিরুদ্ধে কোনও আইনি ব্যবস্থা নিতে পারবে না উয়েফা। তারপর থেকেই পিছু হঠতে শুরু করে উয়েফা। ওই মামলা এখন ইউরোপিয়ান কোর্ট অফ জাস্টিসে তত্ত্বাবধানে রয়েছে।

এক বিবৃতিতে উয়েফার অ্যাপিলস বডি জানিয়েছে, বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, জুভেন্তাসের সুপার লিগ আয়োজন করার জন্য নিয়মভঙ্গের গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছিল। তাতে উয়েফার ভাবমূর্তি কোথাও না কোথাও নষ্ট হয়েছে বলে মনে হয়েছিল। সেই অভিযোগ খারিজ করে দেওয়া হল। ব্যাপারটা এমন যেন, তাদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ভাবাই হয়নি।

১২ ক্লাবের জোট রীতিমতো চাপে ফেলে দিয়েছিল উয়েফাকে। মাঝপথে তারা লিগ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার কথাও বলেছিল। অর্থনৈতিক পরিকাঠামো নিয়েই তাদের যত অভিযোগ ছিল। সুপার লিগ আয়োজন করলে ফুটবল, ফুটবলার ও ফুটবল বিশ্বেরই লাভ হবে, এমনও বলেছিল ১২ ক্লাবের জোট। কিন্তু চাপের মুখে তারা নতিস্বীকার করতে বাধ্য হয়।

প্রশ্ন হল, গত জুনে নিঃশর্ত ভাবে ক্ষমা চেয়ে উয়েফার লিগে ফেরা ৯ ক্লাবকে আর্থিক জরিমানাও করেছিল উয়েফা। সব মিলিয়ে ২২ মিলিয়ন পাউন্ড দিতে হত। যাকে গুডউইল পেমেন্ট বলা হয়েছিল। সেই অর্থ কি নেওয়া হবে? উয়েফা অবশ্য জানাচ্ছে, ওই ৯ ক্লাব থেকে এখনও গুডউইল অর্থ নেওয়া হয়নি। অর্থাৎ বার্সা, রিয়াল, জুভেন্তাসের লড়াই বাকি ক্লাবগুলো আর্থিক জরিমানার হাত থেকে বাঁচিয়ে দিল।

 

আরও পড়ুন: Simone Biles: টোকিও অলিম্পিকের আগেই জিমন্যাস্টিক্স ছেড়ে দেওয়া উচিত ছিল, বলছেন বাইলস

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla